কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ফিরে আসছে ষাঁড়ের লড়াই

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০১৫
  • গ্রামবাংলার হারানো ঐতিহ্য

হাওড়-বাঁওড় মহিশের শিং- এই তিনে ময়মনসিং প্রচলিত প্রবাদটি এখন আর তেমন না খাটলেও মহুয়া মলুয়ার ময়মনসিংহে এখনও রয়েছে হাজারো ঐতিহ্য। আবহমান বাংলার চিরায়ত ঐতিহ্যের অনেক কিছু হারিয়ে গেলেও নতুন করে ফিরে এসেছে আবার বেশ কিছু। পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ, পৌষসংক্রান্তি কিংবা চৈত্রসংক্রান্তিকে ঘিরে বাঙালী সংস্কৃতির এসব ঐতিহ্যের প্রচলন গড়ে ওঠে। পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে এসব ঐতিহ্যের নানা কিছু হারিয়ে যাচ্ছে। তবে বাঙালী সংস্কৃতির অন্যতম প্রধান ও প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ-বাংলা নববর্ষকে ঘিরে ফিরে আসতে শুরু করেছে হারিয়ে যাওয়া অনেক ঐতিহ্য। নৌকাবাইচ ও ষাঁড়ের লড়াই প্রতিযোগিতা ফিরে ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির তালিকায় যোগ হয়েছে।

এক সময়ে ময়মনসিংহের কবিগান ও পালাগান ছিল উৎকর্ষের শিখরে। ময়মনসিংহে কবিগানের প্রচলন কবে থেকে নিশ্চিত করে বলার মতো প্রমাণ পাওয়া না গেলেও বিশিষ্ট কবিয়াল বিজয় নারায়ণ আচার্য বাংলা ১৩২৩ সালে সৌরভ পত্রিকায় লেখেন ময়মনসিংহের বোরোগ্রাম নিবাসী বিখ্যাত কবি নারায়ণ দেবের পদ্মাপুরাণ বা মনসার ভাসান রচনার কিছুকাল আগে থেকেই এ অঞ্চলে কবিগানের প্রচলন হয়। সাধারণত কালীপূজা, দুর্গাপূজা, হালখাতা, পুণ্যাহ কিংবা অন্যান্য উৎসব উপলক্ষে পল্লী গ্রামের তালুকদার, জোতদার বা মহাজন শ্রেণীর অবস্থাসম্পন্ন লোকেরাই কবিয়ালদের বায়না করে বাড়িতে কবিগানের আসর বসাতেন। আর গ্রামের সবাই সে গানের রস উপভোগ করেছে।

এক সময় শীতকালে ময়মনসিংহের গ্রামগঞ্জে গ্রামীণ মেলায় ঘুড়ি উৎসব, ঘোড় দৌড়, ষাঁড়ের লড়াইয়ের প্রচলন ছিল। এর বাইরে ছিল মাছ ধরার উৎসব ও নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা। বাঙালী সংস্কৃতির এসব উৎসবের এখন দেখা মিলছে বাংলা নববর্ষকে ঘিরে। ময়মনসিংহ সদর ও গৌরীপুরে এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ষাঁড়ের লড়াই। ময়মনসিংহের পুরনো ব্রহ্মপুত্রে প্রতিবছর পহেলা বৈশাখে আয়োজন করা হচ্ছে নৌকাবাইচ। এতে বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলার প্রতিযোগী ছাড়াও দেশের উত্তরবঙ্গ ও পশ্চিমাঞ্চল থেকে অংশ নেয় প্রতিযোগীরা। ব্রহ্মপুত্রের চরে ঘুড়ি উৎসবে মেতে উঠে পুরো ময়মনসিংহের নতুন প্রজন্ম। তেমনি সার্কিট হাউস মাঠ ও স্থানীয় কোকিলা গ্রামের মাঠে প্রতিবছর ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতাও উপভোগ্য হয়ে উঠছে।

-বাবুল হোসেন

ময়মনসিংহ থেকে

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০১৫

১১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: