মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আ’লীগ সমর্থকদের ২০ বাড়িঘরে হামলা

প্রকাশিত : ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • মাগুরায় আওয়ামী লীগ-বিএনপির মধ্যে কোন্দল

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা, ৯ ফেব্রুয়ারি ॥ মাগুরার বাহারবাগ গ্রামে সোমবার সকালে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আওয়ামী লীগ সমর্থকদের ২০টি বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট করেছে দুর্বৃত্তরা। জানা গেছে, মাগুরা সদর উপজেলার বাহারবাগ গ্রামে আ’লীগ নেতা বাদশা মোল্ল্যা সঙ্গে ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক লিয়াকত হোসেনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। সেই সূত্র ধরে স্থানীয় বিএনপি সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট চালায় বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এ সময় সবুর মোল্যা, লুৎফর মোল্যা, নান্নু মোল্যা, গোলাম রসূল মোল্যা, মন্নু মোল্যা, গোলজার জোয়ারদার, সমির উদ্দিন মিয়া, নূর ইসলাম, রোস্তম মোল্যা, আমজাদ মোল্যা, সোরাপ হোসেন, খায়রুল ইসলামসহ প্রায় ২০ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীর বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে। ঘরের বেড়া কুপিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করা হয়েছে। স্থানীয় আ’লীগ নেতা বাদশা মোল্ল্যা অভিযোগ করেন, রবিবার ১৪ দলের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীতে যোগদান করায় বিএনপি জামায়াতের লোকজন এ হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়েছে। মাগুরার সহকারী পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায় জানান, সদর উপজেলার বাহারবাগ গ্রামে আওয়ামী লীগ সমর্থকদের ৫-৭টি বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ঝিনাইদহে সংঘর্ষ ॥ আহত ১৫ গ্রেফতার ১২

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইদহ, ৯ ফেব্রুয়ারি ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে। সে সময় পুলিশ অর্ধশত রাউন্ড শর্টগানের গুলি ও ২ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সোমবার দুপুরে শৈলকুপা উপজেলার বড়দাহ গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। গ্রেফতার এড়াতে আহতরা গোপনে বিভিন্ন ক্লিনিক ও হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ১২ জনকে আটক করেছে।

শৈলকুপা থানার ওসি হাশেম খান জানান, বড়দা গ্রামের সাবেক ইউপি মেম্বর নজরুল ইসলামের সঙ্গে একই গ্রামের বর্তমান ইউপি মেম্বার আনোয়ার হোসেনের মধ্যে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। তারই জের ধরে সোমবার সকাল থেকে মুখোমুখি অবস্থান নেয়। দুপুরের দিকে উভয়পক্ষের লোকজন ঢাল, ভেলা, সড়কি, রামদা, লাঠিসোঁটা নিয়ে তুমুল সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। খবর পেয়ে পুুলিশ ঘটনাস্থলে ২ রাউন্ড টিয়ারশেল ও অর্ধশতাধিক রাউন্ড শর্টগানের গুলিবর্ষণ করে দু’গ্রুপকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

প্রকাশিত : ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১০/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: