বুধবার ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আওয়ামী লীগকে হটাতে দেশ-বিদেশে ষড়যন্ত্র চলছে ॥ কাদের

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা থেকে হটাতে দেশে-বিদেশে নানা ষড়যন্ত্র চলছে। কোথায় কোথায় এইসব চক্রান্তের বৈঠক চলছে আমরা জানি। পর্যবেক্ষণ করছি, খোঁজ-খবর আমাদের কাছে আছে। জনসমর্থন নেই বলে বিএনপি ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। এ ব্যাপারে দলের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি। সোমবার গুলশান ইয়ুথ ক্লাব মাঠে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের এক কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখতে গিয়ে দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে সেতুমন্ত্রী বলেন, আপনারা ঠা-া মাথায় জনগণকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধের শপথে সামনে এগিয়ে যাবেন। আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি, আল্লাহর রহমতে কোন অপশক্তি আমাদের বিজয়কে ঠেকাতে পারবে না।

খালেদা জিয়ার দ- নিয়ে পাল্টপাল্টি বক্তব্যের প্রেক্ষাপটে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাথা ঠা-া রাখার পরামর্শ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা কাউকে আক্রমণ করব না, আক্রান্ত হলে পাল্টা জবাব দেব। কাজেই উস্কানিমূলক কোন বক্তব্য দেবেন না।’ বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে দলের নেতাকর্মীদের সংযত থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘সেøাগান দেয়ার সময় উস্কানিমূলক সেøাগান দেবেন না, ভাষণ দেয়ার সময় অশান্তির ভাষণ দেবেন না। দায়িত্বশীল কথা বলবেন, লাগামহীন কথা বলবেন না।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বেগম জিয়ার দ-প্রাপ্তির পর বিএনপির কর্মসূচীর পর আমরা কোন কর্মসূচী দেইনি। পাল্টাপাল্টিতে আমরা নেই। আমরা আমাদের কর্মসূচী পালন করব। অন্যকে আমাদের উস্কানি দেয়ার প্রয়োজন নেই। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া দ-িত হয়ে কারাগারে যাওয়ার পর বিএনপি ভেবেছিল রাজপথে লাখ লাখ মানুষের ঢল নামবে। এখন তারা বুঝতে পেরেছে সেই আশা গুঁড়েবালি। আন্দোলনের ডাক দিয়ে সফল হবে না, ভোটে তারা পরাজিত হবে- একথা জেনেই আজকে তারা চক্রান্ত করছে। তিনি বলেন, আমাদের দেশে কোন নেত্রীর কারাদ- হয়, পাকিস্তানের পার্লামেন্ট সেটা নিয়ে কটাক্ষ করতে দুঃসাহস পায়। লেগেই আছে এরা, এরা আমাদের ভাল চায় না।

ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহ এমপির সভাপতিত্বে এ সভায় দলের কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানসহ মহানগরের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

নিজের পছন্দের মানুষের মামলায় খালেদা জিয়া জেলে- ড. হাছান ॥ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, খালেদা জিয়ার পছন্দের মানুষদের করা মামলায় জেলে গেছেন। তাঁর কারাবাস দীর্ঘস্থায়ী হবে কী না এটা আদালতের বিষয়, এখানে সরকারের কোন হস্তক্ষেপ নেই। জনগণকে বিভ্রান্ত না করে আদালতের ওপর আস্থা রাখতে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সোমবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়া আদালতের রায়ে শাস্তি ভোগ করছেন। এর পেছনে সরকারের কোন হাত নেই। এই মামলা দায়ের করেছে দুদক এবং এটি একটি সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। দুদক সরকারের অধীনস্ত কোন প্রতিষ্ঠান নয়। দুদক এবং নির্বাচন কমিশন সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। তিনি বলেন, এই মামলা দায়ের হয়েছিল যখন আওয়ামী লীগ তখন ক্ষমতায় ছিল না। ২০০৭ সালে সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার ক্ষমতায় ছিল। এই তত্ত্ব¡াবধায়ক সরকারের নেতৃবৃন্দ ছিলেন খালেদা জিয়ার পছন্দের মানুষ। তারা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছিল। এই মামলার সময় খালেদা জিয়া ১৬৪ বার সময় নিয়েছেন। যেটা আসামি হাজির থাকার পরেও এই সময় নেয়া বাংলাদেশের ক্ষেত্রে রেকর্ড। তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে কারাগারে যে সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছে তা বাংলাদেশের ইতিহাসে অন্য কোন কারাবন্দীকে দেয়া হয়নি।

আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা চিত্ত রঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সাবেক সংসদ সদস্য সারাহ বেগম কবরী, খ্যাতনামা চলচ্চিত্র অভিনেতা এটিএম সামসুজ্জামান, আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট নেতা অরুন সরকার রানা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

শীর্ষ সংবাদ:
কুয়াকাটায় টোয়াকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত         ওমিক্রন ঠেকাতে প্রবাসীদের আসতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে         বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকের ধাক্কায় দুই মটরসাইকেল অরোহী নিহত         ডাসারে মোটরসাইকেল চাপায় ইউপি সদস্য নিহত         রামপুরায় বাসে আগুন ও ভাঙচুর ॥ আসামি ৮০০         যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরের গুলিতে নিহত ৩, আহত ৮         রেফারিকে হত্যার হুমকি আর্জেন্টাইন ফুটবলারের         নিরাপদ সড়ক দাবি ॥ রামপুরায় শিক্ষার্থীদের অবরোধ         শারীরিক উপস্থিতিতে শুরু হলো আপিল বিভাগের বিচারকাজ         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে ২ হাজার ৩০০ জনের         বায়োএনটেক প্রধান ওমিক্রন নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন         সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে রাজশাহীর পৌর মেয়র আব্বাস গ্রেফতার         ঢাবি জাতিকে যা কিছু উপহার দিয়েছে তা নিঃসন্দেহে গর্ব ও গৌরবের         রোহিঙ্গাদের উচিত এখন নিজ দেশে ফিরে যাওয়া         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         জাপানে ওমিক্রন শনাক্ত         শতবর্ষের আলোয় আলোকিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ল এক মাস         আগাম জামিন নিতে আসা শংক দাস বড়ুয়া কারাগারে