মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

চট্টগ্রামে তিন দিনে ২৪ অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদ

প্রকাশিত : ৮ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রাম নগরীতে অব্যাহত বিলবোর্ড উচ্ছেদ অভিযানে এ পর্যন্ত ২৪টি অবৈধ বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়েছে। সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজিয়া শিরিনের নেতৃত্বে নগরীর ষোলশহর দুই নম্বর গেট এলাকায় তিন দিন অভিযান চালিয়ে এসব বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়। সর্বশেষ রবিবার একই এলাকায় চালানো অভিযানে ছোট-বড় ৯টি বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজিয়া শিরিন বলেন, মেয়রের নির্দেশে গত সোমবার থেকে তারা অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদ শুরু করেছেন। তিন দিন অভিযান চালিয়ে এই পর্যন্ত ২৪টি বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হয়েছে। রবিবার ৯টি বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়। সিটি কর্পোরেশন এলাকায় মোট ১ হাজার ৩৩ অবৈধ বিলবোর্ড রয়েছে। বিলবোর্ডগুলো অপসারণ না করা পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত থাকবে।

গত ১৬ মে সিএমপির উদ্যোগে আয়োজিত পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচীতে অংশ নিয়ে নগরীর অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদের ঘোষণা দেন মেয়র। ওই দিন তিনি বিলবোর্ড ব্যবসায়ীদের ৩১ মে মধ্যে অবৈধ বিলবোর্ড সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেন। ২৫ মে সিটি কর্পোরেশনের রাজস্ব ও ভূমি শাখা কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে ম্যাজিস্ট্রেট নাজিয়া শিরিনকে অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদের নির্দেশ দেন মেয়র। তার নির্দেশে কর্পোরেশনের দেয়া সময়সীমা পার হওয়ার পর গত সোমবার থেকে অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেন নাজিয়া শিরিন। ওই দিন অভিযান চালিয়ে ৪টি বড় বিলবোর্ডসহ মোট ৯টি বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হয়। পরে শব-ই-বরাত ও সরকারী ছুটির জন্য মঙ্গলবার ও বুধবার অভিযান বন্ধ থাকে। এরপর গত বৃহস্পতিবার পুনরায় অভিযান শুরু হয়। ওই দিন আরও ৬টি বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়। পরে শুক্রবার ও শনিবার নিয়মিত বন্ধের কারণে অভিযান পরিচালনা করা যায়নি। রবিবার পুনরায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এদিন সানমার ওশানসিটি থেকে নগরীর ষোলশহর দুই নম্বর গেট এলাকা পর্যন্ত মোট ৯টি বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হয়।

২০১৩ সালের জুন পর্যন্ত ২১৯টি বিজ্ঞাপনী সংস্থাকে ছয় হাজার ১৭০টি বিলবোর্ড বা সাইনবোর্ডের অনুমোদন দেয় কর্পোরেশন। এর মধ্যে তিন হাজার ৯৬৪টি কর্পোরেশনের নিজস্ব জায়গায় এবং বাকিগুলো রেলওয়ে ও বন্দরসহ বিভিন্ন সরকারি সংস্থার জায়গায় স্থাপন করার অনুমতি প্রদান করা হয়। ২০১৩ সালের জুন থেকে নতুন বিলবোর্ড অনুমোদন বন্ধ রয়েছে। ওই সময় থেকে পুরনো বিলবোর্ডের নবায়নও বন্ধ রাখা হয়েছে। ফলে নিয়ম অনুযায়ী নগরীতে বর্তমানে কোন বৈধ বিলবোর্ড নেই।

প্রকাশিত : ৮ জুন ২০১৫

০৮/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: