মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

করুনারত্নে টানলেন শ্রীলঙ্কাকে

প্রকাশিত : ৪ জুলাই ২০১৫
  • পাল্লেকেলে টেস্ট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘ তেরো বছরে এই প্রথম এক সঙ্গে মাহেলা জয়াবর্ধনে ও কুমার সাঙ্গাকারাকে ছাড়া টেস্ট খেলছে লঙ্কানরা। মাহেলা অবসর নিয়েছেন গত বছর, বিদায়ের পথে থাকা বন্ধু সাঙ্গাকারা আসন্ন ভারত সিরিজে আর একটি ম্যাচ খেলে ব্যাট-বল তুলে রাখবেন। পাল্লেকেলেতে সিরিজ নির্ধারণী শেষ টেস্টের প্রথম দিনেই দুই গ্রেটের অভাবটা হারে হারে টের পেল স্বাগতিকরা। ঘোরতর বিপদে মান বাঁচিয়েছেন করুনারতেœ, এই ওপেনারের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে প্রথম দিন শেষে ৮ উইকেটে ২৭২ রান করতে পেরেছে শ্রীলঙ্কা। পাকিস্তানের হয়ে দারুণ বোলিং করেছেন ইয়াসির শাহ, রাহাত আলি ও আজহার আলি।

টস জিতে ফিল্ডিং বেছে নেন অতিথি অধিনায়ক মিসবাহ-উল হক। সিদ্ধান্তের যথার্থতা প্রমাণ করে দলীয় ১৫ রানেই কুশল সিলভাকে তুলে নেন রাহাত। ৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই ওপেনার। এরপর উপুল থারাঙ্গাকে নিয়ে করুনারতেœর প্রতিরোধ। দ্বিতীয় উইকেটে ৩০.২ ওভারে সর্বোচ্চ ৯১ রান যোগ করেন তারা। ১ উইকেট হারিয়ে ১শ’ রানে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা, এরপরই দৃশ্যপটে ইয়াসির। ৩৬ রানের মধ্যে তিন উইকেট হারিয়ে বসে তারা। থারাঙ্গা (৪৬), লাহিরু থিরিমান্নে (১১) ও অধিনায়ক এ্যাঞ্জেলোকে (৩) তুলে নেন পাক লেগস্পিনার। তার মধ্যে থিরিমান্নে ও ম্যাথুসকে একই ওভারে তুলে নেন ইয়াসির। তৃতীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান জিহান মুবারাকের। দীর্ঘ ৭ বছরেরও বেশি সময় পর টেস্টে ফিরে ইয়াসিরের শিকারে পরিণত হন তিনি। ২০০২ সালে অভিষেকের পর শ্রীলঙ্কা যেখানে ১১২ ম্যাচ খেলছে সেখানে মুবারকের সুযোগ হয়েছে ১১টিতে! বিপদের মাঝে ২৪ রান করে অবদান রাখেন চান্দিমাল। তবে করুণারতেœর কথা আলাদা করে না বললেই নয়। ২৩০ বলে ১৪ চারের সাহায্যে ১৩০ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে দলকে সম্মানজনক স্কোর এনে দেয়ার রূপকার এই ওপেনার। ১৮তম টেস্টে এটি তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। পাকিস্তানের হয়ে ইয়াসির সর্বোচ্চ ৪, রাহাত ২ ও ‘অকেশনাল’ আজহার নেন ২ উইকেট। ২/৩৫Ñ ‘ব্যাটসম্যান’ আজহারের ক্যারিয়ারসেরা বোলিং এটিই! চার শিকারের মধ্য দিয়ে চলতি সিরিজে ২১ উইকেট নিলেন ফর্মের তুঙ্গে থাকা ইয়াসির, শ্রীলঙ্কার মাটিতে কোন পাকিস্তানী বোলারের জন্য যা নতুন রেকর্ড। আগেরটি ছিল মোহাম্মদ আসিফের, ২০০৬ সালে। ১০১তম টেস্ট খেলতে নামা ইউনুসের শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এটি ২৯তম ম্যাচ, এক্ষেত্রে গ্রেট জাভে মিয়াঁদাদকে (২৮) পেছনে ফেলেন তিনি।

স্কোর ॥ শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস ২৭২/৮ (৮৬ ওভার; করুনারতেœ ১৩০, থারাঙ্গা ৪৬, মুবারক ২৫, চান্দিমাল ২৪, থারিন্ডু ১৭*, থিরিমান্নে ১১, কুশল ৯; ইয়াসির ৪/৭৭, আজহার ২/৩৫, রাহাত ২/৭৪)

** প্রথম দিন শেষে

প্রকাশিত : ৪ জুলাই ২০১৫

০৪/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: