আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আন্দোলনের নামে বিশৃঙ্খলা করলে কঠোর ব্যবস্থা ॥ তোফায়েল

প্রকাশিত : ১১ ডিসেম্বর ২০১৪

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বিএনপি নেতাদের আন্দোলনের হুমকির জবাবে বলেছেন, আন্দোলনের নামে যদি কোন ধরনের নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করা হয় তাহলে তাদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে। মনে রাখবেন এটা ২০১৩ সাল নয়, ২০১৪ সাল। যদি কোনভাবে বিশৃঙ্খল অবস্থার সৃষ্টি করা হয় তাহলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

বুধবার বিকেলে ঢাকা জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহববুর রহমান ব্যাপারীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মোহাম্মদ আবু কাওছার, সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ এমপি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিএনপির সংলাপের আহ্বান প্রসঙ্গে তোফায়েল আহমেদ বলেন, এখন বিএনপি এতিমের মতো সংলাপের জন্য বারবার সরকারের কাছে আহ্বান জানাচ্ছে। কিন্তু যে দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টেলিফোন করে সংলাপের আহ্বান জানিয়েছিলেন বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া সেদিন তা প্রত্যাখ্যান করেছিলেন। এখন সংলাপ হবে অনেক পরে। আপনারা নির্বাচন না করলে আমরা কি করব?

বিএনপির মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রবীণ এই নেতা খালেদা জিয়ার উদ্দেশে বলেন, আপনি নির্বাচনের ট্রেন মিস করেছেন। এখন পরবর্তী নির্বাচনী ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করুন। ২০১৯ সালে নির্বাচন হবে। তখন আপনাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচনে অংশ নিতে হবে।

এ সময়ে তোফায়েল আহমেদ বেগম জিয়াসহ বিএনপি নেতাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক জীবন পাঠ করার আহ্বান জানান। ‘সরকার তৈরি পোশাক শিল্পকে ধ্বংস করেছে’ বেগম জিয়ার এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়া কী ভাবে এই কথা বললেন? তিনি তো প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তিনি কেন না বুঝে কথা বলবেন?

বিএনপির জানুয়ারিতে সরকার পতনের আন্দোলনের হুমকির জবাবে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, আপনাদের এমন আরও চারটি জানুয়ারি পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। তারপর ২০১৯ সাল আসবে। তখন এদেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আপনারা তার জন্য প্রস্তুতি নিন।

ষড়যন্ত্র করা খালেদা জিয়ার খাসলত- কৃষিমন্ত্রী মতিয়া ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার উদ্দেশে বলেছেন- আওয়ামী লীগ, শেখ হাসিনা বা এদেশের গণতান্ত্রিক প্রগতিশীল শক্তিকে যদি পছন্দ না করেন, ভাল না লাগে- তবে চুপ থাকুন। দেশ নিয়ে কথা বলবেন না, ষড়যন্ত্র করবেন না। তবে ষড়যন্ত্র করা আপনাদের খাসলত হয়ে গেছে। হুর মাটি চুর করা, চুর মাটি হুর করা খাসলত হয়ে গেছে। তাই চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল (এমএল) আয়োজিত ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বিজয় দিবসের তাৎপর্য’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখতে গিয়ে মতিয়া চৌধুরী আরও বলেন, ‘দিল হ্যায় পাকিস্তানী’ নিয়ে দেশকে এগিয়ে নেয়া যায় না। আর যিনি মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানীদের মেহমান ছিলেন তিনিও দেশের উন্নতি করতে পারেন না, এটাও প্রমাণিত।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর স্বাধীনতার চেতনাকে ধ্বংস করা হয়েছিল। পরবর্তীতে দীর্ঘদিন অতিবাহিত হয়েছে। চারদলীয় জোট সরকারের সময় রাজাকারদের হাতে পতাকা তুলে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু যারা ’৭১ এ দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে, তারা যেন রাষ্ট্রক্ষমতায় আর না আসতে পারে সেজন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া বলেন, ২০০১ সালে রাজাকারের হাতে পতাকা তুলে দিয়ে খালেদা জিয়া তাদের রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত করেছিল। রাজকারদের রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত করতে খালেদা জিয়া সহায়ক হিসেবে কাজ করেছেন। কিন্তু এখন আবার গণতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে তিনি আন্দোলন করতে চাচ্ছেন। আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ১১ ডিসেম্বর ২০১৪

১১/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: