কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

২৬ স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও কমিটি প্রধানকে হাইকোর্টে তলব

প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে ফরম পূরণ বাবদ সরকারী নির্ধারিত ফি’র চেয়ে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের বিষয়ে আদালতের দেয়া আদেশ না মানায় রাজধানীর ২৬টি স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতিকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ৬ জানুয়ারি তাদের সশরীরে আদালতে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে আদেশে। রবিবার এক আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি আবু তাহের মোঃ সাইফুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

২৬টি প্রতিষ্ঠান হলোÑ ভিকারুন নিসা নূন স্কুল এ্যান্ড কলেজ, মিরপুরের মনিপুর উচ্চ বিদ্যালয়, আলীমউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়, আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, বাংলা স্কুল এ্যান্ড কলেজ, শহীদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় ও জান্নাত একাডেমি, সিদ্ধেশ্বরী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, মতিঝিলের আইডিয়াল স্কুল এ্যান্ড কলেজ, ফায়দাবাদের দ্য চাইন্ড ল্যাব. স্কুল, উত্তরার মাইলস্টোন কলেজ, ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ, ন্যাশনাল আইডিয়াল কলেজ, রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, আজমপুরের হাজী মিল্লাত আলী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, লালবাগের রায়হান কলেজ, উদয়ন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আনন্দময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আহমেদ বাওয়ানী একাডেমি, ওয়েস্ট এ্যান্ড হাইস্কুল, আর্মানিটোলা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, ক্যামব্রিয়ান স্কুল এ্যান্ড কলেজ, নিউমার্কেটের গভর্নমেন্ট ল্যাব. হাইস্কুল, ওয়াইডব্লি­উসিএ স্কুল, হলিক্রস উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, মোহাম্মদপুর উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

এর আগে গত ১০ নবেম্বর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে ফরম পূরণ বাবদ অতিরিক্ত ফি আদায় বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে এই অতিরিক্ত ফি আদায় করাকে কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেছিলেন আদালত। শিক্ষা সচিব, সকল শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও ২০টি স্কুলের প্রধান শিক্ষক এবং ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যানকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছিল। পাশাপাশি বাড়তি ফি আদায় বন্ধে কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে তার অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করতে বোর্ড চেয়ারম্যানদের বলা হয়েছে।

দৈনিক যুগান্তরে ‘আটগুণ বাড়তি ফি আদায়’ শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন আমলে নিয়ে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আদালত এ আদেশ দিয়েছিলেন। এছাড়া যুগান্তরের সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদককে তার প্রতিদেন আদালতে দাখিল করতে বলা হয়। যুগান্তরের পক্ষে সুপ্রীমকোর্টের আইনজীবী এহসানুর রহমান প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করলে আদালত এ আদেশ দিয়েছেন বলে তিনি জানান।

প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৪

১৫/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: