কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মোবাইলে কথা বলতে বলতে ট্রেনের ধাক্কায় যুবক নিহত

প্রকাশিত : ৫ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় এক স্কুলছাত্রীসহ দুজন আত্মহত্যা করেছে। কুড়িল বিশ্বরোড এলাকায় মোবাইলে কথা বলতে বলতে রেললাইন পাশ দিয়ে হেঁটে যাবার সময় ট্রেনের ধাক্কায় এক যুবক নিহত হয়েছে। ধানমণ্ডিতে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় অপর এক বাসের হেলপারের মৃত্যু হয়েছে। বনানীর কড়াইল বস্তিতে শিশু ধর্ষণের ঘটনায় এক নারীসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ছয়টি সোনার বারসহ এক যাত্রীকে আটক করা হয়েছে। জব্দকৃত সোনার আনুমানিক মূল্য ৩৪ লাখ টাকা। বৃহস্পতিবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর চকবাজার চাঁদনীঘাট এলাকায় মোঃ আরিফ (২৬) নামে এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। নিহতের বাবার নাম মাহবুব আলম। চকবাজার থানাধীন চাঁদনীঘাট এলাকার ১৫ নম্বর বাড়িতে আরিফের সপরিবারে থাকত। নিহতের আত্মীয় নাজিম জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ওই বাড়িতে আরিফ গলায় ফাঁস আত্মহত্যার চেষ্টা করে। টের পেয়ে পরে ঘরের দরজা ভেঙে আরিফকে উদ্ধার করে বিকেল ৫টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনা হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে সূত্রাপুর থানাধীন মালেকাটোলা এলাকার ৩৬ নম্বর বাড়ির ভাড়াটিয়া মরিয়ম আক্তার রাত্রী (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। নিহতের বাবার নাম মোঃ জহিরুল হক খোকন। নিহতের বড়বোন বিলকিস জানান, রাত্রী স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী ছিল। বুধবার গভীর রাতে রাত্রী বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। টের পেয়ে তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তবে আত্মহত্যার কারণ সম্পর্কে তিনি কিছু জানাতে পারেননি।

ট্রেনের ধাক্কায় এক যুবকের মৃত্যু ॥ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোডে রেললাইনের পাশ দিয়ে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে হেঁটে যাচ্ছিলেন অজ্ঞাত (২৫) এক যুবক। এ সময় দ্রুতগামী একটি ট্রেন তাকে ধাক্কা দেয়। এতে ওই যুবক প্রায় ৩০ থেকে ৪০ গজ দূরে গিয়ে আঁচড়ে পড়ে। ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে রেলওয়ে পুলিশ সন্ধ্যার দিকে তার লাশ উদ্ধার করে। কমলাপুর রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ জানান, ঘটনাস্থল থেকে ওই যুবকের লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী পুলিশ সদস্য আনোয়ার হোসেন জানান, ওই যুবক মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে রেললাইনের পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। এমন সময় দ্রুতগতির একটি ট্রেন তাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

বাসের ধাক্কায় অপর বাসের হেলপারের মৃত্যু ॥ রাজধানীর ধানম-িতে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় অপর এক বাসের হেলপারের মৃত্যু হয়েছে। তবে নিহতের পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ। ঘাতক বাস ও চালককে আটক করতে পারেনি পুলিশ। ধানম-ি থানার উপপরিদর্শক সেলিম রেজা জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে ধানম-ি ৭ নম্বরের মিরপুর রোডে গাবতলী রুটের একটি বাস গাবতলী রুটের ৭ নম্বর একটি বাস ও অন্য আরেকটি বাস পাশাপাশি চলছিল। এ সময় অপর বাসটি ৭ নম্বর বাসকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই ওই বাসের হেলপারের মৃত্যু হয়। তিনি জানান, নিহতের লাশ থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে। তারপর তার নাম জানা যাবে।

ধর্ষকসহ দুজন গ্রেফতার ॥ বুধবার গভীর রাতে রাজধানীর বনানীর কড়াইল বস্তিতে এক শিশু (১২) ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক বাবু (৩৫) ও তার সহযোগিতাকারী নারীকে (২১) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই বস্তির পাশের একটি এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ভূঁইয়া মাহবুব হাসান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, গ্রেফতারকৃত বাবুর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে। আর গ্রেফতারকৃত নারী (২১) ধর্ষণে সহযোগিতা করেছে বলে মামলায় উল্লেখ রয়েছে। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় সুমন নামে অপর এক আসামি এখনও পলাতক রয়েছে। উল্লেখ্য, ২৬ মে কড়াইল বস্তিতে গ্রেফতারকৃত নারীর সহায়তায় বাবু ও সুমন এক শিশুটিকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ৩০ মে তিনজনকে আসামি করে বনানী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

সোনার বারসহ যাত্রী গ্রেফতার ॥ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ছয়টি সোনার বারসহ মুহাম্মদ ইদ্রিস (৩৯) নামে এক যাত্রীকে আটক করেছে বিমানবন্দর শুল্ক বিভাগ। জব্দকৃত সোনার অনুমালিক মূল্য ৩৪ লাখ টাকা। আটককৃতের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামে। বিমানবন্দর শুল্ক বিভাগ জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে যাত্রী মুহাম্মদ ইদ্রিস ওমান থেকে ঢাকায় আসেন। বিমান থেকে নামার পর তিনি সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরা করছিলেন। পরে শুল্ক বিভাগ তাকে তল্লাশি করে ছয়টি সোনার বার জব্দ করে। যার ওজন ৬৯৬ গ্রাম। পরে যাত্রী ইদ্রিসকে আটক করা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে বলে শুল্ক বিভাগ জানান।

প্রকাশিত : ৫ জুন ২০১৫

০৫/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: