মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইরান পরমাণু জ্বালানি হাতছাড়া করবে না

প্রকাশিত : ৩১ মার্চ ২০১৫
  • শেষ মুহূর্তে প্রস্তাবিত চুক্তির গুরুত্বপূর্ণ শর্ত থেকে সরে দাঁড়াল তেহরান

ইরানী কর্মকর্তারা প্রস্তাবিত পরমাণু চুক্তির এক গুরুত্বপূর্ণ শর্ত থেকে সরে গিয়ে বলেছেন, তারা তাদের পরমাণু জ্বালানি দেশের বাইরে পাঠাতে আর ইচ্ছুক নন। মঙ্গলবার রাতে ইরানের পরমাণু কর্মসূচী নিয়ে এক অন্তর্বর্তী চুক্তিতে পৌঁছানোর সময়সীমা শেষ হওয়ার প্রাক্কালে ইরানীরা এ মনোভাব ব্যক্ত করলেন। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের।

কয়েক মাস ধরে ইরানের হাতে মজুত থাকা ইউরেনিয়ামের এক বড় অংশ রাশিয়াতে পাঠাবে বলে প্রাথমিকভাবে সম্মত হয়ে এসেছে। রাশিয়াতে ভবিষ্যতে কোন পরমাণু অস্ত্র তৈরির কাজে সেই ইউরেনিয়াম ব্যবহারের সুযোগ থাকবে না। কিন্তু রবিবার ইরানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস তারাকচি ইরানী সাংবাদিকদের কাছে এক অপ্রত্যাশিত মন্তব্য করেন। তিনি এমন জোন মতৈক্যের সম্ভাবনা নাকচ করেছেন, যার আওতায় ইরানকে কয়েক বছরেও শত শত কোটি ডলারে মজুত করা ইউরেনিয়াম পরিত্যাগ করতে হবে। আরাকচি বলেন, সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম বাইরে পাঠানো আমাদের কর্মসূচীতে নেই এবং আমরা তা বাইরে পাঠাতে চাই না।

মজুত করা ইউরেনিয়াম বাইরে পাঠানোর প্রশ্নই ওঠে না। পশ্চিমা কর্মকর্তারা ইরান পরমাণু জ্বালানি বাইরে পাঠাতে অনিচ্ছুক হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন। তবে কর্মকর্তারা বলেছেন, জ্বালানি নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের অন্যান্য উপায়ও রয়েছে। এদের মধ্যে প্রধানটি হলো ওই জ্বালানিকে আরও তরল করে তোলা। প্রথম উপায়টি অবলম্বন করা হলে টেকনিক্যাল অবস্থা অনুযায়ী সামরিক উদ্দেশে ব্যবহারের জন্য ইউরেনিয়ামসমৃদ্ধ করা আরও বেশি সময়সাপেক্ষ বা সম্ভবত প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়তে পারে। যা হোক, ইরান এখন জ্বালানি নিজের হাতে রেখে দেয়ার ওপর জোর দিচ্ছেÑ এ খবর আলোচনার এক গুরুত্বপূর্ণ সময়ে সম্ভাব্য বাধা হয়ে দেখা দিতে পারে। যে কোন রূপে ইরানের হাতে বিরাট পরিমাণ পরমাণু জ্বালানি রেখে দেয়ার সম্ভাবনা কংগ্রেস, ইসরাইল ও সৌদি আরবের মতো সুন্নী দেশগুলোকে ইরানের সঙ্গে আলোচনাধীন ওই চুক্তির আরও তীব্রভাবে বিরোধিতা করতে উৎসাহিত করবে।

বিপজ্জনক চুক্তি ॥ নেতানিয়াহু

এদিকে ইসরাইলী প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু ইরানের সঙ্গে বিশ্ব শক্তিগুলোর আলোচনাধীন ওই পরমাণু চুক্তিকে ‘বিপজ্জনক’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, তার সরকার যেমন আশঙ্কা করছে, চুক্তিটি তার চেয়েও বিপজ্জনক।

তিনি রবিবার তার মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে ওই মন্তব্য করেন। নেতানিয়াহু সতর্ক করে দেন যে, ইরান, ইরাক লেবানন ও সিরিয়ার রাজধানীগুলোর ওপর নিয়ন্ত্রণ কায়েম করে মধ্যপ্রাচ্য ‘জয়’ করার মতো অবস্থানে চলে যেতে পারে। -এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

প্রকাশিত : ৩১ মার্চ ২০১৫

৩১/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: