রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
১৭ জানুয়ারী ২০১৭, ৪ মাঘ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বাজিতপুরে মিথ্যা অভিযোগে স্কুলছাত্রকে পুলিশি হয়রানি

প্রকাশিত : ৮ মে ২০১৬, ০৭:০১ পি. এম.
বাজিতপুরে মিথ্যা অভিযোগে স্কুলছাত্রকে পুলিশি হয়রানি

নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ ॥ জেলার বাজিতপুর উপজেলায় ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রকে পুলিশি হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর সহপাঠী ও শিক্ষকদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। জানা গেছে, উপজেলার দিলালপুর ইউনিয়নে সদ্য অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিজয়ী স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হালিমকে একটি ঘটনায় খুঁজতে শনিবার দিবাগত রাতে থানা পুলিশ বাহেরনগরে তাঁর বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশ বাবাকে না পেয়ে তাঁর নিরাপরাধ ছেলে উপজেলার আব্দুল মান্নান স্বপন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র লাদেন মিয়াকে ধরে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর রবিবার সকালে ছাত্রটির শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে থানায় যোগাযোগ করা হলে চুরির অভিযোগে তাকে ধরা হয়েছে বলে জানানো হয়। এ বিষয়টি জানতে পেরে পরিবারের লোকজন ও শিশুটির শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীর মধ্যে এক ধরণের বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

আব্দুল মান্নান স্বপন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নান স্বপন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের জানান, বাবার অপরাধে শিশুপুত্র স্কুলছাত্রকে পুলিশ ধরে থানায় নিয়ে যাবে-এমনটি কারো কাম্য নয়। এ ব্যাপারে পুলিশ সুপারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি স্কুলছাত্রকে হয়রানি না করে ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু থানা পুলিশ স্কুলছাত্রকে চুরির মামলা দিয়ে তাঁর (প্রধান শিক্ষকের) জিম্মায় দিতে বলেন। পরে তিনি স্কুলছাত্রের বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ দেখানোয় ছাত্রটিকে তাঁর জিম্মায় নিতে অস্বীকার করে ওই সময় তিনি থানা থেকে চলে আসেন। বাজিতপুর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান স্কুলছাত্রকে হয়রানির অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, জনতা আটক করে ছেলেটিকে পুলিশে সোপর্দ করেছে। তাঁকে জোরপূর্বক পুলিশ কোনো মামলায় জড়াচ্ছে না বলে তিনি এ প্রতিবেদককে জানান।

প্রকাশিত : ৮ মে ২০১৬, ০৭:০১ পি. এম.

০৮/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: