মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

কলাপাড়ায় বেড়িবাঁধ মেরামতে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, ১২ মার্চ ॥ বেড়িবাঁধের মাটি কেটে উচ্চতা আরও কমানো হচ্ছে। দুই দিকের মাটি কেটে নিচু করে মাঝখানে নামেমাত্র মাটি ভরাট করে মেরামত কাজ চলছে। কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ থেকে টুঙ্গিবাড়িয়া পর্যন্ত বেড়িবাঁধ মেরামতের এমন কাজ চলছে। এছাড়া বেড়িবাঁধের রিভার সাইটের স্লোপের নিচ থেকে মাটি কাটায় বাঁধটিও চরম ঝুঁকির মধ্যে পড়ছে। ফলে সরকারের অর্থব্যয়ে বেড়িবাঁধ মেরামতের উদ্দেশ্য ব্যাহত হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, পানিউন্নয়ন বোর্ডের ৪৬ নম্বর পোল্ডারের এক দশমিক ৫৬৫ কিলোমিটার অংশ থেকে চার দশমিক ২০ কিলোমিটার পর্যন্ত বেড়িবাঁধ মেরামতের কাজ চলছে। স্থানীয় বাসিন্দা জয়নাল আবেদীনসহ অনেকে জানান, পুরনো বেড়িবাঁধ আগে যতটুকু উঁচু ছিল তা আরও কেটে কমানো হচ্ছে। দুই পাশের স্লোপ কেটে শুধু লেভেল করা হচ্ছে। নামকাওয়াস্তে মাটি দেয়া হচ্ছে। কোনমতে ডিজাইন ঠিক না রেখে করা হচ্ছে কাজটি। প্রায় এক শ’ শ্রমিক মাটি কাটছিল। লেবার সর্দার হারুন জানালেন, বেড়িবাঁধের টপ ১৪ ফুট তিন ইঞ্চি। কান্ট্রি সাইটের স্লোপ ১৫ ফুট এবং রিভার সাইটে ২৫ ফুট রেখে তাদের বাঁধ মেরামত করতে বলা হয়েছে। এজন্য তারা এক শ’ ফুট বাঁধ মেরামত করতে মজুরি পাচ্ছেন ১১ হাজার সাত শ’ টাকা। আরও কম রেটেও কাজ চলছে। আর কিছু বলতে পারবেন না। এলাকার অধিকাংশ মানুষ বেড়িবাঁধ মেরামতের কাজ নিয়ে চরম ক্ষুব্ধ মনোভাব প্রকাশ করলেন। সাংবাদিকরা ছবি তোলার সময় অনেক যুবক উপহাস করে জানালেন, যাই করেন- কিছু অইবে না। এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড কলাপাড়ার নির্বাহী প্রকৌশলী সফি উদ্দিন জানান, তিনি বদলি হয়ে গেছেন অন্যত্র। এসডিইর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এসডিই (উপবিভাগীয় প্রকৌশলী) শহীদুল ইসলাম জানান, ভাই আমি কিছু জানি না। জানে স্টিমেটর শহীদুল সাহেব।

গাজীপুরে আহত ইজিবাইক চালকের মৃত্যু ॥ বিক্ষোভ

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ১২ মার্চ ॥ গাজীপুরের কালীগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় গুরুতর আহত ইজিবাইক চালক হাসপাতালে ৪ দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে বুধবার রাতে মারা গেছে। এলাকাবাসী খুনীদের গ্রেফতারের দাবিতে বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ মিছিল করেছে। নিহতের নাম আব্দুল হামিদ (৩০)। সে কালীগঞ্জ উপজেলার চৌড়া গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার নিহতের স্ত্রী আওলিয়া বেগম বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে। জানা গেছে, গত রবিবার সকালে কালীগঞ্জ উপজেলার বড়নগর সড়কে দু’টি ইজিবাইকে ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে চালক মোঃ আঙ্গুর খান ও হামিদের মাঝে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এর জের ধরে লোকজন নিয়ে আঙ্গুর খানের ছেলেরা আব্দুল হামিদকে মারধর করে। স্থানীয়রা আহত হামিদকে প্রথমে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার ধানমন্ডি জেনারেল এ্যান্ড কিডনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে সে মারা যায়। তার মৃত্যুর সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে বৃহস্পতিবার সকালে এলাকাবাসী খুনীদের গ্রেফতারের দাবিতে কালীগঞ্জের প্রধান প্রধান সড়কে বিক্ষোভ মিছিল বের করে।

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

১৩/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: