মূলত রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ৩০ °C
 
২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

প্রাণ ধ্বংসকারী গ্রহাণুর খোঁজে!

প্রকাশিত : ৬ জানুয়ারী ২০১৭

যে গ্রহাণুর আঘাতে সাড়ে ছ’কোটি বছরেরও বেশি আগে এই পৃথিবী থেকে ডাইনোসর বিলুপ্ত হয়ে গিয়েছিল সেটি খুঁজে বের করার জন্যে তারা কিছু ক্লু বা ধারণা পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা । বিজ্ঞানীদের নিয়ে গঠিত আন্তর্জাতিক একটি দল সম্প্রতি এ নিয়ে গবেষণা শুরু করেছে। ধারণা করা হয়, ওই গ্রহাণুর আঘাতে পৃথিবীর বুকে বিশাল যে গর্তের সৃষ্টি হয়েছিল সেটিই আজকের দিনে গাল্ফ অব মেক্সিকো বা মেক্সিকো উপসাগর।

বিজ্ঞানীদের ওই দলটি এখন ওই সাগরে ড্রিল করে ওই গ্রহাণুর কিছু নমুনা উদ্ধার করার চেষ্টা করছেন। সাগরের তলদেশে মাটির গভীর থেকে তারা শিলা-খণ্ড বা পাথরের নমুনা, ডিএনএ ইত্যাদি সংগ্রহ করছেন। এই গবেষণা দলের নেতৃত্বে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেনের বিজ্ঞানীরা। এই গ্রহাণুর আকার ছিল একটি শহরের চেয়েও বড়। এটি যখন আমাদের গ্রহে আঘাত হেনেছে, ঠিক তখনই তৈরি হয়েছে বিশাল একটি গর্ত। আর ভেতর থেকে বেরিয়ে এসেছে নানা ধরনের রাসায়নিক উপাদান। এর প্রভাবে ধ্বংস হয়ে যায় পৃথিবীর পরিবেশ। বলা হয় জীবনের ৭৫ শতাংশই বিলুপ্ত হয়ে গিয়েছিল এই গ্রহাণুর আঘাতে। এমনকি গ্রহাণুর আঘাতে বিলুপ্ত হয়ে যায় ডাইনোসরও। বিজ্ঞানীরা বলেছেন, এই অভিযানে তারা প্রচুর পরিমাণে নিকেলের উপাদান খুঁজে পেয়েছেন। তারা ধারণা করছেন, এসব নিকেল ওই গ্রহাণু থেকেও আসতে পারে। গ্রহাণু আঘাত হানার পর এসব উপাদান বাষ্প হয়ে গছে। তবে এর কিছুটা হয়ত আকাশে ঘনীভূত হয়ে জমা হয়েছিল পরে যা বৃষ্টি হয়ে বিশাল ওই গর্তের ভেতরে পড়েছে। বিজ্ঞানীরা এখন দেখার চেষ্টা করছেন, পৃথিবীতে প্রাণের অস্তিত্বের ওপর এই গ্রহাণুর আঘাতের এতো বিপর্যয়কর প্রভাবের কারণ কি হতে পারে।

সূত্র : বিবিসি

প্রকাশিত : ৬ জানুয়ারী ২০১৭

০৬/০১/২০১৭ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: