কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আদালত অবমাননা: শিবির সভাপতি-সম্পাদকের নি:শর্ত ক্ষমা প্রার্থণা

প্রকাশিত : ৩০ জুন ২০১৫, ০১:০৭ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুদ্ধাপরাধীদের রায় বিষয়ে ট্রাইব্যুনাল সম্পর্কে বিরুপ মন্তব্যের জন্য নি:শর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন ছাত্রশিবিরের সভাপতি আব্দুল জব্বার ও সাধারণ সম্পাদক মো. আতিকুর রহমান। তাদেরকে এ বিষয়ে সতর্ক করে ক্ষমা করে দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১।

মঙ্গলবার এ ব্যাপারে জারি করা রুলের নিষ্পত্তি করে এ আদেশ দেন চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল। আদেশে ভবিষ্যতে ট্রাইব্যুনাল ও তার বিচারিক কার্যক্রম সম্পর্কে কোনো ধরনের বিরুপ মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকতে শিবির নেতাদের সতর্ক করে দেয়া হয়।

গত ৪ মে জারি করা রুলে শিবিরের ওই দুই নেতার বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চাওয়া হয়েছিল। গত ১৪ জুন তাদের পক্ষে রুলের জবাব দাখিল করেন তাদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট এ ওয়াই মশিউজ্জামান।

একই অভিযোগসহ রায়ের বিরুদ্ধে হরতাল ডাকায় গত ১২ জানুয়ারি শো’কজ (কারণ দর্শাও) নোটিশ জারি করা হয়েছিল শিবিরের দুই নেতাসহ জামায়াত নেতাদের ‍আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম এবং তিন জামায়াত নেতার বিরুদ্ধেও। বিভিন্ন সময়ে ওই ছয়জন এ নোটিশের জবাব দেন। জবাবে নি:শর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করায় অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলামকে এবং ব্যাখ্যা গ্রহণযোগ্য হওয়ায় তিন জামায়াত নেতাকে গত ৪ মে ক্ষমা করে দেন ট্রাইব্যুনাল। একইসঙ্গে তাদেরকে ভবিষ্যতের জন্য এ ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকতে সতর্ক করে দেওয়া হয়।

ক্ষমাপ্রাপ্ত জামায়াত নেতারা হচ্ছেন- জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমেদ, ভারপ্রাপ্ত নায়েবে আমির মুজিবুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল ড. শফিকুর রহমান।

তবে দুই শিবির নেতার ব্যাখ্যা গ্রহণযোগ্য হয়নি উল্লেখ করে ওইদিন তাদের বিরুদ্ধে রুল জারি করা হয়।

প্রকাশিত : ৩০ জুন ২০১৫, ০১:০৭ পি. এম.

৩০/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: