বৃষ্টি, তাপমাত্রা ২৭.২ °C
 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬, ১৫ আশ্বিন ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

‘এই অর্জন স্বপ্নের চেয়েও বেশি’

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারী ২০১৬, ১১:৫৬ পি. এম.
‘এই অর্জন স্বপ্নের চেয়েও বেশি’
  • রেকর্ড পঞ্চমবার ফিফা ব্যালন ডি’অর জয়ের পর অভিব্যক্তি লিওনেল মেসির, রোনাল্ডোর সঙ্গে ভাল সম্পর্ক বার্সিলোনার আর্জেন্টাইন তারকার, দ্বিতীয় হওয়ার আশা করেছিলেন নেইমার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ একের পর এক অসাধ্য সাধন করেই চলেছেন লিওনেল মেসি। ইতিহাসের প্রথম ও একমাত্র ফুটবলার হিসেবে পাঁচবার ফিফা ব্যালন ডি’অর জিতেছেন সোমবার রাতে। এরপরও বার্সিলোনা তারকার আক্ষেপ আছে। সেটি হচ্ছে জাতীয় দল আর্জেন্টিনার হয়ে বলার মতো কিছু করতে না পারা। ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপ ও ২০১৫ সালে কোপা আমেরিকায় তীরে এসে তরী ডোবান তিনি। এ কারণেই হয়তো আক্ষেপের সুরে মেসি জানিয়েছেন, এই পাঁচটি ব্যালন ডি’অরের বদলে যদি একটি বিশ্বকাপ ট্রফি জেতা যেত। এরপরও যে কীর্তিগাথা রচনা করেছেন মেসি তাতে তিনি তৃপ্ত হতেই পারেন। এ কারণেই ব্যালন ডি’অর পুনরুদ্ধার করার পর মেসি সাক্ষাতকারে বলেছেন, এই সাফল্য স্বপ্নের চেয়েও বেশি কিছু। আগের দুইবার জুরিখের মঞ্চেই দর্শকের আসনে বসে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর শ্রেষ্ঠত্ব দেখেছিলেন। টানা দুইবার ব্যালন ডি’অর জেতা সি আর সেভেনকে এবার পেছনে ফেলে মুকুট পুনরুদ্ধারের আনন্দে ভাসছেন আর্জেন্টিনার এই ফরোয়ার্ড। এবার মেসি পেছনে ফেলেছেন বার্সিলোনা সতীর্থ নেইমারকেও। সুইজারল্যান্ডের জুরিখে জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে পুরস্কার হাতে নিয়ে মেসি বলেন, দর্শকের সারিতে বসে ক্রিশ্চিয়ানোকে জিততে দেখার পর আবার আরেকটি ব্যালন ডি’অর জেতা, আবার এখানে এই মঞ্চে ফিরে আসাÑ এটা আমার জন্য খুবই বিশেষ একটা মুহূর্ত। পঞ্চমবারের মতো সোনার বলটি হাতে নেয়ার আনন্দে বার্সা ডায়মন্ড বলেন, এটা আমার পঞ্চম, অবিশ্বাস্য। এবারের ব্যালন ডি’অরের মাহাত্ম্যই আলাদা। এটা ছোটবেলায় আমার দেখা স্বপ্নের চেয়েও অনেক বেশি। বার্সিলোনার হয়ে ২০১৫ সালটা দুর্দান্ত কেটেছে মেসির। গত মৌসুমে বার্সাকে ট্রেবল জেতাতে অসাধারণ অবদান রাখা মেসি ক্লাবের হয়ে পরে আরও দুটি শিরোপা জেতেন। কোপা ডেল রে, লা লিগা, উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ, উয়েফা সুপার কাপ ও সবশেষ গত ডিসেম্বরে ক্লাব বিশ্বকাপ। নিজের এত প্রাপ্তির জন্য সতীর্থদের ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি মেসি। কৃতজ্ঞতার বাঁধনে বেঁধে যারা ভোট দিয়েছেন, তাদেরও। তিনি বলেন, আমি সবাইকে ধন্যবাদ দিতে চাই যারা আমার জন্য ভোট দিয়েছেন। আমি আমার সতীর্থদের ধন্যবাদ দিতে চাই। জুরিখের মঞ্চে এসে যেন শৈশবেও ফিরে যান মেসি। হরমোনজনিত সমস্যা, প্রতিবন্ধকতা তিনি পেরিয়েছেন ফুটবল পায়ে নিয়ে! তাই এই খেলাটার প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানাতে ভুল করেননি। তিনি বলেন, আর সবশেষে আমি ফুটবলকে ধন্যবাদ দিতে চাই আমাকে সবকিছু দেয়ার জন্য, সেটা ভাল বা খারাপ যেটাই হোক। কারণ এটা আমাকে শিখিয়েছে, গড়ে তুলেছে।

জুরিখের মঞ্চে স্বয়ং মেসিকে অভিনন্দন জানান চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। এবারের অনুষ্ঠানে আরেকবার প্রমাণ মিলেছে মিডিয়ায় তাদের মধ্যে যে সম্পর্কের অবনতির কথা শোনা যায় সেটা বাড়াবাড়ি। আদতে তাদের মধ্যে সম্পর্ক ভাল। ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কার হাতে নিয়ে মেসিও তাই জানান, খেলার মাঠে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকলেও মাঠের বাইরে রোনাল্ডোর সঙ্গে তার কোন বিদ্বেষ নেই।

গত বছর ফিফা ব্যালন ডি’অর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ছেলেকে নিয়ে গিয়েছিলেন রোনাল্ডো। সেদিন মেসির সঙ্গে হাত মিলিয়েছিল জুনিয়র রোনাল্ডো। মেসিও আদর করেছিলেন সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বির সন্তানকে। এবার সেরা হওয়ার পর মেসি বলেন, আমাদের মধ্যে সব সময়ই ভাল সম্পর্ক। একই পেশার মানুষ বলে প্রতিদিনই লড়াই করতে হয় আমাদের। কারণ আমরা ভিন্ন ক্লাবে খেলি। তবে পত্র-পত্রিকায় এ নিয়ে একটু বাড়াবাড়িই করা হয়। তারা একাধিক কারণে আমাদের মধ্যে তুলনা করে থাকে। তবে আসল কথা হলো আমাদের মধ্যে একে অন্যের প্রতি যথেষ্ট শ্রদ্ধাবোধ আছে।

এদিকে ব্যালন ডি’অর পুরস্কারে বিশ্বের তৃতীয় সেরা হওয়াতে হতাশ বার্সিলোনার তারকা ফরোয়ার্ড নেইমার। ক্লাব সতীর্থ লিওনেল মেসির পেছনে থেকে দ্বিতীয় হবেন বলে আশা করেছিলেন ব্রাজিলের অধিনায়ক। প্রতিক্রিয়ায় নেইমার বলেন, সত্যি বলছি, আমি দ্বিতীয় হওয়ার আশা করেছিলাম। ২০০৭ সালে কাকা বর্ষসেরার পুরস্কার জয়ের পর এই প্রথম ব্রাজিলের কোন খেলোয়াড় হিসেবে তিন জনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় ছিলেন নেইমার। তিনি আরও বলেন, আবার তিন জনের মধ্যে থাকতে বেশি পরিশ্রম করতে হবে।

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারী ২০১৬, ১১:৫৬ পি. এম.

১৩/০১/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: