আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ৩০ °C
 
১ অক্টোবর ২০১৬, ১৬ আশ্বিন ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বড় সংগ্রহের পথে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৬
  • বিসিএল, তানভির ও ফরহাদের শতক

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নিজেদের জোনের ক্রিকেটারই পায় না। আর তাই প্রথম আসরের পর চ্যাম্পিয়নই হতে পারেনি ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল। এবারও তাই ঘটেছে। মনের মতো ক্রিকেটার মিলেনি। এরপরও ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগের (বিসিএল) চতুর্থ আসরের প্রথম দিনেই বিশাল সংগ্রহ গড়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল। তানভির হায়দারের অপরাজিত ১০৮, শরিফুল্লাহর অপরাজিত ৮৯ ও মার্শাল আইয়ুবের ৭৬ রানে প্রথমদিনে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩০৩ রান করেছে মধ্যাঞ্চল। প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে ফরহাদ হোসেনের ১০৬ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৯১ রান করে বিসিবি উত্তরাঞ্চলও বড় সংগ্রহের পথেই এগিয়ে চলেছে।

সেঞ্চুরিয়ান তানভিরে এগিয়ে চলেছে মধ্যাঞ্চল ॥ আবুল হাসান রাজুর (৩/৪১) বোলিং তোপে শুরুতে বিপাকে পড়ে মধ্যাঞ্চল। টস হেরে বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে ২৬ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে বসে। রনি তালুকদার (৪), শামসুর রহমান শুভ (১৬), মেহরাব জুনিয়র (০) ও সৈকত আলীর (০) উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারায় পড়ে মোশাররফ হোসেনের দল মধ্যাঞ্চল। এর মধ্যে শামসুরের উইকেটটি নেন আবু জায়েদ। বাকি ৩ উইকেটই নেন রাজু। এমন অবস্থায় একজনকে দলের হাল ধরতেই হতো। সেই কাজটি করেন মার্শাল। তার সঙ্গে জুটি বেঁধে এগিয়ে চলেন তানভির। দলকেও এগিয়ে নিয়ে চলেন। দুইজন মিলে পঞ্চম উইকেটে ১৩৫ রানের জুটি গড়েন। দলের স্কোরবোর্ডে যখন ১৬১ রান যুক্ত হয় তখন ১৪৩ বলে ৭৬ রান করা মার্শালকে কট এন্ড বোল্ড করেন জায়েদ। এরপর দিনশেষে আর কোন উইকেটই হারায়নি মধ্যাঞ্চল। তানভিরের সঙ্গে শরিফুল্লাহ যুক্ত হন। ষষ্ঠ উইকেটে দুইজন মিলে ১৪২ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন। দলকেও বিশাল সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান। দলকে শক্ত অবস্থানে নিতে ২৫৮ বল খেলে ১৬টি চার মেরে অপরাজিত ১০৮ রান করেন তানভির। প্রথমদিনেই শতক পান তানভির। আর ১০১ বলে ১৩টি চার হাঁকিয়ে অপরাজিত ৮৯ রান করেন শরিফুল্লাহ। আজ দুইজন দ্বিতীয় দিনে ব্যাটিং করতে নামবেন।

খেললেন শুধু সেঞ্চুরিান ফরহাদই ॥ দলকে ভাল করতে হলে শুরুর ব্যাটসম্যানদেরই যা করার করতে হয়। কিন্তু টস জেতা দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে উত্তরাঞ্চলের দুই ওপেনার মাইশুকুর রহমান (৩০) ও জুনায়েদ সিদ্দিকী (১২) ব্যর্থ হন। তবে ওয়ানডাউনে নামা ফরহাদ হোসেন ঠিকই হাল ধরেন। শুধু কী হাল ধরলেন, একাই খেলে গেলেন। ১৭৯ বলে ১৫ চার ও ১ ছক্কায় ১০৬ রান করলেন। দিনটিতে যে দুটি ম্যাচ হল, একমাত্র ফরহাদই রাজশাহীর শহীদ কামারুজ্জামান স্টেডিয়ামে ছক্কা হাঁকালেন। তার এ শতকের পর আরিফুল হকের অপরাজিত ৬২ রান উত্তরাঞ্চলকে তিন ’শ রানের কাছাকাছি নিয়ে যায়। আজ আরিফুল ও সানজামুল ইসলাম (১১*) দ্বিতীয় দিনে ব্যাট করতে নামবেন।

স্কোর ॥ প্রথমদিন শেষে ॥ ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল-ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চল ম্যাচ-বগুড়া ॥ ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল প্রথম ইনিংস ৩০৩/৫; ৮৮ ওভার (তানভির ১০৮*, শরিফুল্লাহ ৮৯*, মার্শাল ৭৬, শুভ ১৬; রাজু ৩/৪১, জায়েদ ২/৬০)।

বিসিবি উত্তরাঞ্চল-প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চল ম্যাচ-রাজশাহী

বিসিবি উত্তরাঞ্চল প্রথম ইনিংস ২৯১/৬; ৯১ ওভার (ফরহাদ ১০৬, আরিফুল ৬২*, মাইশুকুর ৩০, নাঈম ইসলাম ৩০; সোহাগ গাজী ২/৯৫)।

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৬

১৩/০১/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: