ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১

যে কারণে জমজম কূপ মুসলিমদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ

প্রকাশিত: ১৫:৫৬, ১৪ জুন ২০২৪

যে কারণে জমজম কূপ মুসলিমদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ

জমজম কূপ

সৌদি আরবের মক্কায় মসজিদুল হারামের ভেতরে অবস্থান জমজম কূপের। সারা বিশ্বের কোটি কোটি মুসলিম জমজম কূপের পানিকে ‘অত্যন্ত পবিত্র’ এবং ‘অলৌকিক ক্ষমতাসম্পন্ন’ বলে মনে করেন।

প্রতি বছর যে লাখ লাখ মুসলিম হজ বা ওমরাহ পালন করতে সৌদি আরবে যান তাদের বেশির ভাগই জমজম কূপের পানি নিয়ে দেশে ফেরেন। হজ পালন করে এসেছেন অথচ জমজম কূপের পানি আনেনি এমন মানুষ বেশ বিরল।

মুসলিমদের বিশ্বাস, হাজার হাজার বছর আগে নবী ইব্রাহিমের স্ত্রী হাজেরা ও ছেলে ইসমাইলের পানির তৃষ্ণা মেটানোর জন্য আল্লাহ এই কূপটি সৃষ্টি করেছিলেন। কোরআনের সুরা ইব্রাহিমে এই কূপটি সৃষ্টির প্রেক্ষাপট বর্ণনা করা হয়েছে। এছাড়া ইসলামের বিভিন্ন ইতিহাসের বইয়ে এর গল্পটি তুলে ধরা হয়েছে।

ইসলামের ইতিহাসবিদরা বলছেন, আল্লাহর নির্দেশে অনুর্বর মরুভূমিতে ইব্রাহিম শিশুপুত্রসহ মা হাজেরাকে রেখে আসেন। এর উদ্দেশ্য হল এর মাধ্যমে মক্কা জায়গাটা আবাদ হবে, কাবাঘর পুনর্নির্মাণ হবে, জমজম চালু হবে, কাবাঘরে মানুষ হজ করতে আসবে। মূলত এই কৌশলের অংশ হিসেবে জমজম কূপের সৃষ্টি হয়।

জমজম কূপ মুসলিমদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ কেন?
বাংলাদেশের ইসলামি-আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মুহাম্মদ আব্দুর রশীদ বলেন, ‘কাবাঘর পুনর্নির্মাণের পর আল্লাহর আদেশে বিশ্ববাসীকে হজের দাওয়াত দিয়েছিলেন ইব্রাহিম। এর হজের ইতিহাসের সাথে জমজমের ইতিহাস অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত।’

‘তবে হজের সময় জমজম কুয়ার কাছে উপস্থিত হওয়া বা পানি পান করা হজের আহকাম, আরকান বা ফরজ – ওয়াজিবের অন্তর্ভুক্ত নয়। হজের অংশ হিসেবে তাওয়াফের পরে সাঈর আগে হাজীরা মহানবীর সুন্নত হিসেবে পানি পান করেন।’

মুসলিম ইতিহাসবিদ ইমাম তাবারানির ‘আল মুজামুল কাবির’ গ্রন্থে বলা হয়েছে, মুসলিমদের নবী মুহাম্মদ নিজেই জমজমের পানিকে শ্রেষ্ঠ পানি হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন- ‘জমজম পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ পানি। এতে রয়েছে খাদ্য ও রোগ থেকে মুক্তি।’

মি. রশীদ বলেন, ‘এটি আল্লাহ প্রদত্ত একমাত্র কুয়া পৃথিবীতে, আর নেই। ফলে মুসলিমরা বিশ্বাস করে আল্লাহর রহমতের এ পানি খেলে রোগ-বালাই, বিপদ - আপদ মুক্ত হবে। তাই এটি হাজীরা নিয়ে আসে ও বিশ্বাস থেকে পান করেন। এসব কারণে জমজমের গুরুত্ব এতো বেশি। এমনকি হাদিসেও এর ফজিলত বর্ণনা করা হয়েছে।’

সূত্র: বিবিসি। 

বারাত

×