কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাবা আর মেয়ের গল্প নিয়ে ‘পিকু’

প্রকাশিত : ৭ মে ২০১৫
  • নিবিড় লতিফুল বারী

ভেবে দেখুন, এক ছবিতে বলিউডের বিগ বি অমিতাভ বচ্চন ও ‘মাই চয়েস’খ্যাত দীপিকা পাড়–কোন এবং গুণী অভিনেতা ইরফান খান। সে ছবির মিউজিক কম্পোজিশনের দায়িত্বে ভারতীয় বাংলা ছবির হার্টথ্রব অনুপম রায় আর এ সবকিছু যদি প্রতিমা গড়ার যতœ নিয়ে পরিচালনা করেন ‘ভিকি ডোনার’ ও ‘মাদ্রাজ ক্যাফে’ সিনেমার পরিচালক সুজিত সরকার যিনি কিনা বাঙালী ঘরে জন্মে রাজত্ব করতে এসেছেনÑ বলিউডে তাহলে সে ছবি নিয়ে তোলপাড় হবে না কেন? হ্যাঁ, এতক্ষণ ‘পিকু’র কথা হচ্ছিল। সমগ্র ভারতে যা মুক্তি পেতে যাচ্ছে আগামী ৮ মে। কেন দেখবেন পিকু? কলকাতার প্রেক্ষাপটে নির্মিত বাবা মেয়ের খুনসুটি ও পারস্পরিক বোঝাপড়া ভিত্তিক ফ্যামিলি কমেডি ড্রামা যা দর্শককে আটকে রাখবে সিনেমার শেষ পর্যন্ত। যেখানে পিকু নাম ভূমিকায় অভিনয় করছে দীপিকা। আর রয়েছে এ ছবির অসাধারণ সব গান যা কম্পোজের দায়িত্বে ছিলেন অনুপম রায়। উল্লেখ্য এটিই অনুপমের হিন্দি ফিল্মে মিউজিক ডিরেক্টর হিসেবে অভিষেক। এ ছবি নিয়ে দীপিকার প্রত্যাশা অনেক। তার মতে, যদিও ছবিটি নির্মিত হয়েছে ভারতের দর্শকদের জন্য, তবে কোয়ালিটির দিক থেকে স্পর্শ করেছে আন্তর্জাতিক মানদ । পিকু ছবিতে প্রতি মুহূর্তে রয়েছে নিত্যনতুন উপলব্ধির বিষয় যা কিনা, প্রকাশিত হয়েছে দীপিকা ও অমিতাভ বচ্চনের অভিনয়ের মাধ্যমে। এমনকি দীপিকা জানাচ্ছেন বাস্তবে তার বাবা সিনেমার বাবার মতো নন, আর যদি তা হতো তাহলে সেটা হতো বেশ চাপের পরস্থিতি। এমনটা বলার কারণ হয়ত দর্শক পর্দায় ছবি দেখলেই বুঝতে পারবেন।

ইরফান খান কোন এক ছবিতে অন্তত ৫ মিনিটের জন্য আছেন কিন্তু দর্শকের পয়সা উসুল হয়নি এমনটা হয়েছে খুব কম। সেখানে ‘পিকু’-তে ইরফান রয়েছে পুরো ছবি জুড়ে যা দর্শকদের কাছে বাড়তি আকর্ষণ। এমনকি এমন সহশিল্পী হিসেবে পেয়ে খুশি ছিলেন স্বয়ং দীপিকাই। শোনা যাক তার মুখেই, ‘অভিনয়টা সহজ হয়ে যায় যখন আপনার সঙ্গে স্ক্রিনে ইরফান খানের মতো একজন থাকবে। সে হিসেবে আমি খুশি।’ আর ইরফান খান কি বলছেন? ‘অমিতজির সঙ্গে এর আগে কাজ করতে করতেও করা হয়নি। সুতরাং এটা আমার জন্য শেখার একটা বড় সুযোগ ছিল। আর আমি সব সময় চেয়েছি রোমান্টিক ছবিতে অভিনয় করতে, সঙ্গে কমেডিও থাকবে। ধন্যবাদ সুজিতকে আমাকে কাস্ট করায়।’

কেন দীপিকাকে কাস্ট করলেন? পরিচালক সুজিত বলছেন, ‘আমাদের এমন একজন অভিনেত্রী দরকার ছিল যে অমিতাভ বচ্চনের নিজের মেয়ে শ্বেতা বচ্চনের সঙ্গে মিলে যায়। আমরা দীপিকা ছাড়া আর কারও মাঝে এটা পাইনি।’ তবে বাবা-মেয়ের জুটি যে মানিয়েছে বেশ ভাল এটা ট্রেলার দেখেই বোঝা যাচ্ছে। দর্শক এক সময় ভুলেই যাবে এটা সিনেমা বরং সবাই নিজের জীবন দিয়ে সিনেমার গল্প মেলাবে এমন প্রত্যাশা ব্যক্ত করলেন সুজিত।

আর বিগ বি? স্ত্রী জয়া বচ্চন বাঙালী। সুতরাং বাংলাভাষীদের প্রতি রয়েছে আলাদা টান। আরেক বাঙালী পরিচালক সুজয় ঘোষের ‘কাহানি’ ছবিতে তো রীতিমতো রবীন্দ্র সঙ্গীত গেয়ে বসলেন। সুজিত এর ছবিতে কি সে জন্যই অভিনয় করা? অমিতাভের ব্যক্তিগত টুইটারে শূটিংয়ের ফাঁকে কলকাতা শহর সাইকেলে করে ঘুরে বেড়ানোর ছবি পোস্ট করা হয়েছে। অমিতাভের মতে এটি তার হোমকামিং ছবি, কারণ ক্যারিয়ারের শুরুতে বেশ ক’দিন তিনি কলকাতায় ছিলেন, এক সময় পাড়ি জমান বোম্বেতে। তো দেখা যাক দীপিকা, অমিতাভ ও ইরফান খানের জার্নি কেমন হয়।

প্রকাশিত : ৭ মে ২০১৫

০৭/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: