মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিভেদ ভুলে এক মঞ্চে চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতারা

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৫
বিভেদ ভুলে এক মঞ্চে চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতারা
  • আ জ ম নাছিরকে জেতাতে ঐক্যবদ্ধ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচন সামনে রেখে বিভেদ ভুলে একমঞ্চে এলেন আওয়ামী লীগ নেতারা। দল সমর্থিত প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিনকে জেতাতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন নেতৃবৃন্দ। সোমবার প্রার্থীর পক্ষে প্রথম মতবিনিময় সভায় উপস্থিত হন নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী এবং চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ জেলার প্রায় সকল শীর্ষ নেতা। নেতাদের এমন সম্মিলন দেখা গেল অনেকদিন পর। এতে দারুণ উজ্জীবিত দলের তৃণমূল পর্যায়ের কর্মী-সমর্থকও।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, আমাদের অনেকের মধ্যে যন্ত্রণা থাকতে পারে। কিন্তু দলের সিদ্ধান্তেই আ জ ম নাছির উদ্দিন আমাদের প্রার্থী। দলের নির্দেশ মেনে আমি স্বেচ্ছায় তার পক্ষে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। চট্টগ্রামের উন্নয়নে আমরা সকলে একসঙ্গে কাজ করে আমাদের মেয়র প্রার্থীকে জিতিয়ে আনতে সব ধরনের তৎপরতা চালিয়ে যাব। মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনীত নগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, আমরা জয় ছাড়া আর কিছুই ভাবছি না। আমাদের সামনে জয়ের বিকল্প নেই। সকলের সহযোগিতায় এই শহরকে নতুন রূপে সাজাতে চাই। চট্টগ্রাম হবে একটি বিশ্বমানের নগরী ও সত্যিকারের মেগাসিটি।

চট্টগ্রাম ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে সোমবার অনুষ্ঠিত হয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মেয়র প্রার্থী ও আওয়ামী লীগ নেতাদের মতবিনিময় সভা। এতে নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান প্রবীণ রাজনীতিক ও সাবেক গণপরিষদ সদস্য ইসহাক মিয়া, সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী ডাঃ আফসারুল আমিন এমপি, এমএ লতিফ এমপি, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সাবেক এমপি নুরুল আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের প্রশাসক এমএ সালাম, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী, এ্যাডভোকেট সুনীল সরকার, খোরশেদ আলম সুজন, সংসদ সদস্য দিদারুল আলম, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, এ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন বাবুল, আলতাফ হোসেন বাচ্চু এবং আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী। মূলত এই মতবিনিময় সভার মধ্য দিয়ে নির্বাচনী কর্মকা-ের প্রাথমিক সূচনা হলো। তবে মূল প্রচার শুরু হবে প্রার্থীর প্রতীক বরাদ্দের পর। এদিকে, সোমবারই রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন আ জ ম নাছির উদ্দিন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও সমর্থকও।

সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, মেয়র পদে দলের সমর্থিত প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিনকে জেতাতে সকল নেতাকর্মী ও সমর্থক ঐক্যবদ্ধ আছে। সকল ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদেও যেন দল সমর্থিত একক প্রার্থী থাকে সেজন্য আমরা কাজ করছি। তিনি বলেন, সমস্যা থাকতে পারে, সমাধানও হবে। দলের প্রার্থীকে জয়ী করতে আমরা যথাযথ উদ্যোগ নিয়েছি। এক্ষেত্রে আমাদের মধ্যে কোন বিভেদ নেই।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিন লিখিত বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের প্রধান সমুদ্রবন্দর চট্টগ্রামে। জাতীয় বাজেটের সিংহভাগ যোগানদাতা এই চট্টগ্রাম। অবকাঠামো উন্নয়ন ও প্রাকৃতিক সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা এবং পরিকল্পিত ব্যবহারের মাধ্যমে চট্টগ্রাম হয়ে উঠতে পারে বিশ্বের সর্বাধুনিক একটি মেগাসিটি। চট্টগ্রামকে কিভাবে স্বপ্নের মেগাসিটিতে পরিণত করা যায় তা নিয়েই দীর্ঘদিন ধরে ভেবেছি। এই জন্য মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আগ্রহী হই। এক্ষেত্রে পথ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রিয় নেতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। দলের সকল নেতাকর্মী সাড়া দিয়েছেন। সকলের সমর্থনে মেয়র পদে প্রার্থী হতে যাচ্ছি। সবার সহযোগিতায় আমি এই শহরকে নতুনরূপে ঢেলে সাজাতে চাই।

চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অতীতের যে কোন সময়ের তুলনায় দল এখন বিভেদহীন ও শক্তিশালী। সংগঠনের ঐক্য এবং নগরবাসীর আস্থায় ইনশাআল্লাহ আমরা মেয়র পদে বিজয়ী হব। শুধু আশ্বাসের ফুলঝুড়ি নয়, বাস্তব কর্মপরিকল্পনা দিয়ে নগরবাসীর আশা- আকাক্সক্ষার বাস্তবায়ন ঘটাতে চাই। সব দফার রফা করতে চাই। কাজ দিয়েই আমি মানুষের পাশে থাকতে চাই।

৫ম দিনে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ॥ সিটি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র গ্রহণের ৫ম দিনে সোমবার মেয়র, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ও সাধারণ কাউন্সিলর পদের জন্য মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন মোট ১৩৩ জন। এর মধ্যে মেয়র পদে ৩ , সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ২২ ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১০৮ প্রার্থী হয়েছেন। এ নিয়ে মেয়র পদে ৮ , সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৪৬ ও সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ৩৪৩ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেন। মেয়র পদে এ পর্যন্ত যারা মনোনয়নপত্র গ্রহণ করলেনÑ আওয়ামী লীগ সমর্থিত আ জ ম নাছির উদ্দিন, জাতীয় পার্টির সোলায়মান আলম শেঠ, ইসলামিক ফ্রন্টের হোসাইন মোহাম্মদ মুজিবুল হক। অবশিষ্ট ৫ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী। তারা হলেনÑ আরিফ মঈনুদ্দিন, গাজী মোহাম্মদ আলাউদ্দিন, সৈয়দ সামসুজ্জোহা, ফখরুদ্দিন চৌধুরী ও গোলাম ইয়াজদানি।

বিএনপি সমর্থিত সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র গ্রহণ ॥ সোমবার নগরীর সংরক্ষিত ১৪টি নারী কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বিএনপি সমর্থক প্রার্থীরা। তারা একসঙ্গে রিটার্নিং অফিসার কার্যালয়ে গিয়ে মনোনয়ন ফর্ম তুলে নেন। জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের নেত্রী কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম মনি জানান, নির্বাচনে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে চসিকের ১৪টি সংরক্ষিত নারী পদের সব কটির জন্যই তারা মনোনয়নপত্র কিনেছেন। যারা মনোনয়নপত্র তুলেছেনÑ নাসিমা আলম, শাহনাজ বেগম, সায়মা হক, আরজু শাহাবুদ্দিন, জেসমিনা খানম, খালেদা বোরহান, কামরুন্নাহার লিজা, আরজুন্নাহার মান্না, মনোয়ারা বাবুল, বেগম লুৎফুন্নেছা, সাহিদা খানম, রাশেদা আলম, মনোয়ারা বেগম মনি ও রেজিয়া খানম মুন্নি।

আজ আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা ॥ চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থিতার সমর্থনে আজ সকালে নগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা আহ্বান করা হয়েছে। এছাড়া বিকেলে অনুষ্ঠিত নগর উত্তর ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভা। এসব সভায় দল সমর্থিত প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিনের সমর্থনে কাজ করার দিকনির্দেশনা দেয়া হবে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৫

২৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: