আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিএনপির সেনা মোতায়েন দাবি উদ্দেশ্যমূলক ॥ সুরঞ্জিত

প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৫, ১২:২২ এ. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ টানা তিন মাস ধরে নির্বিচারে বীভৎস কায়দায় মানুষ পুড়িয়ে হত্যার পর এখন জনগণের কাছে গিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার ভোট প্রার্থনার কঠোর সমালোচনা করেছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। তাঁরা বলেন, মানুষ পুড়িয়ে হত্যার দায়ে বিক্ষুব্ধ ও ক্ষতিগ্রস্ত জনগণ খালেদা জিয়াকে কালো পতাকা দেখাচ্ছে। নৃশংসভাবে মানুষ হত্যা করে এখন লজ্জাহীনভাবে জনগণের কাছে ভোট চাইছেন। ভোট চাওয়ার নৈতিক কোন অধিকার তাঁর নেই। এত মানুষ হত্যার দায় থেকে কখনই খালেদা জিয়া রেহাই পেতে পারে না।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, মানুষ পোড়ানোর দায়ে জনগণ খালেদা জিয়াকে কালো পতাকা দেখাচ্ছে। কারণ টানা তিন মাস ধরে অবরোধ-হরতালের নামে তারা যেভাবে মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছেন, তার দায় থেকে খালেদা জিয়া কোনভাবেই রেহাই পেতে পারেন না।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু একাডেমি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রবীণ এই পার্লামেন্টারিয়ান সিটি নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন প্রসঙ্গে বলেন, নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে, একটি পক্ষ থেকে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জোরদার করছে। কিন্তু প্রধান নির্বাচন কমিশনার হুকুম করলেই সেনাবাহিনী চলে আসবে, এটা সংবিধান সিদ্ধ নয়।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ থেকে কুমিল্লা পর্যন্ত ইতোপূর্বে অনুষ্ঠিত সিটি নির্বাচন কর্পোরেশন নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের কোন প্রয়োজন পড়েনি। পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও আনসার দিয়েই ওইসব সিটি নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এখন সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি ‘উদ্দেশ্যেমূলক’ ছাড়া আর কিছুই নয়।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফয়েজউদ্দিন মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাই কানু, হুমায়ুন কবির মিজি প্রমুখ।

খালেদা জিয়াকে পাড়া-মহল্লায় প্রতিরোধ- ড. হাছান ॥ ভোট চাইতে গেলে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম জিয়াকে পাড়া-মহল্লায় প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য নগরবাসীর কাছে আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, খালেদা জিয়া গত তিন মাস ধরে ক্ষমতার লোভে সাধারণ জনগণের ওপর পেট্রোলবোমা ছুড়ে মানুষ হত্যা করেছেন। তারপর আবার নির্লজ্জের মতো মানুষের কাছে ভোট চাওয়ার জন্য ছুটছেন। নির্বিচারে মানুষ পুড়িয়ে হত্যার পর খালেদা জিয়ার ভোট চাওয়ার নৈতিক অধিকর অছে কি-না, তা ভেবে দেখার জন্যও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সোমবার রাজধানীর তোপখানা রোডের শিশু কল্যাণ ভবনে স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় ড. হাছান আরও বলেন, বিএনপি নেতারা ও জোটের শরিকরা মাহী বি চৌধুরীকে সমর্থন করতে চেয়েছিল। কিন্তু তাবিথ আউয়ালের শ্বশুর জামায়াতের কেন্দ্রীয় শূরা সদস্য। তাই জামায়াতের চাপে ও আবদুল আউয়াল মিন্টুর অর্থের কারণে খালেদা জিয়া তাবিথকে সমর্থন দিয়েছেন।

তিনি বলেন, যে বাস পুড়িয়ে খালেদা জিয়া মানুষ হত্যা করেছেন, সেই বাস প্রতীকে এখন ভোট চাইছেন। জামায়াতের চাপে ও মিন্টুর টাকার কাছে নতি স্বীকার করে তিনি তাবিথের মতো নাবালকের পক্ষে ভোট চাইছেন। নির্বাচনের পর তিনি আবারও এ ধরনের জ্বালাও-পোড়াও করতে পারেন। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া যদি নির্বাচনের প্রচারে অংশ নিতে পারেন, তাহলে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো সরকারী সুযোগ-সুবিধা বাদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রীদের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেয়ার সুযোগ দিতে হবে। এতে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি হবে। অন্যথায় এটা সরকারী দলের জন্য বৈষম্যমূলক আচরণ করা হবে।

সংগঠনের সভাপতি জিনাত আলী জিন্নাহর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু।

কাল ১৪ দলের বৈঠক ॥ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় ১৪ দলের এক বৈঠক আগামীকাল বুধবার সকাল দশটায় ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে। আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি বৈঠকে সংশ্লিষ্ট সকলকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৫, ১২:২২ এ. এম.

২১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: