আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ১৭.২ °C
 
১৭ জানুয়ারী ২০১৭, ৪ মাঘ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কালকিনিতে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও লুটপাট আহত-৬

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৬, ০৬:০৩ পি. এম.
কালকিনিতে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও লুটপাট আহত-৬

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালকিনি (মাদারীপুর)॥ নৌকায় ভোট দেওয়ার অপরাধে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার কয়ারিয়া এলাকায় মো. গিয়াস উদ্দিন মোল্লা নামের এক মুিক্তযোদ্ধার বাড়িতে ব্যাপক সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে বসতঘড় ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়েছে স্বতন্ত্র বিজয়ী প্রার্থীর লোকজন। তাদের হামলায় মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের শিশুসহ কমপক্ষে ৬ জন আহত হয়েছে। এ বিষয় থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার দিবাগত রাতে। এদিকে হামলার ঘটনায় ওই মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের মাঝে চড়ম আতংক বিরাজ করছে।

ভুক্তভোগী ও পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, সদ্য চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে কয়ারিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র বিজয়ী চেয়ারম্যান কামরুল হাসান নুরমোহাম্মদ মোল্লার আনারস প্রতীকে ভোট না দিয়ে আওয়ামীলীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকির হোসেন শিকদারের নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার অপরাধে মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন মোল্লার বসত ঘড়ে কামরুল হাসান নুরমোহাম্মদের নেতৃত্বে তার লোকজন সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করে। এসময় হামলাকারীরা ঘড়ে দরজা জানালা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে আলমারী থেকে নগদ দুই লক্ষাধিক টাকা ও ১০ ভরি স্বর্নালংকার লুট করে নিয়ে যায়। তাদের বাধা দিলে এতে আহত হন মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন মোল্লা, শিশু মালিহা, আরফিন সায়েদা, ফারজানা ও মাইসাসহ ৬জন। আহতদেরকে উপজেলার বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী মুক্তিযোদ্ধা মো. গিয়াস উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, আমি নৌকায় ভোট দেয়ার কারনে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার পরিবারের উপর হামলা ও বাড়িতে লুটপাট করেছে কামরুল হাসান নুরমোহাম্মদ মোল্লা ও তার লোকজন।

এ ব্যাপারে বিজয়ী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান কামরুল হাসান নুরমোহাম্মদ মোল্লা বলেন, আমি এ বিষয় কিছু বলতে পারবোনা। এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি কৃপা সিন্দু বালা বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৬, ০৬:০৩ পি. এম.

০৯/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: