আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মোশাররফের অর্থপাচার মামলায় অভিযোগের শুনানি ২৩ জুলাই

প্রকাশিত : ১৪ জুন ২০১৫, ১১:৪৩ এ. এম.

অনলাইন রিপোর্টার॥ অর্থ পাচার মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য ২৩ জুলাই দিন ধার্য করেছেন আদালত।

খন্দকার মোশাররফের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির দিন ধার্য ছিলো রবিবার। হাইকোর্টে এ মামলায় অভিযোগপত্র আমলে নেওয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে একটি রিট পিটিশন থাকায় তার আইনজীবী এ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া ও জয়নুল আবেদীন মেজবাহ অভিযোগ গঠন শুনানি পিছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন। সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে ঢাকার বিশেষ জজ-১ এর বিচারক দলিল উদ্দিন এ দিন ধার্য করেন। রবিবার কারাগার থেকে মোশাররফকে আদালতে হাজির করা হয়।

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়, তিনি ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে অর্জিত সাড়ে নয় কোটি টাকা যুক্তরাজ্যে পাচার করেছেন।

এজাহারে বলা হয়, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন মন্ত্রী থাকাকালীন সময়ে ক্ষমতার অপব্যবহার, দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিংয়ের মাধ্যমে অবৈধভাবে অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রা পাচার করে আইনপরিপন্থী কাজ করেছেন।

তিনি ও তার স্ত্রী বিলকিস আক্তার হোসেনের যৌথ নামে যুক্তরাজ্যের লয়েড টিএসবি অফসোর প্রাইভেট ব্যাংকে (Lloyds TSB Offshore Private Bank) ৮ লাখ ৪ হাজার ১৪২.৪৩ ব্রিটিশ পাউন্ড (হিসাব নং- ১০৮৪৯২) জমা করেন। বাংলাদেশী মুদ্রায় ৯ কোটি ৫৩ লাখ ৯৫ হাজার ৩৮১ টাকা। ড. খন্দকার মোশাররফ ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকাকালীন ওই টাকা পাচার করেন বলে দুদকের তদন্তে প্রমাণ পাওয়া যায়।

এ ঘটনায় ২০১৪ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি দুদকের পরিচালক নাসিম আনোয়ার বাদী হয়ে রমনা মডেল থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন। ১৪ আগস্ট ২০১৪ তারিখে দুদকের পরিচালক নাসিম আনোয়ার তার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন।

প্রকাশিত : ১৪ জুন ২০১৫, ১১:৪৩ এ. এম.

১৪/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: