ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

বিশ্ব শিশু দিবস পালিত

মেধাবী প্রজন্ম গড়তে আশি হাজার কোটি টাকার শিশুকেন্দ্রিক বাজেট : ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা

প্রকাশিত: ১৯:৫২, ৩ অক্টোবর ২০২২

মেধাবী প্রজন্ম গড়তে আশি হাজার কোটি টাকার শিশুকেন্দ্রিক বাজেট : ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা

বিশ্ব শিশু দিবস পালিত

দেশে প্রতিবছর অক্টোবর মাসের প্রথম সোমবার পালিত হয় বিশ্ব শিশু দিবস। ‘গড়বে শিশু সোনার দেশ, ছড়িয়ে দিয়ে আলোর রেশ’ প্রতিপাদ্যে পালিত দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ শিশু একাডেমির অডিটোরিয়ামে বিশ্ব শিশু দিবস এবং শিশু অধিকার সপ্তাহ-২০২২ এর উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, সরকার শিশুদের জন্য নিরাপদ ও সুরক্ষিত উন্নত জীবন গঠনে কাজ করছে। আগামি প্রজন্মকে মেধাবী ও দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে বাস্তবায়িত হচ্ছে আশি হাজার কোটি টাকার শিশুকেন্দ্রিক বাজেট। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি আরও বলেন, শিশুর নিরাপত্তা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হবে শিশুর অধিকার। আজকের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ এবং তারাই আগামীতে দেশ গড়ার নেতৃত্ব দেবে। জাতির পিতার আদর্শে নিজেদের জীবন গড়ে তুলেছে। 
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার নারী শিশুর সামগ্রিক উন্নয়নে বাংলাদেশ অভূতপূর্ব সফলতা অর্জন করেছে। মা ও শিশুর পুষ্টি চাহিদা পুরণে ১১ লাখ মাকে মাতৃত্বকালীন ও কর্মজীবী লাকটেটিং মাদার ভাতা প্রদান করা হচ্ছে। সমাজভিত্তিক সমন্বিত শিশু-যতœ কেন্দ্রের মাধ্যমে ৩ লাখ ৬০ হাজার শিশুদের প্রারম্ভিক বিকাশ ও সুরক্ষা সেবা প্রদান করা হচ্ছে। সরকারের ৮ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় এসডিজি অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। শিশুদের উন্নয়ন ও সুরক্ষার মাধ্যমে এসডিজি অর্জনে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। 

তিনি আরো বলেন, সরকার শিশুর বিকাশ ও পুষ্টি নিশ্চিতে পাশাপাশি শিশুদের অধিকার ও সুরক্ষায় জাতীয় শিশু নীতি ২০১১, শিশুর প্রারম্ভিক যত্ন ও বিকাশের সমন্বিত নীতি ২০১৩, শিশু আইন ২০১৩, যৌতুক নিরোধ আইন ২০১৮, বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭, বাল্যবিবাহ নিরোধ জাতীয় কর্মপরিকল্পনা ২০১৮-২০৩০ প্রণয়ন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) আইন ২০২০ এবং  শিশু দিবাযত্ন কেন্দ্র আইন ২০২১ প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ, মাদক ও দুর্নীতির বিরূপ প্রভাব থেকে মুক্ত করে আমাদের শিশুদের একটি সুন্দর ও উন্নত জীবন নিশ্চিত করা। 

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব হাসানুজ্জামান কল্লোলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শিশু একাডেমির চেয়ারম্যান লাকী ইনাম এবং ইউনিসেফের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ  শেলডন ইয়েট। শিশু একাডেমির মহাপরিচালক মোঃ শরিফুল ইসলাম অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন।

এসময় ইউনিসেফের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ শেলডন ইয়েট বলেন, সকলকে শিশুদের শিক্ষা ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় করতে হবে। বাংলাদেশ সরকারের শিশু উন্নয়ন কার্যক্রম অত্যন্ত প্রশংসীয়। 
সভাপতির বক্তব্যে সচিব হাসানুজ্জামান কল্লোল বলেন, সরকার আগামীর মেধাময় ও আলোকিত শিশু গড়ে তুলতে শিশুবান্ধব বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। গর্ভাবস্থা থেকে শিশুর পুষ্টি নিশ্চিত করতে ১ কোটি ৩০ লাখ মা ও শিশুকে ভাতা প্রদান করা হচ্ছে।

স্বপ্না

monarchmart
monarchmart