কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঘটনা-দুর্ঘটনার বছর

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫
  • তালেবানী হামলায় শতাধিক শিশুর মৃত্যু

ঘটনাটি বছরের শেষ দিকের। ১৬ ডিসেম্বর পেশোয়ারে সেনা পরিচালিত একটি স্কুলে তালেবান জঙ্গীরা আত্মঘাতী হামলা চালিয়ে স্কুলের স্টাফসহ ছাত্রছাত্রীদের নারকীয়ভাবে হত্যা করে। মোট ১৪১ জন প্রাণ হারায়। তন্মধ্যে ১৩২ জন ছিল ছাত্রছাত্রী এবং তাদের বয়স ছিল ৮ থেকে ১৮ বছর। জঙ্গীরা ঝড়ের বেগে স্কুলে ঢুকে স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রের গুলি চালিয়ে নির্বিচার হত্যাযজ্ঞ চালায়। তারা কয়েকজন শিক্ষককে জ্যান্ত পুড়িয়ে মারে এবং কিছু ছাত্রকে সে দৃশ্য দেখতে বাধ্য করে।

বোকো হারামের হৃদয়হীনতা

সন্ত্রাসী ইসলামী সংগঠন বোকো হারাম ১৪ এপ্রিল নাইজিরিয়ার চিবক শহরের একটি সরকারী স্কুল থেকে ২৭৬ জন ছাত্রীকে অপহরণ করে ট্রাকে তুলে নিয়ে চলে যায়। বোকো হারাম নারী শিক্ষার বিরোধী। তারা গোটা নাইজিরিয়ায় শরিয়তী আইন চালু করতে চায়। মেয়েদের তারা তাদের ঘাঁটি এলাকা সাম্বিসা অরণ্যে নিয়ে গেছে বলে ধারণা করা হয়। অপহরণকালে বেশ কিছু বাড়িঘরও জ্বালিয়ে দেয় জঙ্গীরা। জানা গেছে, অপহৃত ছাত্রীদের ৫৯ জন পালাতে পেরেছে। বাকিদের পাচক, পরিচারিকা ও যৌনদাসী হিসেবে কাজ করতে বাধ্য করা হয়েছে।

মালয়েশীয় বিমানের রহস্যময় অন্তর্ধান

১৪টি দেশের ২২৭ জন যাত্রী এবং ১২ জন ক্রু নিয়ে মালয়েশিয়ার একটি বিমান ৮ মার্চ কুয়ালালামপুর থেকে বেজিংয়ের উদ্দেশে রওনা হয়ে নিখোঁজ হয়ে যায়। বিমানটি দুর্ঘটনাকবলিত হয়েছে কিনা তার কোন নিদর্শন পাওয়া যায়নি। এই রহস্যময় ঘটনার আজ পর্যন্ত কোন সুরাহা হয়নি। এটি সমুদ্রে আছড়ে পড়েছে ধারণা করে সম্ভাব্য সাগর তলদেশে আতিপাতি সন্ধান করেও কোন হদিস মিলেনি। বিমানটির শেষ জ্ঞাত অবস্থান ছিল থাইল্যান্ড উপসাগরের ইগারি পয়েন্ট। ঘটনাটি শুধু রহস্যের নয়, নানা ধরনের ব্যাখ্যারও জন্ম দিয়েছে। জুলাই মাসে আরেক মালয়েশীয় বিমানকে পূর্ব ইউক্রেনে গুলি করে ভূপাতিত করা হলে আরোহী ২৯৮ জনের সবাই নিহত হয়। সর্বশেষ, ২৮ ডিসেম্বর মালয়েশিয়ার মালিকানাধীন এয়ার এশিয়ার কিউজেড ৮৫০১ ফ্ল্যাইটের একটি এয়ারবাস ১৬২ জন যাত্রীসহ বিধ্বস্ত হয়।

গাজায় নারী ও শিশুর হত্যাযজ্ঞ

বছরের আরেক আলোচিত ঘটনা হলো গাজায় ইসরাইলী হামলা ও নারকীয়তা। জুন মাসে নিখোঁজ ৩ ইসরাইলী কিশোরের লাশ পশ্চিম তীরে পাওয়াকে কেন্দ্র করে ইসরাইলÑফিলিস্তিন যুদ্ধবিরতি ভেঙ্গে যায় এবং দু’পক্ষের মধ্যে নতুন করে সংঘর্ষ শুরু হয়। ইসরাইল গাজায় ব্যাপক বোমাবর্ষণ করে এবং হামাস পাল্টা রকেট হামলা চালায়। ইসরাইলের বিমান হামলা এত নির্বিচার ও বর্বরোচিত রূপ পরিগ্রহ করে যে, সেখানে রীতিমতো রক্তগঙ্গা বয়ে যায়। ১৭৭৭ জন ফিলিস্তিনী প্রাণ হারায়, যাদের সিংহভাগ ছিল শিশু ও নারী। এই হামলা ৫১ দিন স্থায়ী হয়েছিল।

রাশিয়ার ক্রিমিয়া দখল

২০১৪ সালের নজরকাড়া একটি ঘটনা ছিল ইউক্রেনে গণঅভ্যুত্থান এবং তারই জের ধরে অবশেষে রাশিয়ার ক্রিমিয়া দখল। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভিক্টর ইয়ানুকোভিচ ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে সমঝোতার পথ পরিত্যাগ করলে সেখানে গণআন্দোলনের প্রবল জোয়ার সৃষ্টি হয়। আন্দোলন তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠলে প্রেসিডেন্ট ইয়ানুকোভিচ সেনাবাহিনী লেলিয়ে দেন এবং তাতে শতাধিক বিক্ষোভকারী প্রাণ হারায়। পরিস্থিতির অবনতির মুখে ২২ ফেব্রুয়ারি প্রেসিডেন্ট রাজধানী থেকে পালিয়ে যান। নয়া সরকার ক্ষমতায় আসে। এদিকে ইউক্রেনের আন্দোলন ক্রিমিয়া সঙ্কটের জন্ম দেয়। ক্রিমিয়ার জনগোষ্ঠীর সিংহভাগ রুশ। তারা ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হবার দাবি তোলে। এ অবস্থায় ২৭ ফেব্রুয়ারি রুশবাহিনী ক্রিমিয়া দখল করে নেয়। পরে তথাকথিত গণভোট অনুষ্ঠান করে ক্রিমিয়াকে রাশিয়ার অঙ্গীভূত করা হয়। ক্রিমিয়া দখল করা নিয়ে পাশ্চাত্যের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্কের অবনতি ঘটে। রাশিয়ার বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক অবরোধ দেয় যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা দেশগুলো। পণ্য সঙ্কট দেখা দেয় রাশিয়ায়। তেলের দর পড়ে যায়। রুবলের দরপতন ঘটে। ক্রিমিয়া সঙ্কট নিয়ে ফিরে আসে স্নায়ুযুদ্ধের অবস্থা ।

আইএস’র নাটকীয় উত্থান

২০১৪ সালের একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা হলো ইসলামী স্টেট বা আইএস’র নাটকীয় উত্থান। আগে এর নাম ছিল ইসলামী স্টেট অব ইরাক এ্যান্ড সিরিয়া বা সংক্ষেপে আইসিস। এটি একটি মৌলবাদী ইসলামী জঙ্গী গোষ্ঠী। সিরিয়া ও ইরাকের অস্থির পরিস্থিতির সুযোগে এরা উভয় রাষ্ট্রের বিশাল ভূখ- দখল করে ইসলামী স্টেট বা খিলাফত প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছে। আইএস’র যোদ্ধার সংখ্যা এখন প্রায় ৩০ হাজার। এর মধ্যে বেশ কিছু বিদেশীও আছে। আইএস যোদ্ধারা তাদের হিংস্রতা ও নিষ্ঠুরতার জন্য কুখ্যাতি অর্জন করেছে। শত্রুকে গলা কেটে মেরে ফেলাসহ নানা ধরনের নিষ্ঠুর কর্মকা- তারা চালিয়ে থাকে। ইরাকের কিছু গুরুত্বপূর্ণ তেলকূপ এদের নিয়ন্ত্রণে।

দক্ষিণ কোরিয়ার ফেরি ট্র্যাজেডি

২০১৪ সালের অতি হৃদয়বিদারক একটি ঘটনা হলো ১৬ এপ্রিল ৪৭৬ জন যাত্রীসহ দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ফেরিডুবি। যাত্রীদের মধ্যে ৩২৫ জন ছিল একটি হাইস্কুলের ছাত্রছাত্রী। ছাত্রছাত্রীরা চারদিনের এক শিক্ষাসফরে বেরিয়েছিল। এই ট্র্যাজেডির দায়দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী পদত্যাগ করেন এবং স্কুলের এক শিক্ষক আত্মহত্যা করেন।

ভয়াবহ খনি দুর্ঘটনা

১৩ মে তুরস্কের সোমা এলাকায় এক কয়লাখনি দুর্ঘটনায় ৩০১ জন নিহত এবং ৮০ জন আহত হয়। দুই কিলোমিটার গভীরে বিস্ফোরণ এবং তার ফলে সৃষ্ট অগ্নিকা-ে তারা হতাহত হয়। বিস্ফোরণের কারণ এখনও পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি। নিহতরা সবাই কার্বন ডাই মনোক্সাইডের বিষক্রিয়ায় মারা যায়। দুর্ঘটনার সময় মাটির নিচে ৭৮৭ জন শ্রমিক ছিল। তার মধ্যে ৪৮৬ জন প্রাণে বেঁচেছে। তুরস্কের ইতিহাসে এটা ভয়াবহতম খনি দুর্ঘটনা। একবিংশ শতকে এখন পর্যন্ত এর চেয়ে বড় খনি দুর্ঘটনা আর ঘটেনি।

মঙ্গলগ্রহে মঙ্গলায়ন

এসব দুর্ঘটনা ও বিপর্যয়ের মধ্যেও ২০১৪ সালে মানুষের বড় কিছু অর্জনের খবরও অবশ্যই আছে। যেমন ভারতের পাঠানো মঙ্গলায়ন কৃত্রিম উপগ্রহ ২৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলের কক্ষপথে পৌঁছেছে। ওই গ্রহে ভারতের পাঠানো এটাই প্রথম নভোযান। এর আগে রাশিয়া হোক, আমেরিকা হোক কোন দেশই প্রথম চেষ্টায় মঙ্গলে নভোযান পাঠাতে সফল হয়নি। ওদিকে মঙ্গলের বায়ুম-ল পরীক্ষায় নাসার প্রেরিত মাভেন নভোযান ২২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলের কক্ষপথে পৌঁছে।

রোসেটার ঐতিহাসিক সাফল্য

এদিকে মহাকাশে এক দশক ধরে পথ পরিক্রমার পর ইউরোপীয় মহাকাশ সংস্থার (ইএসএ) পাঠানো নভোযান রোসেটা গত ৬ আগস্ট একটি ধূমকেতুর বুকে নেমে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। কারণ এই প্রথম কোন নভোযান ধূমকেতুর বুকে ভিড়ল। ধূমকেতুর অভিমুখে যাওয়ার পথে রোসেটা দু’দুটো গ্রহাণুর পাশ দিয়ে গিয়েছিল।

স্কটল্যান্ডে গণভোট

স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতা প্রশ্নে বহু প্রতীক্ষিত গণভাট গত ১৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। মোট ৩৬ লাখেরও বেশি ভোটার ভোট দেয়। স্কটল্যান্ড কি স্বাধীন দেশ হবেÑ এই প্রশ্নে ৫৫ শতাংশ ভোটার না সূচক এবং ৪৪.৭ শতাংশ ভোটার হ্যাঁ সূচক ভোট দেয়। ফলে স্কটল্যান্ড যুক্তরাজ্যের অংশ হিসেবেই থেকে যায়।

মোদির উত্থান

২০১৪ সালে ভারতের লোকসভা নির্বাচন ছিল বছরের অন্যতম আলোচিত ঘটনা। সেই নির্বাচনে কংগ্রেসকে অতি শোচনীয়ভাবে পরাজিত করে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি বিপুল ভোটে জয়লাভ করে। জনগণ দুর্নীতি, অপশাসন ও বংশীয় শাসনের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছে, এই ছিল মিডিয়ার বিশ্লেষণ। নরেন্দ্র মোদি ভারতের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আবির্ভূত হয়ে উন্নয়নের ওপর জোর দেন।

কাশ্মীরে ভয়াবহ বন্যা

সেপ্টেম্বরের শুরুতে অবিরাম প্রবল বর্ষণে ভারতের জম্মু কাশ্মীর এবং পাকিস্তানের গিলগিট-বাল্টিস্তান, আজাদ কাশ্মীর ও পাঞ্জাবে ভয়াবহ বন্যা দেখা দেয়। ৬০ বছরের মধ্যে এমন বন্যা আর হয়নি। সহায়সম্পদের অকল্পনীয় ক্ষয়ক্ষতি হওয়া ছাড়াও, বন্যায় ভারতীয় এলাকায় ২৭৭ এবং পাকিস্তান এলাকায় ২৮০ ব্যক্তির প্রাণহানি ঘটে।

বিশ্বকাপ ফুটবল

১২ জুন থেকে ১৩ জুলাই পর্যন্ত ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত হয় বিশ্বকাপ ফুটবল প্রতিযোগিতা। জার্মানি এ প্রতিযোগিতায় শিরোপা জয় করে। বিশ্বের কোটি কোটি দর্শক মাসব্যাপী এই প্রতিযোগিতা উপভোগ করে।

তেলের দরপতন

বিশ্ববাজারে তেলের দাম গত ৬ মাসে দারুণ হ্রাস পেয়েছে। এতে ভেনিজুয়েলার মতো তেলরফতানিকারক অনেক দেশের তেল থেকে অর্জিত আয় উল্লেখযোগ্য মাত্রায় হ্রাস পেয়েছে। তবে তেল আমদানিকারক দেশগুলো যথেষ্ট স্বস্তিবোধও করেছে। ২০১০ সাল থেকে ২০১৪ সালের মাঝামাঝি পর্যন্ত বিশ্ববাজারে তেলের দাম মোটামুটি স্থিতিশীল ছিল। ব্যারেল প্রতি দর ছিল ১১০ ডলার। কিন্তু জুন থেকে দর পড়তে পড়তে অর্ধেকে নেমে এসেছে। এখন ব্যারেল প্রতি চলছে ৬০ ডলারের কম। অনেক দেশে মন্দার কারণে চাহিদা হ্রাস পাওয়ায় এবং অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে তেল উৎপাদন বেড়ে চলায় মূল্য হ্রাস পেয়েছে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা।

কিউবা-মার্কিন সম্পর্ক

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা সম্প্রতি ঘোষণা করেছেন যে, যুক্তরাষ্ট্র কিউবার সঙ্গে পূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনর্প্রতিষ্ঠা করবে। যুক্তরাষ্ট্র ৫০ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে প্রথমবারের মতো হাভানায় দূতাবাস খুলবে। এদিকে ৫৪ বছরের পুরনো বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার ব্যাপারে দু’পক্ষের মধ্যে আলাপ আলোচনা চলছে। মার্কিন-কিউবা বৈরিতা অবসানের পথে এ এক নাটকীয় অগ্রগতি।

ব্রিকস ব্যাংক

ব্রিকস উন্নয়ন ব্যাংক নামে একটি নতুন উন্নয়ন ব্যাংকের আত্মপ্রকাশ ২০১৪ সালের একটি তাৎপর্যপূর্ণ ঘটনা। ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা পরিচালিত এই ব্যাংক যুক্তরাষ্ট্রের আধিপত্যাধীন বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিলের বিকল্প হিসেবে কাজ করে এ দুটি প্রতিষ্ঠানের প্রতি গুরুতর চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

রবিন উইলিয়ামসের আত্মহত্যা

ছোট ও বড় পর্দায় অভিনযের মধ্য দিয়ে যিনি সারা জীবন মানুষকে হাসিয়েছেন ও আনন্দ দিয়েছেন, সেই রবিন উইলিয়ামস গত আগস্ট মাসে নিজের বাসার বেড রুমে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তিনি পারনিকসনস রোগে ভুগছিলেন বলে জানা গেছে।

দুটি স্মরণীয় বার্ষিকী

গত ১৫ আগস্ট পানামা খাল চালুর শততম বার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। ১৯১৪ সালে চালু হবার পর থেকে এ পর্যন্ত এই খাল দিয়ে ১০ লাখেও বেশি জাহাজ চলাচল করেছে। আজ এই খাল দিয়ে দৈনিক ৪০টির মতো জাহাজ আসা যাওয়া করে। ওদিকে বার্লিন প্রাচীর ভাঙ্গার ২৫তম বার্ষিকী পালিত হয়েছে গত ৯ নবেম্বর। ১৯৬১ থেকে ১৯৮৯ পর্যন্ত দীর্ঘ ২৮ বছর এই প্রাচীরটি স্নায়ুযুদ্ধের স্বাক্ষর হিসেবে দাঁড়িয়েছিল।

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫

০১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: