আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পাঠ্য বই পড়ার বিকল্প নেই

প্রকাশিত : ২২ জানুয়ারী ২০১৫
  • বাংলা

সুপ্রিয় এসএসসি শিক্ষার্থী বন্ধুরা, পরীক্ষা খুব নিকটে। তাই তোমরা বাংলা বিষয়ে ভাল ফলাফল নিয়ে কিছুটা দ্বিধা ও সংশয়ে রয়েছ। কেননা প্রতিযোগিতাময় বিশ্বে এ+ পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রধান প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে বাংলা। তাই প্রশ্নের উত্তর প্রদানের সময় কিছু নিয়ম কানুন অণুসরনের পাশাপাশি কঠিন পরিশ্রম, দৃঢ় প্রত্যায় ও সুকৌশল এনে দিতে পারে কাঙ্খিত সাফল্য।

পরীক্ষার প্রস্তৃতি প্রায় শেষ। এই পর্যায়ে আমি প্রশ্নের কাঠামো অনুসারে উত্তর প্রদানের কিছু কৌশল নিয়ে আলোচনা করবো।

প্রশ্নের কাঠামো বুঝে উত্তর দিতে হবে:

সৃজনশীল পদ্ধতিতে তোমার পাঠ্যসূচির কোন গল্প/ কবিতা. উপন্যাসের এর আলোকে একটি মৌলিক উদ্দীপক এবং সংশিষ্ট চারটি প্রশ্ন থাকে।

ক বিভাগে (গদ্য) তিনটি, খ বিভাগে (কবিতা) তিনটি এবং গ বিভাগে (উপন্যাস ও নাটক) তিনটি করে মোট নয়টি প্রশ্ন থাকবে, তোমাকে উত্তর করতে হবে মোট ছয়টি প্রশ্নের। তবে প্রতি বিভাগ থেকে ১টি করে প্রশ্নের উত্তর করতেই হবে।

লক্ষ্য রাখতে হবে সময়ের প্রতি। সঠিক ও সম্পূর্ণরূপে প্রশ্নের উত্তর করতে হলে সময়ে প্রতি লক্ষ্য রাখতে হবে। তাই পরীক্ষার্থীদের উচিত প্রশ্ন হাতে পাওয়ার পর সময় বন্টন করে নেওয়া, এতে করে প্রত্যেকটি প্রশ্নের সঠিক ও যথাযথ উত্তর প্রদান সম্ভব। মনে রাখবে ভাল কিন্তু অসম্পূর্ণ উত্তর পত্র ভাল নম্বর পেতে সাহায্য করে না।

প্রশ্নের নম্বর লিখতে হবে স্পষ্টভাবে: সৃজনশীল পদ্ধতি যেহেতু চারটি অংশ (জ্ঞান, অনুধাবন, প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতা) মিলে একটি পূর্ণাঙ্গ প্রশ্ন, তাই প্রত্যেক অংশের উত্তর লেখার সময় প্রতিবার নম্বরটা এভাবে লিখতে হবে।

৩. প্রশ্নের উত্তর ক

৩. প্রশ্নের উত্তর খ

উত্তর:

ধারাবাহিক ভাবে লেখা শ্রেয়:

যে কোনো একটি প্রশ্নের উত্তর লেখা শুরু করলে তার চারটি অংশের উত্তরই ধারাবাহিক ভাবে করা উচিৎ। না হলে উত্তর পত্রের শৃঙ্খলা নষ্ট হয়।

কোন উত্তর যদি কেউ না পারে সেক্ষেত্রে সেটা বাদ দিয়ে তার পরের অংশের উত্তর কর। ফাঁকা রাখা উচিৎ নয়।

জ্ঞানমূলক প্রশ্নের উত্তর কৌশল:

এর উত্তর একটি শব্দে বা একটি বাক্যে ও দেয়া যাবে। তবে একটি পূর্ণাঙ্গ বাক্যে দিলে ভাল হয়। এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে এই প্রশ্নের উত্তরে বানান ভুল করলে সম্পূর্ণ নম্বর কাটা যাবে।

অনুধাবনমূলক প্রশ্নের উত্তর কৌশল: এই স্তরের উত্তর এক প্যারাতে ও লেখা যায়, দুই প্যারাতে লেখা যায়। তবে কবি সাহিত্যিককে প্রাসঙ্গিক বিশেষণে অলঙ্ককৃত করার দরকার নেই।

প্রয়োগমূলক প্রশ্নের উত্তর কৌশল:

প্রয়োগমূলক প্রশ্নের উত্তর উদ্দীপক কিংবা উদ্দীপক সংশ্লিষ্ট পাঠ্য বিষয়ে সরাসরি না থাকলেও বক্তব্য বিষয়টির সঙ্গে তার সংশ্লিষ্টতা থাকবে। শিক্ষার্থীরা মূল বক্তব্য ঠিক রেখে নিজের মত উত্তর দিতে পারবে।

উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্নের উত্তর কৌশল:

উচ্চতর দক্ষতা মানেই একটা সিদ্ধান্তের ব্যাপার। প্রশ্নেই সাধারণত একটা অনুসিদ্ধান্ত দেয়া থাকবে। যদি সিদ্ধান্তটি সঠিক হয় তাহলে সেটা। ব্যাখ্যার বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্ত দিতে হবে। সিদ্ধান্তটি ভুল হলেও ব্যাখ্যা দিয়ে বুঝিয়ে দিতে হবে।

পরিশেষে শিক্ষার্থীদের প্রতি পরামর্শ মূল বাংলা বই ভাল করে বারবার পড়তে হবে। কারণ উদ্দীপক মূলত মূল বই এর বিষয় অবলম্বনেই হবে। তাই ভাল ফল করতে চাইলে পাঠ্য বই পড়ার বিকল্প নেই।

গৌরাঙ্গ কুমার মন্ডল

সহকারী শিক্ষক (বাংলা)

বসুন্ধরা শাখা (প্রভাতী)

ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ

প্রকাশিত : ২২ জানুয়ারী ২০১৫

২২/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: