মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

কক্সবাজারে লোনা পানিতে বোরো ক্ষেত নষ্ট

প্রকাশিত : ১ মার্চ ২০১৫
  • কৃষকের পাঁচ লাখ টাকা ক্ষতি

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ জেলার চকরিয়া খুটাখালী এলাকায় দাপট দেখিয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা চিংড়ি প্রকল্পের চাষ নিশ্চিত করতে লোনা পানি প্রবেশ করিয়ে নষ্ট করে দিয়েছে বহু কৃষকের বোরো চাষাবাদ। বর্তমানে লবণ পানিতে সয়লাভ হয়ে পড়েছে খুটাখালির বিশাল এলাকার বোরো ক্ষেত। এ ঘটনায় স্থানীয় কৃষকদের ৫ লাখ টাকার ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয় একাধিক কৃষক চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করেছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে উপজেলা কৃষি বিভাগের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম শুক্রবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

জানা গেছে, স্থানীয় কৃষক ও জনগণের যাতায়াত নিরাপত্তা ও জমিনের পানি নিষ্কাশনের জন্য জমির মধ্যখানে একটি চ্যানেল রয়েছে। ওই চ্যানেল হয়ে দীর্ঘদিন ধরে এলাকার চাষীরা পানি নিষ্কাশন সুবিধা নিয়ে জমিগুলোতে চাষ করে আসছে। চলতি মৌসুমে স্থানীয় প্রভাবশালীরা হঠাৎ করে পানি চলাচলের ওই চ্যানেলটি চিংড়ি প্রকল্পের সঙ্গে সম্পৃক্ত করে নেয়। এতে পানি নিষ্কাশনের গতিপথ বন্ধ হয়ে যায়। স্থানীয় কৃষকদের অভিযোগ, পানি নিষ্কাশনের গতিপথ বন্ধ করার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় প্রভাবশালীরা দাপট দেখিয়ে পাশের ধানী জমিতে চিংড়ি প্রকল্পে লবণ পানি ঢুকিয়ে দেয়। ফলে ওই এলাকার অন্তত ১০ একর বোরো ধান ক্ষেত বর্তমানে তলিয়ে গেছে লোনা পানিতে। লবণ পানি ঢুকিয়ে বোরো ক্ষেত নষ্ট করার অভিযোগে চিংড়ি চাষী নুরুল ইসলাম, ছৈয়দুল হক, মোহাম্মদ টিটু ও কফিল উদ্দিনকে অভিযুক্ত করে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, চিংড়ি প্রকল্পের মালিকরা মৎস্য চাষের জন্য লবণ পানি ঢুকানোর সময় পাশের বিপুল পরিমাণ বোরো ক্ষেত তলিয়ে গেছে। অভিযোগ তদন্তে সত্য প্রমাণিত হওয়ায় বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে রিপোর্ট দাখিল করা হবে।

টেকনাফে বৃদ্ধের হাত কেটে জিয়াবুল বাহিনীর উল্লাস

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ পূর্ব শক্রতার জের ধরে প্রতিশোধ নিতে ৬৫ বছরের বৃদ্ধ মোহাম্মদ আমিনের ডান হাত বিচ্ছিন্ন করে নিয়ে উল্লাস করেছে জিয়াবুল বাহিনীর সদস্য বিএনপি-যুবদল ক্যাডাররা। শুক্রবার রাতে টেকনাফের শাহপরী দ্বীপ উত্তর পাড়ায় ঘটে এ ঘটনা।

জানা যায়, শাহপরী দ্বীপের সাবেক চেয়ারম্যান মৃত নজির আহমদের পুত্র যুবদল নেতা জিয়াবুল তার সন্ত্রাসী বাহিনীসহ রাতে বৃদ্ধ মোহাম্মদ আমিনকে সাবরাং নয়াপাড়া থেকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে উত্তর পাড়ার এক বাগানবাড়ির পার্শ্ববর্তী নির্জন বিলে নিয়ে যায়।

সেখানে এক কুপে ঐ বৃদ্ধ ব্যক্তির ডান হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে মনের খায়েশ মিটিয়ে উল্লাস করে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসী জিয়াবুল বাহিনীর প্রধান যুবদল নেতা জিয়াবুল সাবরাং ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা ইসমাঈল মেম্বারের আপন ছোট ভাই। হাত কাটার কাজে জিয়াবুল, তার ছোট ভাই জাবেদ নজির, রহমত উল্লাহ, বার্মাইয়া শাহজাহানসহ ওই বাহিনীর আরও কয়েকজন জড়িত ছিল বলে জানায় স্থানীয়রা। আহত মোহাম্মদ আমিনের পুত্র ইব্রাহিম জানান, পূর্ব শক্রতার জের ধরে বাবার হাত কেটে প্রতিশোধ নিয়েছে জিয়াবুল বাহিনী। তার বৃদ্ধ পিতা বর্তমানে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে।

প্রকাশিত : ১ মার্চ ২০১৫

০১/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: