আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কুমিল্লায় প্রতিপক্ষের গুলিতে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা গুরুতর আহত, গাড়ি ভাংচুর

প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারী ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, কুমিল্লা, ১৬ জানুয়ারি ॥ কুমিল্লায় গুলিতে যুবলীগ নেতা কামাল চৌধুরী এবং ছাত্রলীগ নেতা কাউসার গুরুতর আহত হয়েছেন। অবস্থার অবনতি ঘটলে তাঁদের ঢাকায় পাঠানো হয়। এ ঘটনায় দুটি গাড়ি ভাংচুর করা হয়। এতে ওই দুই গাড়ির চালক আহত হন। এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে আদর্শ সদর উপজেলার আমড়াতলী ইউনিয়নের বাঁশমঙ্গল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত কামাল চৌধুরী কুমিল্লা শহর যুবলীগের আহ্বায়ক। তিনি দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক এ্যাডভোকেট আফজল খানের ভাগ্নে।

জানা যায়, কুমিল্লা চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক এ্যাডভোকেট আফজল খানের ছেলে আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদ পারভেজ খান ইমরানসহ শহর যুবলীগ নেতা কামাল চৌধুরী শুক্রবার দুপুরে আমড়াতলী ইউনিয়নের জামবাড়ী এলাকায় একটি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় অতিথি হিসেবে যান। মাসুদ পারভেজ খান ইমরান সাংবাদিকদের জানান, স্থানীয় আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ একটি গ্রুপ খেলার মাঠের অতিথিদের অনুষ্ঠানমঞ্চ ভাংচুর করায় খেলাটি প- হয়ে যায়। পরে দুটি গাড়িতে করে সেখান থেকে ফেরার পথে বিকেল ৪টার দিকে ওই ইউনিয়নের বাঁশমঙ্গল এলাকায় পৌঁছামাত্র ১০-১২টি মোটরসাইকেলযোগে আসা দুর্বৃত্তরা পথে ব্যারিকেড দিয়ে হামলা চালায়। তারা এলোপাতাড়ি গুলি চালায় এবং ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে দুটি গাড়ি ভাংচুর করে। এ সময় কামাল চৌধুরী বুকে ও মাথায় গুলিবিদ্ধ হন। ইটপাটকেলের আঘাতে গাড়িচালক কামাল ও শফিকুল ইসলাম আহত হন। গুরুতর আহত কামাল চৌধুরীকে প্রথমে কুমিল্লার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে সন্ধ্যায় তাকে ঢাকা পাঠানো হয়। এ ঘটনার জন্য মাসুদ পারভেজ খান ইমরান প্রতিপক্ষ গ্রুপের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস ও মহানগর যুবলীগ নেতা আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ ও তার গ্রুপকে দায়ী করেন। এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ জানান, আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না। তবে আমাদের ছেলেরা ফুটবল খেলা দেখতে যাওয়ার পথে বাঁশমঙ্গল এলাকায় ইমরান খানের নেতৃত্বে গুলি চালানো হয়। এতে ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্রলীগ নেতা কাউসার গুরুতর আহত হন। তাকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নগরীতে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মোঃ খোরশেদ আলম জানান, ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ ও গুলির ঘটনায় কামাল চৌধুরী এবং কাউসার নামে দু’জন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন। সন্ধ্যা পৌনে ৭টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় কেউ মামলা দায়ের করেননি।

প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারী ২০১৫

১৭/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: