ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

নির্ধারিত ভাড়া মানছে না বাস মালিকরা, দুর্ভোগে যাত্রীরা

প্রকাশিত: ১২:০৬, ৭ আগস্ট ২০২২

নির্ধারিত ভাড়া মানছে না বাস মালিকরা, দুর্ভোগে যাত্রীরা

দুর্ভোগে যাত্রীরা

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় বাসের নতুন ভাড়া নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সংস্থা (বিআরটিএ)। কিন্তু নতুন এই ভাড়া মানছেনা বাস মালিক ও শ্রমিকরা। ফলে দুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

মিরপুরের যাত্রী ফাহিম ফয়সাল জনকণ্ঠকে জানান, মিরপুর ১০ নম্বর থেকে বাসে উঠেছি, যাবো মৌচাক। কিলোমিটারে ৩৫ পয়সা বাড়ানো হলেও তা মানা হচ্ছেনা। ৫ থেকে ১০ টাকা বাড়ানো হয়েছে।

মতিঝিলগামী শেলী আক্তার জনকণ্ঠকে বলেন, বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। কেউ প্রতিবাদ করছে, আবার কেউ করছে না। এভাবে অনিয়ম করা হলে আমরা সাধারণ মানুষ কোথায় যাবো। 

সরেজমিনে দেখা যায়, রাজধানীতে কিলোমিটারে ৩৫ পয়সা বাড়ানো হলেও বাড়তি ভাড়া গুণতে হচ্ছে যাত্রীদের। মিরপুর কাজীপাড়া থেকে কারওয়ানবাজার পর্যন্ত পূর্বে সরকার নির্ধারিত ভাড়াছিল ১১ টাকা কিন্তু আদায় করা হতো ১৫ থেকে ২০টাকা এবং এবং মালিবাগ ও গুলিস্তানে পূর্বে ২১ টাকার যায়গায় নেওয়া হতো ২৫ থেকে ৩০ টাক। সেই সঙ্গে সদরঘাটে ২৮ টাকার স্থলে নেওয়া হতো ৪০ টাকা। কিন্তু নতুন ভাড়া বাড়ানোর পর র্ফামগেটে পাকাপোক্ত করা হয়েছে ২০ টাকা। সেই সঙ্গে মালিবাগ ও গুলিস্তানে নেওয়া হচ্ছে ৩৫ টাকা এবং সদরঘাটে ৫০ টাকা।

সরেজমিনে আরো দেখা যায়, বাড়তি ভাড়ার সঙ্গে দেখা গিয়েছে পরিবহন সংকট। ফলে বিপাকে পড়েছে রাজধানীর সাধারণ মানুষ। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিহঙ্গ পরিবহনের এক চালক জনকণ্ঠকে বলেন, তেলের দাম বাড়ার কারণে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু যাত্রীরা তা মানছেনা। লস দিয়া তো আর গাড়ি চালানো যাবে না। তাই রাস্তায় গাড়িও নামানো হয়েছে। ভাড়ার বিষয়টা স্বাভাবিক হলে সব বাসই নামবে। 

এদিকে,লিটারে ডিজেলে ৩৪, কেরোসিনে ৩৪, অকটেনে ৪৬ ও পেট্রলে ৪৪ টাকা বেড়ানো প্রেক্ষিতে রাজধানীতে কিলোমিটারে ৩৫ পয়সা বাড়িয়ে ২.৫০ টাকা ও দূরপাল্লার বাসে প্রতি কিলোমিটারে ৪০ পয়সা হারে ভাড়া বাড়িয়ে ২.২০ টাকা করেছে বিআরটিএ। পূর্বে ভাড়া ছিল মহানগর পর্যায়ে কিলোমিটারে বাসে ২ টাকা ১৫ পয়সা, মিনিবাসে ২ টাকা ১০ পয়সা ও দূরপাল্লার বাসে ভাড়া কিলোমিটারপ্রতি ১ টাকা ৮০ পয়সা।

এমএইচ