ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৮ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯

আদালতে সাবেক স্বামীর স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি

প্রকাশিত: ২৩:৩৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬

আদালতে সাবেক স্বামীর স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী (বরগুনা) ॥ বরগুনার আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের হরিদ্রাবাড়ীয়া গ্রামের মৃত্যু আবদুল জব্বার চৌকিদারের কলেজ পড়–য়া কন্যা হেলেনাকে (২১) গণধর্ষণ শেষে পিটিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা মামলায় পুলিশ সাবেক (তালাকপ্রাপ্ত) স্বামী আরিফুর রহমান সোহাগকে গ্রেফতার করেছে। সোহাগ আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে। গত ১৭ সেপ্টেম্বর দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকায় এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার হরিদ্রাবাড়িয়া গ্রামের মৃত্যু জব্বার চৌকিদারের কন্যা ও পটুয়াখালী সরকারী বিশ্ব বিদ্যালয় কলেজে হিসাব বিজ্ঞান বিভাগে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী হেলেনা বেগম ঘটনার দিন রাতে (১৫ সেপ্টেম্বর) একা ঘরে ঘুমিয়ে ছিল। গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা ঘরের পিছনের সিঁদকেটে ঘরে প্রবেশ করে তাকে পালাক্রমে গণধর্ষণ শেষে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে। মামলার তদন্তকারী অফিসার এস আই মোঃ মাসুদ হাওলাদার বলেন হেলেনার সাবেক স্বামী আরিফুর রহমান সোহাগকে ২৭ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার করে আমতলী আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালতের বিচারক বৈজয়ন্ত বিশ্বাসের কাছে ১৬৪ ধারায় সে ঘটনার সাথে জড়িতের কথা স্বীকার করেছে। তিনি আরো বলেন এ ঘটনার সাথে আরো ৩/৪ জন জড়িত রয়েছে। এ মুহুর্তে তদন্তের স্বার্থে নাম বলা যাবে না। আমতলী থানা ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা পুলক চন্দ্র রায় বলেন হেলেনার ব্যবহৃত মোবাইল সেটটি আরিফের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আরিফ আদালতে হত্যাকান্ডের সকল ঘটনা স্বীকার করেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত অন্য আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে।