রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ব্যবসায়ী, শ্রমিক ও দুই নারীর লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০১৫

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ গাইবান্ধায় ব্যবসায়ী, গাজীপুরে শ্রমিক এবং মুন্সীগঞ্জ ও কুমিল্লার লাকসামে দুই নারীর লাশ উদ্ধার হয়েছে। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের।

গাইবান্ধা ॥ জেলা শহরের ডিবি রোডের নর্থ বেঙ্গল আবাসিক হোটেল থেকে ফারুক মিয়া (৪২) নামে এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শুক্রবার রাতে আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ফারুক মিয়ার বাড়ি চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ এলাকায়। তিনি আগ্রাবাদ এলাকার কালা মিয়ার ছেলে। পুলিশ জানায়, ফারুক মিয়া মোটর পরিবহনের ব্যবসা করতেন। ব্যবসার কাজে চট্টগ্রাম থেকে বৃহ¯পতিবার গাইবান্ধায় এসে নর্থ বেঙ্গল হোটেলের ৭২ নম্বর কক্ষ বুকিং নেন।

গাজীপুর ॥ লিয়াকৈরে স্ত্রীর পরকীয়ার জেরে নিহত এক শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ পুলিশ শনিবার উদ্ধার করেছে। নিহতের নাম জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৮)। সে রংপুরের কতোয়ালি থানার ফতেপুর ভোরঘাট এলাকার রহিজ উদ্দিনের ছেলে। জানা গেছে, কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক নবোয়ারবাগ মোড় এলাকার হাজী ফজলুল রহমানের বাড়িতে স্ত্রীকে নিয়ে প্রায় এক বছর ধরে জাহাঙ্গীর আলম ভাড়া থেকে রাজমিস্ত্রির কাজ করত। তার স্ত্রী মর্জিনা আক্তার (২১) স্থানীয় একটি পোশাক কারখানার কর্মী। সম্প্রতি ওই কারখানারই এক শ্রমিকের সঙ্গে মর্জিনা আক্তারের অবৈধ সম্পর্ক গড়ে উঠে।

মুন্সীগঞ্জ ॥ শ্রীনগরে অজ্ঞাত পরিচয় (৩২) এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে কেয়টখালী ডাক্তার রোডের পাশ হতে লাশটি উদ্ধার করা হয়। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

লাকসাম ॥ শনিবার লাকসামে এক অজ্ঞাত মহিলার (৩৫) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রেলওয়ে জংশনের ক্যাফে ক্যাটারিং হোটেল সংলগ্নে।

নীলফামারীতে ভাঙ্গন কবলিত ৫০ পরিবারের ঠাঁই গুচ্ছগ্রামে

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ তিস্তা নদীর ভাঙ্গনে জমিজিরাত হারানো ৫০ পরিবারের জন্য তৈরি করা গুচ্ছগ্রামের মাধ্যমে একটি করে ঘর প্রদান করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার পূর্বছাতনাই ইউনিয়নের তিস্তা নদীর পাড় মৌজা পূর্বছাতনাইয়ে ওইসব পরিবারকে ঘর দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নীলফামারী ১ আসনের সংসদ সদস্য আফতাব উদ্দিন সরকার। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খান ও বেসরকারী সংস্থা ইউএসডিও’র প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর জামিনি কুমার রায়। ইউএসডিও’র প্রোগ্রাম জেলা কো-অর্ডিনেটর আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, তিস্তাপাড়ের ঘরবাড়ি নিঃস্ব ৫০ পরিবারের জন্য বাংলাদেশ সরকারের তত্ত্বাবধানে এবং সিডিএমপির অর্থায়নে এক কোটি আট লাখ টাকা ব্যয়ে গুচ্ছগ্রামটি বাস্তবায়ন করে ইউএসডিও। এই গুচ্ছগ্রামে ৫০টি ঘরের পাশাপাশি ১০৫টি স্যানিটেশন ল্যাট্রিন ও ১৫টি নলকুপ স্থাপন করা হয়েছে। শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে তিস্তা নদীর ভাঙ্গনে নিঃস্ব ৫০ পরিবারের মাথা গোঁজর ঠাঁই করে দিতে তাদের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়।

প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০১৫

১৯/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: