মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

উপকূলের ভূমি সুরক্ষায় স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের দাবি

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০১৫, ০১:১৭ এ. এম.
  • ঘূর্ণিঝড় ’৯১ স্মরণ ও উপকূলীয় ভূমি সুরক্ষা শীর্ষক সেমিনার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাস বিষয়ক এক সেমিনারে বক্তারা বলেছেন, প্রতিবছর উপকূলের বেড়িবাঁধ ভাঙ্গে। বাঁধ রক্ষণাবেক্ষণে সরকারের বিপুল পরিমাণ অর্থও খরচ হয়। অথচ বেড়িবাঁধের ঢালে ভূমিহীনদের পুনর্বাসন করলে তারা স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে সেই বাঁধ রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারে। ফলে জলোচ্ছ্বাস ও লবণাক্ত পানির অনুপ্রবেশ রোধ সম্ভব হবে। রাজনৈতিক সদিচ্ছার মাধ্যমে বৃহত্তর স্বার্থে এই সমন্বয় দরকার। উপকূলীয় এলাকার ভূমি সুরক্ষায় স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করার দাবি জানিয়ে ওই সেমিনারে ১৯৯১ সালের ২৯ এপ্রিল প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাসের ভয়ঙ্কর দুঃসহ স্মৃতি স্মরণ করা হয়।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘ঘূর্ণিঝড় ’৯১ স্মরণ ও উপকূলীয় ভূমি সুরক্ষা’ শীর্ষক এক সেমিনারে বক্তারা এসব দাবি জানান। ঘূর্ণিঝড় ৯১ স্মরণ উদযাপন কমিটির ব্যানারে ওই সেমিনারের আয়োজক সংগঠনগুলো হলো আইএসডিই, ইপসা, উদয়ন বাংলাদেশ, এমএমসি, এসডিএস, কোস্ট ট্রাস্ট, গ্রামীণ জনউন্নয়ন সংস্থা, ডাক দিয়ে যাই, ডোক্যাপ, দ্বীপ উন্নয়ন সংস্থা, নলসিটি মডেল সোসাইটি, পালস, পিরোজপুর গণউন্নয়ন সংস্থা, প্রাণ, প্রান্তজন, সংকল্প ট্রাস্ট, সংগ্রাম, সিডিপি, স্পিড ট্রাস্ট এবং হিউম্যানিটি ওয়াচ।

সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন বলেন, বেড়িবাঁধের ভেতরে যে খাল থাকে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তা অবহেলায় হাজামজা হয়ে যায়। ফলে বাঁধের ভেতর পাশে জলাবদ্ধতা তৈরি হয়।

কোস্ট ট্রাস্টের সৈয়দ আমিনুল হক বলেন, প্রতিবছর বেড়িবাঁধ মেরামতের নামে বিপুল টাকা খরচ না করে স্থায়ীভাবে ভৌগোলিক বাস্তবতা বিবেচনায় কার্যকর বেড়িবাঁধ নির্মাণ করতে হবে।

ডিজাস্টার ফোরামের সাধারণ সম্পাদক নইম গওহর ওয়ারা বলেন, উপকূলের ভূমি রক্ষার জন্য শুধু বেড়িবাঁধ নির্মাণ বা গাছ লাগানোর মতো বিচ্ছিন্ন উদ্যোগ যথেষ্ট নয়। এর জন্য একটি সমন্বিত জাতীয় উপকূল ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা দরকার।

ওই সেমিনারে শওকত আলী টুটুল মূল বক্তব্য উপস্থাপনকালে ভোলা ও কক্সবাজার জেলার গত ২ বছরের মানুষের ভোগান্তি ও দুর্দশার চিত্র এবং পাশাপাশি স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদী সুপারিশ তুলে ধরেন।

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০১৫, ০১:১৭ এ. এম.

৩০/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: