মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

নয়াপল্টনে আগুন জ্বেলে ছাত্রদলের পদবঞ্চিতদের বিক্ষোভ

প্রকাশিত : ৪ ডিসেম্বর ২০১৪
  • বিএনপি অফিসের আশপাশে আতঙ্ক

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ছাত্রদলের নতুন কমিটি বাতিলের দাবিতে বুধবার নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বেলে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে পদবঞ্চিতরা। এ কারণে বিএনপি কার্যালয়ের আশপাশের এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে কিছু সময়ের জন্য রাস্তায় যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশ এসে বিক্ষোভকারীদের ধাওয়া করলে তারা সরে পড়ে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

বুধবার বিকেল ৩টার দিকে শতাধিক পদবঞ্চিত নেতাকর্মী বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে গিয়ে জড়ো হয়ে প্রথমে ছাত্রদলের কমিটি থেকে আদুভাই ও খুনীদের বাদ দিয়ে প্রকৃত ছাত্রদের নিয়ে কমিটি পুনর্গঠনের দাবি জানায়। সেই সঙ্গে তারা দুর্নীতি করে অছাত্রদের দিয়ে কমিটি গঠন করার দায়ে বিএনপির ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি ও সহ-ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর পদত্যাগ দাবি করেন। আর ছাত্রদলের দায়িত্ব বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে নেয়ার আহ্বান জানান। বিকেল ৪টার দিকে তারা রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

বুধবারের বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেন পদবঞ্চিত ছাত্রদল নেতা ফেরদৌস মুন্না, তরুণ দে, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, তারিকুল ইসলাম টিটু প্রমুখ।

১৪ অক্টোবর ছাত্রদলের নতুন কমিটি গঠনের পরদিন থেকে ছাত্রদলের পদবঞ্চিতরা নয়াপল্টন এলাকায় দফায় দফায় বোমা বিস্ফোরণসহ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রবেশ করে ভাংচুর চালিয়েছে। এমনকি বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের গেটে থাকা জিয়াউর রহমানের ম্যুরালও ভেঙ্গেছে এবং চতুর্থ তলায় ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে। এ ছাড়া বিক্ষোভ প্রদর্শনকালে তারা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের কয়েক নেতাকে নাজেহাল করেছে। ছাত্রদলের কমিটি গঠনের সঙ্গে জড়িত বিএনপি নেতা শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি ও সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর কুশপুতুলও দাহ করেছে পদবঞ্চিতরা। এমনকি একদিন বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে গিয়েও তারা ছাত্রদলের নতুন কমিটি বাতিল ও বিএনপি থেকে শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি ও সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর পদত্যাগ দাবি করে মিছিল করেছে। বেশ ক’দিন বিক্ষোভ প্রদর্শনের পর বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার নির্দেশে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ কতিপয় নেতার অনুরোধে তারা বিক্ষোভ কর্মসূচী স্থগিত করে।

৭ নবেম্বর শেরেবাংলানগর জিয়ার মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যাবার পথে বিএনপির ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি ও সহ-সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর গাড়িতে হামলা করে ছাত্রদলের পদবঞ্চিতরা। এ কারণে ছাত্রদলের পদবঞ্চিত ৩ নেতাকে বহিষ্কার ও ৫ নেতাকে কারণ দর্শাও নোটিস দেয়া হয় বিএনপির পক্ষ থেকে। এ ঘটনার পরদিন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গিয়ে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর কাছে কারণ দর্শাও নোটিসপ্রাপ্ত ছাত্রদলের পদবঞ্চিত ৫ নেতা বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গিয়ে কারণ দর্শাও নোটিসের জবাব দেন। সেই সঙ্গে তারা রিজভীকে জানিয়ে আসেন, পদবঞ্চিত ৩ নেতার বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহার ও ছাত্রদলের নতুন কমিটি পুনর্গঠন না করা হলে আবারও তারা আন্দোলন শুরু করবেন। এর পর ১৫ নবেম্বর বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের চতুর্থতলায় ছাত্রদল কার্যালয়ে যান পদবঞ্চিতরা। তারা সেখানে বসেই ১৬ নবেম্বর থেকে আবার আন্দোলন শুরু করার ঘোষণা দেন। তবে প্রকাশ্যে আন্দোলন শুরু না করলেও সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে ১৬ নবেম্বর দুপুরে তারা সেখানে ৪টি বোমা বিস্ফোরণ করে নতুন কমিটি বাতিলের পক্ষে দাবি জোরদার করে। এর পর ১৭ ও ১৮ নবেম্বর বিক্ষোভ প্রদর্শন করে কিছুদিন বিরতি দিয়ে আবার ২৬ নবেম্বর থেকে শুরু করে বুধবার পর্যন্ত টানা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে ছাত্রদলের পদবঞ্চিতরা।

১৮ ডিসেম্বর নব্বইয়ের দশকের ছাত্রনেতাদের নিয়ে বিএনপির কনভেনশন ॥ সরকারবিরোধী আন্দোলনে যাওয়ার আগে ১৮ ডিসেম্বর নব্বইয়ের দশকের ছাত্রনেতাদের নিয়ে জাতীয় কনভেনশন করবে বিএনপি। রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে এ কনভেনশন। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।

নব্বয়ের ছাত্রনেতাদের নিয়ে ১৮ ডিসেম্বরের কনভেনশন সফল করতে সাবেক ডাকসু ভিপি ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে বুধবার দুপুরে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে একটি প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রস্তুতিসভা শেষে আমান উল্লাহ আমান সাংবাদিকদের জানান, ’৯০-এ ডাকসুর নেতৃত্বে ওই সময় সারাদেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নির্বাচিত ছাত্র সংসদ নেতাদের নিয়ে জাতীয় কনভেনশন হবে। এছাড়াও এতে অংশ নেবেন ’৯০-এ ডাকসুর নেতৃবৃন্দ ও স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনে গঠিত সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের নেতারা। কনভেনশনে তৎকালীন স্বৈরশাসক এরশাদবিরোধী আন্দোলনের এসব তুখোড় নেতার ভূমিকা ও অভিজ্ঞতা বর্তমান ছাত্রনেতাদের সঙ্গে বিনিময় হবে।

আমান বলেন, এ কনভেনশনে মূলত ’৯০-এর দশকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নির্বাচিত ভিপি, জিএস ও এজিএস ছাড়াও বর্তমানের বিভিন্ন জেলা, থানার ছাত্রদল সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা অংশ নেবেন। সঙ্গে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল নেতারাও এতে যোগ দেবেন। কনভেনশনকে সামনে রেখে কয়েকদিনের মধ্যে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করা হবে। সেখানে এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে।

আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে কনভেনশন প্রস্তুতিসভায় আরও অংশ নেন ছাত্রদল সাবেক সভাপতি ও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বিএনপির সহ-তথ্য গবেষণাবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, ডাকসুর সাবেক এজিএস ও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজিম উদ্দিন আলম, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, আবদুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রশিদ হাবিব, বর্তমান সভাপতি রাজিব আহসান ও সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান।

বিএনপির সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম চলবে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ॥ ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশব্যাপী সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু করেছে বিএনপি। তা চলবে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, দলকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করার পাশাপাশি আগামী দিনে জাতীয় নির্বাচনের দাবিতে সরকার পতন আন্দোলন বেগবান করতে বিজয়ের মাস ডিসেম্বরকে দলের সাংগঠনিক মাস হিসেবে ঘোষণা করেছে বিএনপি। নির্ধরিত ফরম পূরণের মাধ্যমে নতুন সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।

বিএনপিকে বাদ দিয়ে ফের নির্বাচনের পরিকল্পনা চলছেÑনোমান ॥ বিএনপিকে বাদ দিয়ে ফের নির্বাচনের পরিকল্পনা চলছে বলে অভিযোগ করেছেন দলের ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান। বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে দেশ বাঁচাও, মানুষ বাঁচাও আন্দোলন নামক একটি সংগঠন আয়োজিত এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, শেখ হাসিনা গণতন্ত্রের কবর রচনা করেছেন।

প্রকাশিত : ৪ ডিসেম্বর ২০১৪

০৪/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: