কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

গুজরাটে মুট কোর্ট প্রতিযোগিতায় ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

প্রকাশিত : ১৫ মার্চ ২০১৫

বাংলাদেশ বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে প্রথম আইন অনুষদ চালু হয়। ১৯৯৫ সালে এ ইউনিভার্সিটি আইন অনুষদ দিয়েই যাত্রা শুরু। এ ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক ড. এবিএম মফিজুল ইসলাম পাটোয়ারী ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের কৃতি শিক্ষক। তিনি আইন ও মানবাধিকার বিষয়ক বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থের প্রণেতা। শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ আইন বিষয়ক বিভিন্ন সেমিনার-সিম্পোজিয়াম আয়োজন করে। শুধু তাই নয়, আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সেমিনার ও বিতর্ক অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার ব্যবস্থাও করে ইউনিভার্সিটির কর্তৃপক্ষ। যেমন, সম্প্রতি আইন অনুষদের ছাত্রছাত্রীরা ভারতের আহমেদাবাদে গুজরাট ন্যাশনাল ল’ ইউনিভার্সিটি (জিএনএলইউ)র’ আমন্ত্রণে বাণিজ্য আইন বিষয়ক ‘ছায়া আদালত’ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। সারা বিশ্বে এটি ‘মুট কোর্ট’ কম্পিটিশন নামে পরিচিত। গুজরাটের ন্যাশনাল ল’ ইউনিভার্র্সিটি আয়োজিত ঞযব ৭ঃয গড়ড়ঃ ঈড়ঁৎঃ ঈড়সঢ়বঃরঃরড়হ-২০১৫ প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ১৭টি দেশের ৮৭টি বিশ্ববিদ্যালয় অংশ নেয়। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে একমাত্র ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অংশগ্রহণ করে। ইউনিভার্সিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রীমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারীর নেতৃত্বে আইন অনুষদের ৩ জন শিক্ষক- মাসুদুর সালেকীন, মশিউর রহমান ও শহিদুল ইসলাম এবং কয়েকজন শিক্ষার্থী এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। এ প্রতিযোগিতায় ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ২১তম স্থান অর্জন করে। প্রতিযোগিতায় ৮৭টি ইউনিভার্সিটির মধ্যে থেকে প্রথম পর্বে কেবল ৪০টি ইউনিভার্সিটিকে নির্বাচন করা হয়। দ্বিতীয় পর্বে উঠার সময় ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভারতের বিখ্যাত তীর্থঙ্কর মহাবীর ইউনিভার্সিটিকে পরাজিত করে। দ্বিতীয় পর্বে ৪০টি ইউনিভার্সিটির মধ্যে ৮টি ইউনিভার্সিটিকে নির্বাচন করা হয়। ফাইনাল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে আমেরিকার জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটি ও দিল্লীর ন্যাশনাল ল’ ইউনিভার্সিটি। চ্যাম্পিয়ন হয় দিল্লী ন্যাশনাল’ ইউনিভার্সিটি। রানার্স আপ হয় ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটি।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে তারা ন্যাশনাল ডিবেট কম্পিটিশনে সরকারী-বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন হয়। এছাড়াও এ ইউনিভার্র্সিটি ২০১৩ সালে জাপানে এন্টি ট্যোবাকো কর্মশালায় অংশগ্রহণ করে। গত বছর নবেম্বর মাসে আমেরিকা ও মেক্সিকোতে সামাজিক ব্যবসা বিষয়ক কর্মশালায় অংশগ্রহণ করে। গুজরাটে ‘৭ম মুট কোর্ট কম্পিটিশন-২০১৫’ সম্পর্কে দলনেতা ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী বলেন, আমাদের ছাত্রছাত্রীরা আশানুরূপ সফলতা দেখাতে পারেনি ঠিক। কিন্তু তারা এবারে যে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে তা আগামীতে কাজে লাগবে। অংশগ্রহণকারী আইন অনুষদের ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ছিলেন মো.মশিউর রহমান, মো. ইমরান হোসেন, সম্পদ কুমার শীল, সুমাইয়া সারমীন, মো. আনিসুর রহমান, লোকমান চৌধুরী, সোহেল মিয়া, কানিজ ফাতেমা, শিল্পী সুলতানা মেঘলা, খালেদ সাইফ উদ্দীন, নাসিমা সুলতানা মুন্নী, মাহমুদ উল্লাহ হক চৌধুরী ও রাফিউর রহমান।

ক্যাম্পাস প্রতিবেদক

প্রকাশিত : ১৫ মার্চ ২০১৫

১৫/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: