কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সংশপ্তক

প্রকাশিত : ৫ এপ্রিল ২০১৫

স্বাধীনতার জন্য মুক্তিযুদ্ধ। আর মুক্তিযুদ্ধের রণাঙ্গন থেকে রাইফেলের নলে বাধা লাল সবুজের পতাকা। সেই পতাকায় আজ বাংলাদেশের ৪৪ বছর। বর্তমান পাকিস্তানের সমস্ত প্রকার শাসন শোষণ থেকে মুক্তির জন্য তথা বাঙালী জাতির জাতীয়তা, ন্যায্য অধিকারসহ স্বাধীনতা অর্জনের জন্য মহান নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাঙালী জাতি বন্দীদশা থেকে মুক্তি পায়। বাঙালী জাতির ঐতিহাসিক বিজয় তথা সংগ্রামশালী চেতনাকে ধরে রাখতে ও সকলের সামনে তুলে ধরেছেন বিখ্যাত ভাস্কর হামিদুজ্জামান খান এর ‘সংশপ্তক ’।

‘সংশপ্তক’ হলো একটি ব্রোঞ্জের তৈরি একটি মূর্তি। যার বাঁ পা ও বাঁ হাত নেই এবং ডান হাতে একটি অস্ত্রধরে সামনের দিকে ঝুঁকে আছে। যার অর্থ হলো একজন যোদ্ধা কোন কিছুতেই ভয় না পেয়ে সামনের দিকে অগ্রগামী থাকে। এটি বাংলাদেশর মুক্তিযুদ্ধের একটি স্মারক ভাস্কর্য। এটি বাংলাদেশর একমাত্র আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে স্থাপিত তৎকালীন উপাচার্য কাজী সালেহ আহমেদ ১৯৮৯ সালে এর ভিত্তিপ্রস্তর করেন এবং ২৬ মার্চ ১৯৯০ সালে এটি উদ্বোধন করেন।

প্রতীকী মুক্তিযোদ্ধা সংশপ্তকের একহাত ও এক পা হারানো, কিন্তু সামনের দিকে অগ্রসরমান ও অকুতোভয়। যা থেকে বোঝা যায় যে, বাঙালীরা কখনও পিছপা হতে জানে না। মূলত এই মূর্তিকে একটি প্রতীক হিসেবে ধরে বাঙালী জাতির দুর্জোয়া, অপতিরোধ্য প্রচ- জাতীয়তাবোধের এক পরম ঐতিহ্যকে তুলে ধরা হয়েছে। এজন্য হারাতে হয়েছে ৩০ লাখ তাজা প্রাণ ২ লাখ, বোনের সংযম, মতিউর জাহাঙ্গীর, মুন্সি আবদুর রউফদের মতো অকুতোভয় বাংলার সোনার ছেলেদের। মৃত্যুকে বাঙালী ভয় পায় না। তারা তাদের সর্বোচ্চ দিয়ে মাতৃভূমিকে জয় করেছে। বাঙালী জাতির অপরাজেয় মনোবল যার প্রতিদান ১৯৫২ সালের মাতৃভাষা অর্জন এবং ৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধ ও জয় লাভ।

এটি ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য প্রেরণা হিসেবে কাজ করবে। বাঙালীদের দৃঢ় মনোবল অসীম সাহসের মাধ্যমে কঠিনতর সংগ্রামে লিপ্ত হয়ে বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে আর উচ্চতর শিখরে নিয়ে যাবে।

সাহসিকতার এই প্রতীকটি দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠের জাবির প্রতিটি ছাত্রছাত্রীদের বার বার স্মরণ করিয়ে দেয় গৌরবের কথা, মুক্তি ও সংগ্রামের কথা। আমি যখন এটির সামনে আসি তখন খুঁজে পাই নতুন সাহস আর উদ্দাম, স্বপ্ন দেখি নতুন করে। স্বাধীনতার এই মাসে বাঙালী জাতির গৌরবের, সাহসের এই ঐতিহ্যকে ধারণ করে সোনার বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সকলের প্রতি রইল আহব্বান। কেননা আমরা জানি ‘স্বাধীনতা অর্জনের চেয়ে স্বাধীনতা রক্ষা করা কঠিন’।

রিজু মোল্লা

প্রকাশিত : ৫ এপ্রিল ২০১৫

০৫/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: