সোমবার ১১ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

মোদির রাষ্ট্রপতি প্রার্থীকে সমর্থন দিল নীতিশ কুমারের দল

ভারতে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ক্ষমতাসীন এনডিএ জোটের রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী রামনাথ কোবিন্দকে সমর্থনের কথা এ বার প্রকাশ্যেই জানিয়ে দিল নীতিশ কুমারের দল। বুধবার রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে নিজেদের কৌশল ঠিক করতে কোর কমিটির বৈঠক ডাকে জেডিইউ (জনতা দল ইউনাইটেড)। সেই বৈঠকে কোবিন্দকে সমর্থনে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বৈঠক শেষে জেডিইউ নেতা রতেœশ সড়া কোবিন্দকে সমর্থনের বিষয়ে দলীয় সিদ্ধান্তের কথা জানান। সম্ভবত বুধবার সন্ধ্যাতেই আনুষ্ঠানিকভাবে সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে চলেছে জেডিইউ। আনন্দবাজার পত্রিকা।

বিরোধী দলগুলো রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে নিজেদের কৌশল ঠিক করার জন্য বৃহস্পতিবারই বৈঠকে করে। তার আগে নীতিশের এই ঘোষণা নিঃসন্দেহে বিরোধী শিবিরের জন্য বড় একটি ধাক্কা। বিরোধীদের অস্বস্তি বাড়িয়েছে ডিএমকেও। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধীদের কোনও প্রার্থী দেয়া উচিত নয় বলে দলটির পক্ষ থেকে মন্তব্য করা হয়েছে। কোবিন্দকে সমর্থনের বিষয়ে এনডিএ শরিকদের পাশে পাওয়ার কাজটা পুরোটাই সেরে ফেলেছেন মোদি অমিত শাহরা। প্রথমে আপত্তি তুললেও মঙ্গলবার কোবিন্দকে সমর্থনের কথা জানান শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে।

ইইউ শীর্ষ বৈঠক নিয়ে ম্যাক্রোঁ আশাবাদী

ফ্রান্সের নতুন প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বৃহস্পতিবারের ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) শীর্ষ বৈঠকে প্রথমবারের মতো যোগ দিয়ে এ জোটে নতুন প্রাণ সঞ্চারের আশা জাগিয়েছেন। ব্রিটেনের ব্রেক্সিট ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ নীতির প্রেক্ষিতে ইউরোপীয় জোটের নাজুক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা জোরদারের অঙ্গীকার নিয়ে তিনি এ সম্মেলনে যোগ দিলেন। অন্যদিকে এ সম্মেলনে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে ব্রেক্সিটের বিষয়ে ইইউ নেতৃবৃন্দেকে অবহিত করবেন বলে আশা করবেন। এএফপি ও ফিন্যান্সিয়াল টাইমস।

৩৯ বছর বয়স্ক ম্যাক্রোঁ স্বদেশের নির্বাচনে ইইউ জোটকে প্রাধান্য দিয়ে বিপুল ভোটে জয়লাভ করায় ইউরোপীয় দেশগুলোর নেতাদের মধ্যে একটি বিশেষ মর্যাদার আসন করে নিয়েছেন। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মেরি লিপেন যখন ইউরোপীয় জোট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে বিভিন্ন যুক্তির অবতারণা করছিলেন তখন ম্যাক্রোঁ জনগণকে বোঝাতে সক্ষম হন যে, কী কী কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে ফ্রান্সের জোটবদ্ধ থাকা দরকার। তাই সমগ্র ইউরোপের মধ্যে এ কনিষ্ঠ নেতার কদর এত বেশি। এছাড়া জার্মানির চ্যান্সেলর এ্যাঞ্জেলা মেরকেলও ম্যাক্রোঁর অর্থনৈতিক প্রজ্ঞা ও বিচক্ষণতাকে বেশ গুরুত্ব দেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার প্রথম ইউরোপ সফরে এসে ব্রাসেলসে ইউরোপীয় নেতাদের শ্লেষাত্মক ভাষায় ন্যাটোতে তাদের দেয় চাঁদা পরিশোধ না করার জন্য ভৎর্সনা করেন।

শীর্ষ সংবাদ: