বৃহস্পতিবার ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ২৯ অক্টোবর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের ৫৪০ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ দেয়া উচিত

নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের ৫৪০ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ দেয়া উচিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আন্তর্জাতিক গবেষণা গ্রুপের গবেষণা রিপোর্টে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া ১১ লক্ষ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠিকে ৫৪০ কোটি মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দেয়া উচিত বলে অভিমত ব্যক্ত করা হয়েছে। মিয়ানমার সামরিক জান্তার সীমাহীন অত্যাচার নির্যাতনে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া ১১ লক্ষ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির ৫৪০ কোটি মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়েছে বলে গবেষণাপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক গবেষণা গ্রুপের উদ্যোগে সম্প্রতি ‘রোহিঙ্গাদের স্থায়ী প্রত্যাবার্সনের জন্য নিরাপদ জোনের ব্যবস্থা করাসহ নিরাপত্তা ও ক্ষতিপূরণ” শীর্ষক আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারে বক্তাগণ এ অভিমত ব্যক্ত করেন। ওয়েবিনারে অংশগ্রহণকারী বিশিষ্টজন বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে, ১১ লাখ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠি বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়ার ফলে পরিবেশ ও অবকাঠামো ক্ষতি এবং মানবিক ত্রাণ সহায়তার জন্য মিয়ানমার ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় বাংলাদেশকে ২৬০ কোটি মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দেয়া উচিত।

আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠানসমূহ সুইনবার্ন ইউনির্ভাসিটি অব টেকনোলজি, নেতৃত্বে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির উপর পরিচালিত গবেষণার তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণের ভিত্তিতে বক্তাগণ এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, এ গবেষণা কার্যক্রমে সহায়ক সংগঠন হিসেবে কানাডার লরেন্তিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়, নরওয়ের নর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি), আশা ফিলিপাইন ফাউন্ডেশন এবং অস্ট্রেলিয়াস্থ বাংলাদেশ রিসার্চ ইনস্টিটিউট। এ গবেষণায় উঠে এসেছে যে মিয়ানমার সেনাবাহিনী প্রায় তিনশত রোহিঙ্গা গ্রাম পুড়িয়ে দিয়েছে, আনুমানিক আড়াই হাজার রোহিঙ্গাকে হত্যা করেছে, ১৯ হাজার নারীকে ধর্ষণ করেছে, ৪৩ হাজার মানুষকে বন্দুক দ্বারা আঘাত করা হয়েছে ও ১ লক্ষ ১৬ হাজার জনকে মারাধর করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক আদালতে এসব অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পরও মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবর্সন ও ক্ষতিপূরণদানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দাবির প্রতি কোন কর্ণপাত করছে না।

ওয়েবিনারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন অস্ট্রেলিয়া সরকারের সহকারী মন্ত্রী এইচ ই জেসন উড এমপি এবং বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, অস্ট্রেলিয়াস্থ বাংলাদেশ এর রাষ্ট্রদূত মো. শফিউর রহমান। ওয়েবিনারে রোহিঙ্গা বিষয়ক আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অ্যাটর্নি জেনারেল পিলিফ রডাক এও, সুইনবার্ন ইউনির্ভাসিটি অব টেকনোলজি, অস্ট্রেলিয়ার অধ্যাপক ক্রিস্টিন যব, ড. মহসীন হাবিব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণহত্যা স্টাডি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক ইমতিয়াজ আহমেদ, আরাকান রোহিঙ্গা ইউনিয়নের মহাপরিচালক ড. ওয়াকার উদ্দিন, আইডিইবি’র সভাপতি প্রকৌশলী এ কে এম এ হামিদ প্রমুখ।

ওয়েবিনারে অস্রেচ লিয়ার মন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে বলেন, রোহিঙ্গা সংকট শুধু বাংলাদেশের জন্যই নয় বরং আন্তর্জাতিক সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করা যায়। অস্রেী লিয়ার সরকার বিভিন্নভাবে রোহিঙ্গা শরণার্থী ও বাংলাদেশকে মানবিক সহযোগিতা প্রদান করছে, যা আগামিতেও অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তাঁর বক্তব্যে বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে ইতিপূর্বে মায়ানমারের সঙ্গে কয়েকটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। কিন্তু মায়ানমার সরকার উক্ত চুক্তি বাস্তবায়নে এগিয়ে আসছে না। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে মায়ানমারকে ৬ লক্ষ রোহিঙ্গা ফেরত নেয়ার জন্য তালিকা প্রেরণ করেছে কিন্তু একজনও ফেরত নেয় নাই। জনাব আলম রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা কামনা করেন।

উক্ত ওয়েবিনারে মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন যথাক্রমে অস্রেেনলিয়ার অধ্যাপক ক্রিস্টিন যব, অস্রোংলিয়ার অধ্যাপক হেনরি পলার্ড, অস্ট্রেলিয়াস্থ বাংলাদেশ এর রাষ্ট্রদূত মো. শফিউর রহমান। ওয়েবিনারে অস্রে লিয়া, কানাডা, আমেরিকা, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, থাইলেন্ড, মায়ানমার, নরওয়ে, বেলজিয়াম, জার্মানি, সুইডেন, ফিলিপাইন, নেদারলেন্ড, ইংলেন্ড, নিউজিলেন্ড, ভার, সিঙ্গাপুর, সুইজারলেন্ডসহ বিভিন্ন রাষ্রেএরর ২৩ জন বক্তাসহ প্রায় দুইশতাধিক অংশগ্রহণকারী উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশ থাকে যে, অস্ট্রেলিয়ার সুইনবার্ন ইউনির্ভাসিটি অব টেকনোলজির গবেষকদের নেতৃত্বে উল্লেখিত আন্তর্জাতিক গবেষকদল মাঝে মাঝে টেকনাফস্থ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অবস্থান করে উক্ত স্টাডি ও গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

শীর্ষ সংবাদ:
মশক নিধনে চিরুনি অভিযান শুরু করছে ডিএনসিসি         শিক্ষা, অর্থনীতিসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে মানুষকে স্বনির্ভর করব ॥ প্রধানমন্ত্রী         ঈদে মিলাদুন্নবীতে সারাদেশে ব্যাপক আয়োজন         সুনীল অর্থনীতি বাস্তবায়নে সরকার প্রয়োজনীয় সবকিছুই করবে : প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী         মুক্তিযোদ্ধাদের নামের আগে ‘বীর’ লিখার বিধান করে গেজেট         খুলনায় হত্যা মামলায় ৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড         ডিআইজি প্রিজনস বজলুর রশীদ জামিন পেলেন         করোনা ভাইরাসে আরও ২৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৬৮১         শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ল ১৪ নবেম্বর পর্যন্ত         ৮ ব্যক্তি ১ প্রতিষ্ঠান পেল স্বাধীনতা পুরস্কার         মুক্তিযোদ্ধা হায়দার আনোয়ার খান জুনো আর নেই         ছাত্রলীগের দাবিতে ঢাবি উন্নয়ন ফি কমলো অর্ধেক         আওয়ামী লীগ কারো বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে না; বরং বারবার ষড়যন্ত্রের স্বীকার হয়েছে ॥ কাদের         বঙ্গবন্ধুই দারিদ্র্যমুক্ত সমৃদ্ধ বাংলাদেশের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন ॥ এলজিআরডি মন্ত্রী         আগামী বছর এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বুঝে         মেক্সিকোতে গোপন কবরের সন্ধান ॥ ৫৯ মৃতদেহ উদ্ধার         ভিয়েতনামে টাইফুনের পর ভূমিধস, নিহত ১৩         ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপাল বণিকের অভিযোগ গঠন শুনানি পেছাল         বালিশকাণ্ডে ঠিকাদার আসিফের জামিন স্থগিতের ওপর আদেশ ১ নবেম্বর         আজারবাইজানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ॥ অন্তত ২১ জন নিহত