আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পুঁজিবাজারে সূচকের সঙ্গে লেনদেন কমেছে

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ একটানা তিন দিন দর বৃদ্ধির পর বৃহস্পতিবার মূল্য সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারে। বেশিরভাগ কোম্পানির দর বাড়া সত্ত্বেও প্রধান বাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জের সার্বিক সূচকের পতন ঘটেছে। শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেই হারে ক্রেতা না বাড়ার কারণে সূচকের সঙ্গে লেনদেনও কমে গেছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আগের দিনের চেয়ে ৯ শতাংশ লেনদেন কমেছে। মূলত দিনটিতে জাঙ্ক বা ছোট মূলধনী কোম্পানিগুলোর দর বেড়েছে বেশি। যার কারণে সার্বিক সূচকের এই দরবৃদ্ধি খুব বেশি প্রভাব ফেলতে পারেনি। দিনশেষে বড় মূলধনী কোম্পানিগুলো দর হারানোর কারণে সব ধরনের সূচকই কমে যায়।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ৪০৬ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের তুলনায় ৪০ কোটি ৪১ লাখ টাকা কম। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ৪৪৭ কোটি ১৫ লাখ টাকার শেয়ার। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩১২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৭টির, কমেছে ১২১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৪টির শেয়ার দর।

সকালে সূচকের উর্ধগতি দিয়ে শুরুর কিছুক্ষণ পরই শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়ে। ফলে সূচকের তীরে নিচে নামতে থাকে। সারাদিন সূচকের ওঠানামার পরে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ৭ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৫১৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ১০১ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৭৪২ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হলোÑ ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ, ইফাদ অটোস, বিএসআরএম লিমিটেড, বেক্সিমকো, খুলনা পাওয়ার কোম্পানি, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, ফ্যামিলি টেক্স, সাইফ পাওয়ারটেক এবং সামিট এ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেড।

ডিএসইর দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : হাক্কানী পাল্প, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, মুন্নু সিরামিক, ন্যাশনাল টিউবস, প্রাইম লাইফ, এশিয়া ইন্স্যুরেন্স, লিগ্যাসি ফুটওয়্যার, ৭ম আইসিবি ও বিচ হ্যাচারি।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : সামাতা লেদার, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, সুহৃদ ইন্ড্রাস্টিজ, রহিমা ফুড, ইউনাইটেড এয়ার, মাইডাস ফাইন্যান্স, ন্যাশনাল টি, তসরিফা ইন্ড্রাস্টিজ ও সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৩১ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৩৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৮৮৯ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪০টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯৬টির, কমেছে ১১৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ইউনাইটেড এয়ার, বিএসআরএমএম লিমিটেড, তসরিফা ইন্ড্রাস্ট্রিজ, বেক্সিমকো, সাইফ পাওয়ার টেক, ফার কেমিক্যাল, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, ফ্যামিলি টেক্স, গ্রামীণফোন ও ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড।

তসরিফার দর কমল দ্বিতীয় দিনেই ॥ বস্ত্র খাতের নতুন লেনদেন হওয়া তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের লেনদেনের দ্বিতীয় দিনেই দরপতন হয়েছে। বৃহস্পতিবার শেয়ারটি ৯০ পয়সা বা ২ দশমিক ৫২ শতাংশ দর কমে লুজার তালিকায় নেমে গেছে। বুধবার তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ পুঁজিবাজারে লেনদেন শুরু করে। প্রথম দিনে শেয়ারটির দর ৯ টাকা ৭০ পয়সা বা ৩৭ দশমিক ৩১ শতাংশ বাড়ে। ওই দিন শেয়ারটি ৫০ টাকা দরে লেনদেন শুরু করেছিল।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার শেয়ারটি টপটেন লুজার তালিকার নবম স্থানে রয়েছে। তসরিফার শেয়ার সর্বশেষ লেনদেন হয় ৩৪ টাকা ৮০ পয়সা দরে। বুধবার এ শেয়ারের সমাপনী দর ছিল ৩৫ টাকা ৭০ পয়সা। কোম্পানির ২০ লাখ ২৩ হাজার ৮৮৪টি শেয়ার লেনদেন হয়, যার বাজার মূল্য ছিল ৬ কোটি ৯৯ লাখ টাকা।

প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৫

১৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: