কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কিরণমালা মধুবালা

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৫
  • তৌফিক অপু

দিন যত যাচ্ছে ততই ঘনিয়ে আসছে ঈদের সময়। এখন পুরোদমে চলছে ঈদের কেনাকাটার ধুম। যে যার সাধ্যমতো সংগ্রহ করছে পছন্দসই পণ্য। শপিংমল থেকে শুরু করে ফুটপাথ পর্যন্ত যেন লোকে লোকারণ্য। ঈদ কেনাকাটার মধ্যে সবার আগে বাজেটে ঠাঁই পায় পোশাক-আশাক। নতুন জামা ছাড়া যেন ঈদ কল্পনাই করা যায় না। তাই তো ছোট বড় সবাই ব্যস্ত থাকে পছন্দমতো পোশাক কেনাকাটায়। আর ঈদকে কেন্দ্র করে শপিংমলগুলো সেজেছে বর্ণিল সাজে। তবে সবচেয়ে বেশি নজর কাড়ছে মেয়েদের পোশাক। এর মধ্যে সালোয়ার কামিজ অন্যতম। সত্যিকার অর্থেই সালোয়ার কামিজের ভেরিয়েশন এবার চোখে পড়ার মতো। প্রতিবারের ন্যায় এবারও সালোয়ার কামিজগুলো সেজেছে ভিন্ন ভিন্ন নামে। এবং নামগুলো অবশ্যই বিভিন্ন জনপ্রিয় সিরিয়ালের নায়িকাদের নামানুসারে। গত কয়েক বছর ধরে পাখি ড্রেস নিয়ে কম মাতামাতি হয়নি। হুজুগে বাঙালীর পক্ষেই বুঝি এমন উন্মাদনা সম্ভব। কিছু কিছু ক্ষেত্রে যে মাত্রা ছাড়িয়ে যায়নি তা নয়। তবে পোশাক নিয়ে এত বেশি মাতামাতি কখনই কাম্য নয়। এবারের সালোয়ার কামিজের টাইটেলে শোভা পাচ্ছে কিরণমালা, মধুবালার নাম। শপিংমলগুলো ঘুরে দেখা গেছে যে কোন টাইপের (বুটিক টাইপের ছাড়া) সালোয়ার কামিজগুলোতে আকর্ষণ ছড়াতে নাম রাখা হয়েছে কিরণমালা, মধুবালা। মানুষও হুমড়ি খেয়ে কিনছে পোশাকগুলো। গুণগত মান অনুযায়ী একেক সালোয়ার কামিজের দাম একেক রকম। কোথাও কোথাও কিরণমালা-মধুবালা বিক্রি হচ্ছে ১৫০০-২২০০ টাকায় আবার কোথাও কোথাও ৩২০০ থেকে ৭০০০ টাকা পর্যন্ত। কিছু কিছু আছে লাখ টাকার কাছাকাছি। এবারে আরেকটু ভিন্নতা এসেছে সালোয়ার কামিজে। কামিজের সঙ্গে ম্যাচ করা কোটি অন্যরকম দ্যুতি ছড়াচ্ছে। পুরো কামিজের ডিজাইন গিয়ে ভর করছে সেই কোটির ওপর গিয়ে। গর্জিয়াস কোটিই গুরুত্ব বহন করছে পুরো কামিজের। দাম পড়বে ১৮০০ টাকা থেকে ৭৫০০ টাকা। ছোটদের সালোয়ার কামিজেও দেখা মিলছে একই ডিজাইন।

ঈদের আনন্দে নতুন পোশাক অন্যরকম আবহ বহন করে ঠিকই, তবে খেয়াল রাখতে হবে কেনাকাটার সময় ব্যাপারগুলো যেন বাড়াবাড়ি পর্যায়ে না যায়। তাহলেই ঈদ হয়ে উঠবে অর্থবহ।

মডেল : আইরিন ও রিবা

পোশাক : কে ক্র্যাফট

প্রকাশিত : ৩ জুলাই ২০১৫

০৩/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: