কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কালীগঞ্জে চাচার হাতে ভাতিজা খুন

প্রকাশিত : ৬ জুন ২০১৫, ০৪:০৫ পি. এম.

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর ॥ গাজীপুরের কালীগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে শনিবার চাচার হাতে ভাতিজা খুন হয়েছে। এ সময় স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে নিহতের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী গুরুতর আহত হয়েছে। নিহতের নাম জিল্লুর রহমান (৩২)। সে কালীগঞ্জ উপজেলার নাগরী ইউনিয়নের বেলুন গ্রামের বকুল মিয়ার ছেলে। ঘটনায় পুলিশ নিহতের চাচী সবিনা বেগমকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে।

কালীগঞ্জ থানার এসআই সফিকুল ইসলাম ও এলাকাবাসী জানায়, কালীগঞ্জ উপজেলার বেলুন গ্রামের বকুল মিয়ার সঙ্গে তার ভাই আনিসুর রহমান নাজুকের মধ্যে পৈত্রিক জমি জমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। শনিবার সকালে বকুল মিয়ার দুবাই ফেরৎ ছেলে জিল্লুর রহমান বাড়ীর পার্শ্বের বাঁশ বাগান বাঁশ কাটতে যায়। এ সময় তার চাচা আনিসুর রহমান নাজুক (৫২) ও তার স্ত্রী সবিনা বেগম (৪৫) এবং ছেলে উজ্জলকে (২৮) সঙ্গে নিয়ে জিল্লুরকে বাধা দিলে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে আনিসুর রহমান ও তার ছেলে উজ্জল লোহার রড ও লাঠিসোটা দিয়ে জিল্লুরকে এলোপাতাড়ি মারতে থাকে। জিল্লুরের ডাকচিৎকারে স্বামীকে বাঁচাতে তার ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী মোর্শেদা (২৮) ছুটে আসলে তাকেও মারধোর করা হয়। এতে ঘটনাস্থলেই জিল্লুর নিহত হয় এবং তার স্ত্রী গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা আহত মোর্শেদাকে উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। খবর পেয়ে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত নিহতের চাচী সবিনা বেগমকে (৪৫) আটক করে। দুসন্তানের জনক জিল্লুর প্রায় দুসপ্তাহ আগে দুবাই থেকে ছুটিতে দেশে এসেছিলেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট সিরাজ মোড়ল জানান, ইতোপূর্বে গ্রাম্য সালিশের মাধ্যমে বকুল মিয়া ও তার ভাই আনিসুর রহমানের মাঝে পৈত্রিক সম্পত্তি বন্টন করে দেয়া হয়েছে।

প্রকাশিত : ৬ জুন ২০১৫, ০৪:০৫ পি. এম.

০৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: