মূলত রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৭.২ °C
 
১৯ জানুয়ারী ২০১৭, ৬ মাঘ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নববধূ ইডেন ছাত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ মোল্লাহাটে ইডেন কলেজের ইতিহাস বিভাগের ছাত্রী ও নববধূ শরীফা আক্তার পুতুলকে (২১) হত্যার চাঞ্চল্যকর মামলায় স্বামীর মৃত্যুদ-াদেশ দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোঃ মিজানুর রহমান খান এ রায় ঘোষণা করেন।

নিহত শরীফা আক্তার পুতুল মোল্লাহাট উপজেলার উদয়পুর দৈবকান্দি গ্রামের মোঃ আবু দাউদের মেয়ে এবং ঢাকা ইডেন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ইতিহাস বিভাগের সম্মান তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। দ-িত স্বামী শিকদার মাহমুদুল আলম (৩৫) একই গ্রামের প্রয়াত শিকদার সামছুল আলমের ছেলে। পরে তিনি জামিনে ছাড়া পেয়ে পলাতক রয়েছেন। এ ঘটনার পর ঢাকা ইডেন কলেজের সহপাঠীরা ও বাগেরহাটের বিভিন্ন সংগঠন হত্যাকারী স্বামী মাহমুদুল আলমের বিচারের দাবিতে নানা কর্মসূচী পালন করে।

জানা গেছে, ইডেন কলেজের ছাত্রী শরীফা আক্তারের সঙ্গে মাহমুদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরিবারের কাউকে না জানিয়ে ঘটনার প্রায় ছয় মাস আগে শরীফা ও মাহমুদ বিয়ে করেন। পরে ঘটনা জানাজানি হলে উভয় পরিবার তাদের সম্পর্ক মেনে নিয়ে ২০১৩ সালের ১০ মে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে দেন। বিয়ের তিন দিন পর ১৩ মে রাত ২টার দিকে মাহমুদ ঘরে ঘুমাতে এসে তার নববিবাহিতা স্ত্রী শরীফার মুঠোফোনে অশ্লীল খুদেবার্তা দেখে ক্ষুব্ধ হন।

পরে শরীফার অন্য কারও সঙ্গে প্রেম রয়েছেÑ এ অজুহাতে ক্ষিপ্ত হয়ে শরীফাকে ঘরে থাকা দা দিয়ে জবাই করে হত্যা করেন। হত্যার পর রাতেই মাহমুদ কীটনাশক পান করে মোল্লাহাট থানায় গিয়ে তার স্ত্রীকে হত্যা করেছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেন।

রাজশাহীর চার শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

ফেসবুকে অপপ্রচার

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি (আইসিটি) আইনে রাজশাহী মডেল স্কুল এ্যান্ড কলেজের চার শিক্ষক-কর্মচারীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন একই কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ এসএম জার্জিস কাদির। তিনি বর্তমানে রাজশাহী নিউ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ। এ ঘটনায় পুলিশ মডেল স্কুল এ্যান্ড কলেজের শরীরচর্চা বিভাগের শিক্ষক আবু হায়দার আকবর রিপনকে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে স্কুল থেকে নগরীর রাজপাড়া থানা পুলিশ ওই শিক্ষককে আটক করে। মামলার অপর তিন আসামি হলেন রসায়ন বিভাগের শিক্ষক শফিকুল ইসলাম, প্রদর্শক আনারুল ইসলাম ও ল্যাব সহকারী শফিউল ইসলাম মাসুম। রাজপাড়া থানা পুলিশ সূত্র জানায়, রাজশাহী মডেল স্কুল এ্যান্ড কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ এসএম জার্জিস কাদির ওই প্রতিষ্ঠান থেকে বদলি হয়ে নিউ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদানের পর থেকে তার বিরুদ্ধে ফেসবুকসহ নানাভাবে অপপ্রচার শুরু করে মডেল স্কুল এ্যান্ড কলেজের কয়েক শিক্ষক-কর্মচারী। নেপথ্যে থেকে ইন্ধন দেন রসায়ন বিভাগের শিক্ষক শফিকুল ইসলাম।

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৬

১৩/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: