ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডে জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত: ১৪:১৭, ১ মার্চ ২০২৪; আপডেট: ১৪:২২, ১ মার্চ ২০২৪

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডে জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

অগ্নিকাণ্ডে জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

রাজধানীর বেইলি রোডে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। নিহত ওই শিক্ষার্থীর নাম মো. নুরুল ইসলাম। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএর সান্ধ্যকালীন কোর্সে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ২০১৮ সেশনের শিক্ষার্থী। 

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টার দিকে অগ্নিকাণ্ডের পর নিহতদের লাশ ও দগ্ধদের নিয়ে যাওয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজে। এ সময় নুরুল ইসলামের মানিব্যাগে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ড পাওয়া যায়। 

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক ড জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমি সকালে খবর পেয়ে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালাচ্ছি। যেহেতু সে আমাদের রেগুলার শিক্ষার্থী না, তাই আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ কিছুটা কম।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। আমরা যথাসাধ্য নিহতের পরিবারের পাশে থাকব। 

বৃহস্পতিবার রাত ৯টা ৫০ মিনিটের দিকে রাজধানীর বেইলি রোডে অবস্থিত বহুতল ভবনে আগুন লাগে। এতে এখন পর্যন্ত ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া, গুরুতর দগ্ধ হয়েছেন অন্তত ২২ জন। এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গতকাল রাতে বেইলি রোডের যে ভবনে আগুন লেগেছে, সেটি সাততলা। ভবনের দ্বিতীয় তলায় ‘কাচ্চি ভাই’ নামের খাবারের দোকান রয়েছে। তৃতীয় তলায় একটি পোশাকের দোকান ছাড়া ওপরের তলাগুলোতেও রয়েছে খাবারের দোকান। প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকে খাবারের দোকানগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় হয়। অনেকেই পরিবার নিয়ে সেখানে খেতে যান।

তিনতলায় ছিল কাপড়ের দোকান। বাকি সব ছিল রেস্টুরেন্ট। রেস্টুরেন্টগুলোতে ছিল গ্যাস সিলিন্ডার। যে কারণে আগুনের তীব্রতা ছড়িয়েছে ভয়াবহভাবে।

 এবি

×