বৃষ্টি, তাপমাত্রা ২৭.২ °C
 
২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬, ১৪ আশ্বিন ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মালয়েশিয়ার সঙ্গে ড্র সেমির অপেক্ষায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারী ২০১৬

রুমেল খান ॥ জিতলেই ব্যাপারটা চুকেবুকে যেত। নিশ্চিত হত শেষ চারে নাম লেখানো। কিন্তু ড্র করায় সেমিফাইনালে যাওয়াটা এখনও ঝুলে রইলো বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের। বুধবার ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ’-এ ‘এ’ গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে বর্তমান শিরোপাধারী মালয়েশিয়া একাদশের সঙ্গে পিছিয়ে পড়েও ১-১ গোলে ড্র করে গত আসরের রানার্সআপধারী এবং স্বাগতিক বাংলাদেশ। দুর্দান্ত খেলে ম্যাচসেরা হন বাংলাদেশের গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা। ২ খেলায় ১ জয়, ১ ড্রতে ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে শীর্ষ অবস্থানে আছে বাংলাদেশ। সমান ম্যাচে নেপালেরও ৪ পয়েন্ট। কিন্তু গোলগড়ে এগিয়ে বাংলাদেশই। পক্ষান্তরে ২ ম্যাচের প্রতিটিতেই ড্র করে ২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থাকা মালয়েশিয়া আছে কিছুটা বেকায়দায়। বাংলাদেশের তৃতীয় ও শেষ গ্রুপ ম্যাচ আগামী শুক্রবার নেপালের বিরুদ্ধে। এই ম্যাচে কমপক্ষে ড্র করলেই সেমিফাইনালে যেতে পারবে স্বাগতিক দল। তবে এখানে গোল ব্যবধানের জটিল কিছু হিসেব-নিকেশ আছে।

গ্রুপ ‘বি’তে আজ বাংলাদেশ অলিম্পিক দলের ম্যাচ। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-মালদ্বীপ ম্যাচটি আজ অনুষ্ঠিত হবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। বাংলাদেশ যুব দলের জন্য এই ম্যাচটি হবে প্রতিশোধ নেয়ার ম্যাচ। কেননা কদিন আগেই সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে এই মালদ্বীপের কাছে হেরেই গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলকে। সিনিয়র দলের সেই হারের বদলা নিতে মুখিয়ে আছে যুবারা।

বুধবার ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ’-এ ‘এ’ গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে বর্তমান শিরোপাধারী মালয়েশিয়া একাদশের সঙ্গে পিছিয়ে পড়েও ১-১ গোলে ড্র করে গত আসরের রানার্সআপধারী এবং স্বাগতিক বাংলাদেশ। প্রথমার্ধে খেলা গোলশূন্য ছিল। ম্যাচসেরা বাংলাদেশের গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা।

শেষ চারে যেতে হলে বুধবারের ম্যাচে জেতাটা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ ছিল বাংলাদেশের জন্য। কিন্তু ড্র করে সেমিতে যাওয়াটা পুরোপুরি নিশ্চিত করতে পারেনি তারা। গত আসরে বাংলাদেশ দল মালয়েশিয়ার কাছেই হেরে শিরোপা বঞ্চিত হয়েছিল। সেবার গ্রুপ ম্যাচে মালয়েশিয়ার কাছে হেরেছিল বাংলাদেশ (১-০)। এবার অবশ্য হারেনি মামুনুলরা।

বাবার ওপেন হার্ট সার্জারির কারণে ম্যাচে খেলেননি সোহেল রানা। তার পজিশনে নামা হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাসও দিতে পারেননি কোচের আস্থার প্রতিদান। তবে হেমন্তর বদলি হিসেবে যিনি নামেন সেই ফরোয়ার্ড মিঠুন চৌধুরী দেন আস্থার প্রতিদান। দল যখন পিছিয়ে পড়ে হারের আশঙ্কায় কাঁপছে, তখনই ৭৭ মিনিটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান তিনি। গোল করে আনন্দের আতিশয্যে জার্সি খুলে ফেলে হলুদ কার্ডও দেখেন অবশ্য!

এখন দেখার বিষয় শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ কি করে। এদিকে বুধবার একই ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত ‘এ’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১-০ গোলে হারায় নেপাল। নেপালের পরের ম্যাচ একইদিন, একই ভেন্যুতে, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় স্বাগতিক বাংলাদেশের বিরুদ্ধে।

প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারী ২০১৬

১৪/০১/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: