মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ১৮.৯ °C
 
২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

গান আর স্মৃতিকথায় আবদুল আলীমকে স্মরণ

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৬
  • সংস্কৃতি সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কর্মময় জীবনের ওপর আলোকপাত ও সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে আবদুল আলীমকে স্মরণ করেছে তার পরিবার। বুধবার সন্ধ্যায় বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্য বিশারদ মিলনায়তনে আয়োজিত হয় এ অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। গীতিকবি শহীদুল্লাহ ফরায়জীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন লন্ডন গ্রেস ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারপার্সন মাফরুদা খান এরিন। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা প্রয়াত আবদুল আলীমের জামাতা মোঃ হিসান খতিব খান বাবু।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী বলেন, আব্বাস উদ্দীনের পরে জনপ্রিয় এবং শ্রেষ্ঠ পল্লীগীতির গায়ক আবদুল আলীম। তৎকালীন সময়ে মূলত আবদুল আলীমকে কেন্দ্র করেই সঙ্গীত চর্চা হতো। তার গানে যেভাবে দমের খেলা খেলেছেন এটা সাধনা ছাড়া সম্ভব হয় না। এই বৈশিষ্ট্য আমি কারও মধ্যে দেখিনি। ব্যক্তিগত সম্পর্কের বিষয় তুলে ধরে অর্থমন্ত্রী বলেন, তিনি আমার বয়সে অগ্রজ হলেও বন্ধুত্বের সম্পর্ক ছিল। আমি আলীম ভাই বলে ডাকতাম। আমি সরকারী চাকরি সূত্রে সংস্কৃতি অঙ্গনে দায়িত্ব পালনের সূত্রে তার সঙ্গে সখ্য বাড়ে। এ সখ্য আমৃত্যু ছিল।

সভাপতির বক্তব্যে শহীদুল্লাহ ফরায়জী বলেন, আমাদের হৃদয়ে উচ্চতা যতটুকু আবদুল আলীমের গানের উচ্চতা ততটুকু। তিনি গানে মানুষের হৃদয়ের কথা বলেছেন বলে আবালবৃদ্ধবনিতার কাছে সমানভাবে জনপ্রিয়। যে গান মানুষের সুখে-দুঃখের খোরাক যুগিয়েছে সে গান কোনদিন হারাবে না।

স্বাগত বক্তব্যে মোঃ হিসান খতিব খান বাবু বলেন, আবদুল আলীমের গান সংরক্ষণ ও ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য আমরা এ উদ্যোগ নিয়েছি। আশা করছি সকলের সহায়তায় এ কাজটিতে সফল হব।

আলোচনা শেষে আবদুল আলীমের কন্যা নূরজাহান আলীম স্বনামধন্য এই শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনস্বরূপ সঙ্গীত পরিবেশন করেন।

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৬

১২/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: