ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

পিটার হাসকে হত্যার হুমকি: আওয়ামী লীগ নেতাসহ আটজনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত: ২২:১১, ২৯ নভেম্বর ২০২৩

পিটার হাসকে হত্যার হুমকি: আওয়ামী লীগ নেতাসহ আটজনের বিরুদ্ধে মামলা

রাষ্ট্রদূত পিটার হাস। ছবি: সংগৃহীত

এবার চট্টগ্রামে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাসকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে মামলা নেওয়ার আবেদন করা হয়েছে। এতে কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ফরিদুল আলম, চট্টগ্রামের বাঁশখালীর চাম্বল ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মুজিবুল হক চৌধুরীসহ আটজনকে আসামি করা হয়। বাকি ছয় আসামি হলেন- চাম্বল ইউপির সদস্য ইফতেখার উদ্দিন, মো. সাজ্জাদ, ইহসান, নাছির, ফরহাদ ও সাইফুল।

বুধবার (২৯ নভেম্বর) চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সালা উদ্দিনের আদালতে মামলার আবেদনটি করেন একটি মানবাধিকার সংগঠনের চট্টগ্রাম চ্যাপ্টারের সভাপতি এম এ হাশেম। তিনি ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহসভাপতি। 

বাদীর আইনজীবী ইরফান উদ্দিন বলেন, আদালত বাদীর বক্তব্য গ্রহণ করে আদেশের জন্য রেখেছেন।

মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এবং এর সহযোগী অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে ৬ নভেম্বর কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ফরিদুল আলম। সেই বক্তব্যের ২৮ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

ভিডিওতে ফরিদুল আলমকে বলতে শোনা যায়, ‌‌আপনারা জানেন, বাংলাদেশে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। কী একটা পাতিহাঁস আসছে। পিটার হাস, বদমাইশ। সে বিএনপির হয়ে যে অসভ্য কাজকারবারগুলো বাংলাদেশে করছে, তাকে পেলে জবাই করে মানুষকে খাওয়াইতাম। সেই পিটার হাস, বদমাইশ।

ফরিদুল আলম জানান, পিটার হাস আমাদের মেহমান। তাকে জবাই করে মানুষকে খাওয়ানোর বিষয়ে বক্তব্য দিইনি। ভিডিওর কথা উল্লেখ করা হলেও তিনি বক্তব্যের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

এর আগে ফরিদুল আলমসহ সাতজনের বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে পিটার হাসকে হত্যার হুমকির অভিযোগে মামলার আবেদন করেছিলেন এম এ হাশেম। ২৩ নভেম্বর আদালত তা খারিজ করে দেন।

 

এসআর

×