কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজশাহীতে নাশকতার আসামিরা প্রকাশ্যে

প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৪
  • পুলিশের চোখে পলাতক

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ নাশকতা ও পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশের চোখে তারা পলাতক । রহস্যজনক কারণে পুলিশ তাদের ধরছে না। অথচ পুলিশের সামনেই বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে চলেছে। সম্প্রতি দুই দফায় বিএনপি-জামায়াতের ১৯৫ নেতাকর্মীকে পলাতক দেখিয়ে ‘হুলিয়া’ জারি করেছে রাজশাহী মহানগর স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল।

গত দুই বছরে ২০ দলীয় জোটের নানা আন্দোলন কর্মসূচীতে উত্তপ্ত ছিল রাজশাহী। বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সদস্যদের সংঘর্ষ ছিল নিত্যদিনের। এরমধ্যে নগরীর শালবাগান এলাকায় উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীরের ওপর হামলা, রানীবাজার এলাকায় শিক্ষানবিস উপ-পরিদর্শক মকবুলের ওপর ককটেল নিক্ষেপ ও লোকনাথ স্কুল মোড়ে বোমা হামলায় কনস্টেবল সিদ্ধার্থ সরকার হত্যার ঘটনা দেশজুড়ে আলোচিত হয়।

এ সব ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে বিএনপি-জামায়াতের সাড়ে তিন হাজার নেতাকর্মীকে আসামি করে আড়াই শ’ মামলা করে। ইতোমধ্যে ১৫টি মামলার বিচার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। জানা গেছে, গত বছরের ১ এপ্রিল নগরীর শালবাগান এলাকায় এসআই জাহাঙ্গীরের ওপর হামলার ঘটনায় বিস্ফোরক আইনে দায়ের করা মামলাসহ মোট ১২টি মামলায় ২৫ নবেম্বর ও ২ ডিসেম্বর জামায়াত-শিবিরের ১৯৫ নেতাকর্মীকে পলাতক দেখিয়ে হুলিয়া জারি করা হয়। ১৫ দিনের মধ্যে ওই সব আসামিকে হাজির করতে নির্দেশ দেয় আদালত। আসামিদের মধ্যে রয়েছেন, রাজশাহী নগর জামায়াতের সেক্রেটারি ডাঃ জাহাঙ্গীর আলম, সহ-সেক্রেটারি এমাজ উদ্দিন ম-ল ও সাবেক সহকারী সেক্রেটারি সিদ্দিক হোসাইন, রাবি শাখা শিবির সভাপতি আশরাফুল আলম ইমন, নগর ছাত্রশিবিরের সভাপতি ডাঃ আনোয়ারুল ইসলাম, কাটাখালি পৌর জামায়াতের আমির মাজেদুর রহমান মাজেদ, ১৩নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি রবিউল ইসলাম মিলু, মহানগর যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম মানিক, শিবির ‘ক্যাডার’ জসিম উদ্দিন, জামায়াত নেতা আ স ম শাহীন, রাবি শিক্ষক আমিরুল ইসলাম, জাফর বাবু, সালেকিন, টাকু শাহীন, কামারুজ্জামান রাজু, অধ্যাপক গিয়াস উদ্দিন, বোমা তোফা, মন্টু গোধা, মতিহার থানা জামায়াতের সাবেক সেক্রেটারি চিনি গিয়াস, ইতি, আশরাফুল ইসলাম ও আবু বাক্কার।

এদের মধ্যে রাজশাহী মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারি ডাঃ জাহাঙ্গীর আলম, সহ-সেক্রেটারি এমাজ উদ্দিন ম-ল ও রাবি শিবিরের সভাপতি আশরাফুল আলম ইমনের বিরুদ্ধে পুলিশ কনস্টেবল সিদ্ধার্থ সরকার হত্যাসহ অর্ধশতাধিক মামলা রয়েছে। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ইফতেখায়ের আলম পুলিশের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, পুলিশ হত্যাসহ বিভিন্ন মামলার চিহ্নিত বিএনপি-জামায়াত নেতাকর্মীদের ধরতে পুলিশ তৎপর। নগরীর বিভিন্ন এলাকায় ইতোমধ্যে কয়েকবার অভিযান চালানো হচ্ছে। সেই সঙ্গে গোয়েন্দারাও তৎপর।

প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৪

১২/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: