মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিমান মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সদস্য হয়ে বেপরোয়া তোজাম্মেল

প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিমান মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সদস্য হওয়ার পর পরই হঠাৎ বেপরোয়া হয়ে ওঠেন সোনা চোরাচালান মামলায় গ্রেফতারকৃত অন্যতম আসামি বিমানের ম্যানেজার তোজাম্মেল হক। তারপর থেকেই তিনি জড়িয়ে পড়েন মদ, সিগারেট, সোনা পাচারের মতো অপরাধে। ডিবির জিজ্ঞাসাবাদে এ ধরনের তথ্য বেরিয়ে আসে।

ডিবির জিজ্ঞাসাবাদের সময় তোজাম্মেল স্বীকার করেছেনÑবিমান মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সদস্য হওয়ার জন্য তিনি একটি সনদ জমা দিয়েছেন। বিগত মহাজোট সরকারের সময় চাকরিজীবী মুক্তিযোদ্ধাদের বয়স দু’বছর বাড়ানোর পর হঠাৎ বিমান মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সদস্য হন তিনি। এ বিষয়ে বিমান মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মীর মোহাম্মদ আরিফুল হকের কাছে জানতে চাইলে তিনি জনকণ্ঠকে বলেন, এটা আমার জানা নেই। তোজাম্মেল মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের সনদ বিমান মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সত্যায়িত করে বিমানে জমা দিয়েছে। তারপর আমরা তাকে বিমান শাখার সদস্য করেছি। সে কোথায় যুদ্ধ করেছে, কি করেনি, সেটা আমার জানা নয়। মূলত বিমান মুক্তিযোদ্ধার সংসদের পরিচালনা কমিটির সদস্য হতে হলে অবশ্যই তাকে মুক্তিযোদ্ধা হতে হবে। আর এর সাধারণ সদস্য রাজাকার ছাড়া যে কেউ হতে পারেনি। এ নীতিতে বিমানের অনেক কর্মকর্তা কর্মচারীর সন্তান এ সংসদের সদস্য।

ডিবি সূত্র জানায়, জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তোজাম্মেল কিছুটা ক্ষোভের সঙ্গেই জানিয়েছেন তিনি শুধু একা নন। তার মতো এমন আরও বেশ কজন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা রয়েছে বিমানের ওই সংসদে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিমানের পরিচালক (প্রশাসন), রাজপতি সরকার জনকণ্ঠকে বলেনÑ তোজাম্মেল কোথায় যুদ্ধ করেছেÑ সেটা আমি জানি না। আমার বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও তাঁর বাড়ি ফরিদপুর। কাজেই আমি কি করে বলবো, তিনি একাত্তরে কোথায় কি করেছেন। বিমানের পরিচালক হিসেবে আমি শুধু এটা জানি, তিনি মুক্তিযোদ্ধা সংসদের একটি সার্টিফিকেট বিমান মন্ত্রণালয়ের দ্বারা সত্যায়িত করে বিমানে জমা দিয়েছেন। সেটা ভুয়া না আসল সেটা আমার জানার নয়।

প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর ২০১৪

২৬/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: