আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ক্যাম্পাস সংবাদ

প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারী ২০১৫

কারিগরি কোর্সে ভর্তি

প্রতিযোগিতামূলক চাকরির বাজারে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই। বর্তমানে দেশে সরকারী ও বেসরকারী বিভিন্ন কারিগরি ইনস্টিটিউট রয়েছে। বেসরকারী ইনস্টিটিউটগুলোর মধ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল প্রফেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (দীপ্তি) অন্যতম। এ প্রতিষ্ঠান কারিগরি শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক অনুমোদিত। আসুন জেনে নেই বিভিন্ন কারিগরি কোর্সের বিস্তারিত।

কোর্সগুলি হলো : কম্পিউটার অফিস এপ্লিকেশন, গ্রাফিক্স ডিজাইন এ্যান্ড মাল্টিমিডিয়া, হার্ডওয়ার এ্যান্ড নেটওয়ার্কিং, অটোক্যাড, ইন্টেরিয়র ডিজাইন, মোবাইল ফোন সার্ভিসিং, কম্পিউটার প্রোগ্রামিং, ডাটাবেজ প্রোগ্রামিং ও এ্যাপারেল মার্চেন্ডাইজিং। এই কোর্সগুলোর সিলেবাস প্রণয়ন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ ও সার্টিফিকেট প্রদান প্রভৃতি বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত। সার্টিফাইড প্রফেশনাল প্রশিক্ষকদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে কোর্সগুলো পরিচালিত হয়ে থাকে। এছাড়াও রয়েছে নিজস্ব জব পোর্টালের মাধ্যমে চাকরির সহায়তা ও ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা। সর্বক্ষণিক জেনারেটর, পাঠাগার, অত্যাধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন আন্তর্জাতিক মানের কম্পিউটার ল্যাব সমৃদ্ধ সুবিশাল ক্যাম্পাস যা ছাত্র/ছাত্রীদের শিক্ষার পরিবেশকে করে নিশ্চিত ও যুগোপযোগী। কর্মব্যস্তদের জন্য রয়েছে সান্ধ্যকালীন ক্লাসের ব্যাবস্থা। দীপ্তি পরিচালিত বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কোর্সে দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্র/ছাত্রীদের ড্যাফোডিল ফাউন্ডেশন বৃত্তি প্রদান করে থাকে। ন্যূনতম এসএসসি পাস যে কোন বয়সের যে কেউ এই কোর্সগুলোতে ভর্তি হতে পারবে। প্রফেশনাল প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে দীপ্তি বিগত ১০ বছরে শত শত বেকার যুবক/যুবমহিলাকে কর্মোপযোগী করে গড়ে তুলেছে যাদের অনেকেই এখন স্ব-স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত। অগ্রহী প্রার্থীদের নির্ধারিত ফর্মে আবেদন করতে হবে।

যোগাযোগ : ৬৪/৬, লেকসার্কাস, পান্থপথ (রাসেল স্কোয়ার), কলাবাগান, ঢাকা। ফোন : ০১৭১৩-৪৯৩২৩৩, ০২-৯১৩৪৬৯৫। ওয়েব : ডবন: িি.িফরঢ়ঃর.পড়স.নফ

বিইউপিতে নতুন শিক্ষাবর্ষ উদ্বোধন

সম্প্রতি মিরপুর সেনানিবাসস্থ বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস্ (বিইউপি) এ মাস্টার অব পিস্ এ্যান্ড হিউম্যান রাইট্স-২০১৫ শিক্ষাবর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বিইউপি সেন্ট্রাল কন্ফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি অব সিকিউরিটি এ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজের ডিন কমোডর জোবায়ের আহমেদ (ই), এনডিসি, বিএন ছিলেন প্রধান অতিথি। অনুষ্ঠানে মাস্টার অব পিস্ এ্যান্ড হিউম্যান রাইট্সের বিভাগীয় প্রধান লে. কর্নেল মোঃ আক্তারুজ্জামান স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন। এছাড়া প্রোগ্রাম সমন্বয়ক প্রভাষক আব্দুল্লাহ শাহ নেওয়াজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংগঠনিক কাঠামো এবং কার্যক্রম সম্পর্কে সম্যক ধারণা প্রদান করেন। প্রধান অতিথি বলেন, বিইউপি মনে করে একবিংশ শতাব্দীতে সঠিক সময়োপযোগী এবং উদ্ভাবনীমূলক শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ দরকার হবে। বিষয়গুলো মাথায় রেখে বিইউপিতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে মানসিক উদ্দীপনা সৃষ্টি করার প্রয়াস রয়েছে, যা শিক্ষার্থীদের নিয়মিত পাঠ্যক্রম প্রশিক্ষণ এবং গবেষণায় প্রভাব রাখবে। বিইউপি যোগ্য নেতৃত্ব সৃষ্টিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বিইউপি প্রতিষ্ঠার ইতিহাস স্মরণ করে তিনি বলেন, ‘শিক্ষার মাধ্যমে উৎকর্ষ’ এই সেøাগানকে সামনে রেখে দেশের ২৯তম সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ২০০৮ সালের ৫ জুন তারিখে বিইউপি যাত্রা শুরু করে। প্রয়োজনভিত্তিক ও সময়োপযোগী শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সামরিক-বেসামরিক ক্ষেত্রে আরও পেশাদারিত্ব সৃষ্টি করা বিইউপির লক্ষ্য। তিনি বলেন, একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় উন্নত মানবিক বোধসম্পন্ন, কারিগরি জ্ঞানের অধিকারী, উদার ও সৃষ্টিশীল নাগরিকদের, যারা দেশের ও মানব সভ্যতার উৎকর্ষে নেতৃত্বদানে প্রস্তুত, সেই সকল নাগরিকের উচ্চশিক্ষার সুযোগ প্রদান করা বিইউপির ব্রত। এছাড়া বিইউপির বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও ছাত্র-ছাত্রী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

ক্যাম্পাস প্রতিবেদক

প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারী ২০১৫

১৮/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: