মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আবহাওয়ার পূর্বাভাস কেন সর্বদা নির্ভুল নয়

প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • এনামুল হক

আবহাওয়ার পূর্বাভাস আজ আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অপরিহার্য অনুষঙ্গ। জীবন ও সম্পত্তি রক্ষায় আবহাওয়ার পূর্বাভাসের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। তেমনি গুরুত্বপূর্ণ চাষাবাদ এবং পণ্য বাণিজ্যের ক্ষেত্রে। ঝড় বৃষ্টি তুষারপাত এবং শৈত্যপ্রবাহ আমাদের বাইরের কর্মকা-কে প্রভাবিত করে। বিমান ও নৌচলাচলের বেলায় আবহাওয়ার পূর্বাভাস জানা একান্ত প্রয়োজন। আবহাওয়ার পূর্বাভাস সারাবিশ্বের মানুষের ব্যক্তিগত ও সামাজিক জীবনের জন্য বিশেষ তাৎপর্য বহন করে থাকে। পূর্বাভাসে ভুলভ্রান্তি হলে এর পরিণতি হয়ে থাকে অতিমাত্রায় নেতিবাচক।

১৯৭৬ সালে উগান্ডায় এন্টেবি বিমানবন্দরে ইসরাইলি কমান্ডো অভিযানে দুই শতাধিক জিম্মিকে বিমান ছিনতাইকারীদের হাত থেকে উদ্ধারের কথাই দৃষ্টান্ত হিসেবে উল্লেখ করা যাক। সে সময় ইসরাইলি বিমানবাহিনীর আবহাওয়া পূর্বাভাস ইউনিট আবহাওয়ার অবস্থা সম্পর্কে যে পূর্বাভাস দিয়েছিল, তা এই অভিযান সফল করে তুলতে রেখেছিল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। বিমান চলাচল পথ ও গ্রাউন্ডের অবস্থা সম্পর্কে সেই পূর্বাভাস যদি ভুল হতো, তাহলে অভিযানের পরিসমাপ্তি হয়ত হতো অন্যভাবে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে ভুলভ্রান্তি সারাবিশ্বের মানুষের ব্যক্তিজীবনে বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে। বিনা প্রস্তুতিতে তারা পড়ে যেতে পারে ঝড়বৃষ্টি, তুষারপাতের মধ্যে। আটকা পড়ে থাকতে পারে বিমানবন্দরে।

আগের তুলনায় এখনকার প্রযুক্তি অনেকগুণ উন্নত। তারপরও কিন্তু আবহাওয়াবিদরা পূর্বাভাস দিতে গিয়ে প্রায়ই ভুলভ্রান্তি করে থাকেন। সর্বশেষ একটি দৃষ্টান্ত দেয়া যাক। আমেরিকার নিউজার্সিতে এবার ভয়াবহ তুষারঝড়ের পূর্বাভাস দেয়া হয়েছিল। রাজ্যজুড়ে যানবাহন চলাচলের ওপর দেয়া হয়েছিল বিধিনিষেধ। কিন্তু পরে সেই পূর্বাভাস ভুল প্রমাণিত হয়। আবহাওয়াবিদরা এ জন্য ক্ষমাও চেয়েছেন।

আবহাওয়ার পূর্বাভাস ব্যবস্থার অবিচ্ছিন্ন উন্নতি ঘটে চললেও, অনেক সময় তাতে ভুলভ্রান্তি ঘটে। গবেষকরা পূর্বাভাসের নির্ভুলতাকে ঘোলাটে করে দিতে পারে এমন কয়েকটি প্রধান কারণ চিহ্নিত করেছেন। সেগুলো হলোÑ ভূমি ব্যবহারে পরিবর্তন, টপোগ্রাফি, বায়ুম-লের বস্তুকণা ও জনসংখ্যার ঘনত্ব। তারা লক্ষ্য করেছেন যে, ভূমধ্যসাগরীয় এলাকার পূর্বাঞ্চলে বায়ুম-লের বস্তুকণাই আবহাওয়া পূর্বাভাসে ভুলত্রুটি হওয়ার সবচেয়ে বড় কারণ। এরপর রয়েছে, যে স্থলভাগ বা এলাকার পূর্বাভাস দেয়া হচ্ছে, তার অবস্থার পরিবর্তন। তাঁরা আরও লক্ষ্য করেছেন যে, সারাবিশ্বের আবহাওয়াকে প্রভাবিত করার ব্যাপারে টপোগ্রাফি সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখে।

এ সব তো আছেই। আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাসে অনেক সময় ভুল হবার কারণ হলো, তাঁরা পূর্বাভাস দেয়ার জন্য যে সব মডেল ব্যবহার করেন, সেগুলো ইন্টারনাল ওয়েভ বা অভ্যন্তরীণ তরঙ্গের মতো প্রভাবশালী উপাদানগুলো সঠিকভাবে হদিস করতে পারেন না। বায়ুম-লীয় অভ্যন্তরীণ তরঙ্গগুলো লঘু ঘনত্ব ও গুরু ঘনত্বের বায়ুর স্তরগুলোর মধ্যে চলাচল করে। এগুলোর বর্ণনা দেয়া কঠিন। তথাপি এ সব তরঙ্গ অনুভব করা যায়। আকাশে স্তরে স্তরে যে মেঘপুঞ্জ গড়ে ওঠে, তা এই অভ্যন্তরীণ তরঙ্গের ফল। এই তরঙ্গ নিজের এনার্জিকে জমা করে রাখে। পরে তা চারপাশে ছড়িয়ে দেয়। তরঙ্গ যখন এনার্জি জমা রাখে, তখনও বাতাসের গতিকে দ্রুততর অথবা মন্থরতর করতে পারে। এতে আবহাওয়া প্যাটার্নে বড় ধরনের পরিবর্তন ঘটতে পারে কিংবা দেখা দিতে পারে চরম অবস্থা। অভ্যন্তরীণ তরঙ্গ সমুদ্রের লঘু ঘনত্ব ও গুরু ঘনত্বের পানির স্তরগুলোর মধ্যেও থাকে। এই তরঙ্গ সমুদ্রের সাধারণ পানিপ্রবাহ এবং উপসাগরীয় স্রোতের মতো ঘটনাবলীকে প্রভাবিত করে। সামুদ্রিক ও বায়ুম-লীয় অভ্যন্তরীণ তরঙ্গগুলো বিপুল পরিমাণ এনার্জি ধারণ করে থাকে, যা আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটিয়ে দিতে পারে। এই তরঙ্গগুলো অনেক সময় মহাকাশ থেকে দেখা গেলেও, স্থলভাগ থেকে আবহাওয়াবিদরা সেগুলোর হদিস নাও বের করতে পারেন। আর তখন আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বিভ্রাট ঘটা হয়ে দাঁড়ায় স্বাভাবিক পরিণতি।

তারপরও আবহাওয়ার পূর্বাভাসের ব্যাপরটাই ভ্রান্তÑ এ কথা কখনও বলা যাবে না। এটুকুই শুধু বলা যেতে পারে যে, কখনও কখনও এই পূর্বাভাসে বিভ্রাট ঘটতে পারে। কেন হতে পারে, তার কিছু কারণ ওপরে বলা হয়েছে। এছাড়াও রয়েছে আরেক কারণ। আবহাওয়াবিদরা পূর্বাভাস দিতে গিয়ে কম্পিউটার সৃষ্ট অতি জটিল ধরনের মডেল ব্যবহার করেন। সেই মডেলগুলোর বিবরণ থাকে আগামী কয়েক দিন বা কয়েক ঘণ্টায় বায়ুম-লে বাতাস তাপমাত্রা ও আর্দ্রতা ইত্যাদির ক্ষেত্রে কী কী ঘটতে পারে। এ মডেলগুলো একেবারে নিখুঁত, এ কথা বলার উপায় নেই। অংশত এর কারণ হলো, আবহাওয়া নিয়ে গবেষণা মোটেও শেষ হয়নি। আরেক কারণ হলো, বায়ুম-লের পদার্থ বিজ্ঞান এতই জটিল যে, কিছু কিছু বিষয় নির্ভুলতার কাছাকাছি বলে ধরে নিতে হয়।

তবে সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো কম্পিউটার মডেলগুলোর জন্য প্রয়োজন পর্যবেক্ষণমূলক তথ্যউপাত্ত। কৃত্রিম উপগ্রহ, বেলুন ও অন্যান্য ক্ষেত্রে আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ থেকে প্রাপ্ত তথ্যাবলী কম্পিউটার মডেলের ভেতর দেয়া হয় এবং তারপরই কম্পিউটার আগামী দিনগুলোর আবহাওয়া কী হবে, তা হিসাব করে বের করতে শুরু করে। এ সব তথ্যউপাত্তে কোন রকম ত্রুটি বা অসম্পূর্ণতা থাকলে, আবহাওয়ার পূর্বাভাসও হয়ে উঠতে পারে ত্রুটিপূর্ণ।

প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৩/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: