মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কুমিল্লায় পেট্রোল বোমা ও ককটেলসহ ভার্সিটি ছাত্র আটক

প্রকাশিত : ২৯ জুন ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, কুমিল্লা, ২৮ জুন ॥ কুমিল্লায় ১০ পেট্রোল বোমা ও ১২ ককটেলসহ এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে আটক করেছে র‌্যাব। শনিবার গভীর রাতে চান্দিনা উপজেলা সদরের মৎস্য খামারের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয় বলে র‌্যাব দাবি করে। আটক ওয়াকিলুর রহমান অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ’র ছাত্র। এদিকে ওয়াকিলুর রহমান ও তার বন্ধু তানভীরকে ঢাকার উত্তর বারিধারা কালাচাঁদপুর গুলশান এলাকার ‘আলম ভিলা’ নামে একটি ভাড়া বাসা থেকে র‌্যাব পরিচয়ে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ডেকে নিয়ে যাওয়া হয় বলে গুলশান থানায় জিডি করেন ওয়াকিলুরের পিতা অধ্যক্ষ মবিনুর রহমান।

র‌্যাব ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাত পৌনে দু’টার দিকে র‌্যাব-১১ কুমিল্লা সিপিসি-২-এর টহল টিম ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনা উপজেলার সরকারী মৎস্য খামারের প্রধান ফটকের সামনে থেকে ওয়াকিলুর রহমানকে (২৪) আটক করে। এ সময় তার সঙ্গে থাকা একটি বস্তা থেকে ১০ পেট্রোল বোমা ও ১২ ককটেল উদ্ধার করে র‌্যাব। এ ঘটনায় রবিবার সকাল নয়টার দিকে র‌্যাব-১১-এর ডিএডি মনিরুজ্জামান বাদী হয়ে চান্দিনা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। আটক ওয়াকিলুর রহমান অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ’র ছাত্র। তার গ্রামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের মোবারকপুর গ্রামে।

ওয়াকিলুর রহমানের পিতা চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মবিনুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ভোর চারটার দিকে ছেলে ওয়াকিলুর রহমান ও তার বন্ধু গুলশান মার্কেটের ব্যবসায়ী তানভীরকে ঢাকার উত্তর বারিধারা কালাচাঁদপুর এলাকার ‘আলম ভিলা’ নামে ভাড়া বাসা থেকে র‌্যাব পরিচয়ে কালো ও সাদা পোশাকধারী একটি দল ডেকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। পরে তাদের আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে গত ২ মার্চ গুলশান থানায় মবিনুর রহমান একটি জিডি (নং-১৩৮) করেন। তিনি আরও জানান, গত ৪ মার্চ র‌্যাব-১১ সিপিসি-২ শাকতলা-কুমিল্লার একটি দল মেজর এজেডএম সাকিব সিদ্দিকীর নেতৃত্বে সদর দক্ষিণ উপজেলার বলরামপুর এলাকার একটি ব্রিক ফিল্ডের সামনে থেকে ওয়াকিলুর রহমানের বন্ধু মোঃ তানভীর আহম্মেদকে দুশ’ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক দেখায়। পরে সদর দক্ষিণ মডেল থানায় র‌্যাবের ডিএডি মিজানুর রহমান বাদী হয়ে মামলা (নং ৮) দায়ের করেন। তানভীর ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গার পানিপাড়া গ্রামের মোঃ নুরুল বাশার মিয়ার ছেলে। পরে তানভীরের তথ্যের ভিত্তিতে ওয়াকিলুর রহমানের পরিবার তখনই জানতে পারে ওয়াকিলুর হয়তো র‌্যাবের হাতেই রয়েছে। এতে মবিনুর রহমান তার ছেলেকে ফিরে পেতে র‌্যাবের সদর দফতরসহ আইন প্রয়োগকারী বিভিন্ন সংস্থার সহযোগিতা চেয়েও পাননি বলে সাংবাদিকদের জানান।

এদিকে র‌্যাব-১১ দাবি করে, শনিবার গভীর রাতে নাশকতার প্রস্তুতিকালে ওয়াকিলুর রহমানকে চান্দিনা থেকে আটক করা হয়। চান্দিনা থানার এসআই সাজেদুল ইসলাম জানান, শনিবার রাত দেড়টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনা এলাকায় র‌্যাব-১১ ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানি-২ কুমিল্লার র‌্যাব পরিদর্শক ডিএডি মোঃ মনিরুজ্জামান ওই যুবককে আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে ১০ পেট্রোল বোমা ও ১২ ককটেল উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব-১১ কুমিল্লার কমান্ডার মেজর খুরশিদ আলম জানান, আটক ওয়াকিলুর রহমানের নিখোঁজ কিংবা এর আগে থানায় জিডির বিষয়ে র‌্যাবের কাছে কোন তথ্য নেই। গ্রেফতারকৃত ওয়াকিলুর রহমানকে আদালতের মাধ্যমে রবিবার বিকেলে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৯ জুন ২০১৫

২৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: