রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সড়ক দুর্ঘটনায় গোয়েন্দাসহ দুজন নিহত ॥ লাশ নিয়ে ভূত আতঙ্ক

প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীতে সড়ক দূর্ঘটনায় জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার এক কর্মকর্তাসহ দু’জন নিহত হয়েছেন। এদিকে বাড্ডায় এক যুবককের লাশ নিয়ে এলাকায় ভূতের আতঙ্ক দেখা দিয়েছে! অন্যদিকে কামরাঙ্গিরচর এলাকায় অত্যাধুনিক বিদেশী পিস্তলসহ মহিউদ্দিন নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। স্থানীয় সূত্র জানায়, শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাসের ধাক্কায় আব্দুস সাত্তার (৫৫) নামে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার এক সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। তিনি সংস্থার জুনিয়র ফিল্ড অফিসার ছিলেন। তিনি গুলশান জোনে কর্মরত ছিলেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি ঢাকার দোহার এলাকায়।

শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রবিউল ইসলাম জানান, শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তা পার হচ্ছিলেন আব্দুস সাত্তার। এ সময় সায়েদাবাদ-গাবতলী রুটের ৮ নম্বর পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা মেট্রো-জ-১৪-২৫৬২) তাঁকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে আব্দুস সাত্তারকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেয়া হলে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এসআই রবিউল জানান, দুর্ঘটনার পর চালক পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে আশপাশের লোকজন তাকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করে। পরে ঘাতক বাসটিকেও আটক করা হয়। এদিকে একইদিন সকালে মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধ লোহার গেটের মাথায় ৭ নম্বর রোডের সামনের রাস্তায় লেগুনা গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। এতে আব্দুল রশিদ (৪৫) নামে এক যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। নিহতের বাবার নাম সাদেক আলী। গ্রামের বাড়ি ভোলা সদর উপজেলার গঙ্গাগাতি গ্রামে। তিনি তার পরিবার নিয়ে নবীনগর হাউজিংয়ের ৯ নম্বর রোডে থাকতেন।

বাড্ডায় যুবকের লাশ নিয়ে ভূতের আতঙ্ক ॥ শুক্রবার দুপুরে বাড্ডা মেরাইদ এলাকায় শিপন (২৮) নামে এক যুবক বিষপানে আত্মহত্যা করে। এ সময় নিহতের স্বজনরা লাশ দাফন করতে গেলে স্থানীয়রা সেখানকার কবরস্থানে দাফন করতে দেয়নি। নিহতের স্বজনদের বরাত দিয়ে বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল জলিল জনকণ্ঠকে জানান, শিপন আত্মহত্যা করেছে। আত্মহত্যার লাশ এলাকাবাসীরা মেরাইদ কবরস্থানে দাফন করতে দেয়নি। ওই রাতে শিপনের লাশ বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বিশাল বালুর মাঠে চাপা দিয়ে চলে আসে তার স্বজনরা। এই সংবাদ গ্রামবাসীর মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে বালুচাপা লাশটি সরিয়ে নেয়ার জন্য শিপনের পরিবারকে চাপ দেয়। এটি টের পেয়ে শিপনের স্বজনরা সেখান থেকে সটকে পড়ে। পরের দিন শনিবার বালু চাপা লাশ নিয়ে বসুন্ধরা বালুর মাঠ এলাকায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বালুচাপা লাশটি এক সময় কংকাল রূপ ধারণ করে ভূতের রূপ নিবে। পরে তা গ্রামে বিচরণ করে সর্বনাশ ডেকে আনবে। গ্রামের মধ্যে অশান্তি সৃষ্টি হবে। শিশু, নারী-পুরুষের মধ্যে ভূতের আছড় পড়বে।

বিদেশী অস্ত্রসহ একজন গ্রেফতার ॥ শনিবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে কামরাঙ্গিরচর এলাকা থেকে অত্যাধুনিক ৭.৬২ এমএম পিস্তলসহ মহিউদ্দিন (৩২) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারী ২০১৫

১৮/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: