মূলত মেঘলা, তাপমাত্রা ২৭.৮ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬, ১০ আশ্বিন ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

প্রস্তুত মাশরাফিরা

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৬
  • বাংলাদেশ-জিম্বাবুইয়ে টি২০ সিরিজ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ-জিম্বাবুইয়ে সিরিজের সব খেলা হবে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে। শুক্রবার প্রথম টি২০ ম্যাচ দিয়ে চার ম্যাচের টি২০ সিরিজ শুরু হবে। রবিবার দ্বিতীয়, ২০ জানুয়ারি তৃতীয় ও ২২ জানুয়ারি চতুর্থ টি২০ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। এ সিরিজে নামতে প্রস্তুত মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীম, তামিম ইকবালরা। পুরোদমে চলছে খুলনায় অনুশীলন। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত মঙ্গলবারও অনুশীলন হয়েছে। ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং অনুশীলন চলছে। নিজেদের ঝালাই করে নিচ্ছেন ক্রিকেটাররা।

জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজটি আসলে তরুণদের সিরিজ। যারা এখনও জাতীয় দলের হয়ে টি২০ খেলেননি তাদের সিরিজ। আবু হায়দার রনি, নুরুল হাসান সোহান, শুভাগত হোমদের সিরিজ। এরসঙ্গে জাতীয় দলে যারা নিয়মিত খেলেন, তাদেরও সামনের এশিয়া কাপ টি২০ ও টি২০ বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত হয়ে ওঠার সিরিজ। এ সিরিজে ভাল করতে পারলে রনি, সোহান, শুভাগতদের এশিয়া কাপ ও টি২০ বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ মিলবে। তাই তাদের দিকেই বেশি নজর থাকবে।

খুলনার ছেলে সোহান তো মঙ্গলবার অনুশীলন শেষে বলেই দিলেন, ‘প্রস্তুত আছি।’ জানান, ‘ঘরের মাঠে ভাল অনুশীলন করছি। কিপিং ও ব্যাটিং অনুশীলন করছি। ভাল লাগছে। ঘরের মাঠ বলে আলাদা কিছ নেই। তবে এটি কিছুটা ‘লাকি ভেন্যু’। ম্যাচে সুযোগ পেলে যতটুকু পারি টিমের জন্য খেলার চেষ্টা করবো।’

দলে নিজের বিশেষ কোন ভূমিকায় গুরুত্ব দিচ্ছেন কিনা? সোহান জানালেন, দলের প্রয়োজনে যে কোন দায়িত্ব পালন করতে প্রস্তুত। বলেন, ‘টিমের প্রয়োজনে যে কোন জায়গাতে ব্যাটিং, ফিন্ডিং বা কিপিং করতে আমার কোন সমস্যা নেই। আমি প্রধানত কিপিংটা এনজয় করি। সেই সঙ্গে ব্যাটিংয়ের দুর্বল পয়েন্ট যেখানে রয়েছে সেখানে কাজ করছি। সামনের সিরিজের দিকে লক্ষ্য থাকবে। আসলে টি২০ খেলতে গেলে টিম অনুযায়ী আমাদের ভাল করতে হবে।’ সাকিব-মুশফিকদের মতো সিনিয়ররা সহযোগিতা করছেন জানিয়ে এখন পর্যন্ত জাতীয় দলের জার্সি গায়ে না জোড়ানো সোহান বলেন, ‘ড্রেসিংরুমে সিনিয়র যারা রয়েছেন মাশরাফি, মুশফিক, সাকিব, তামিম, রিয়াদ ভাই তারা নতুন হিসেবে আমাকে সাপোর্ট করছেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের টেম্পারম্যান্ট ও চাপটা কিভাবে সামলে নিতে হয় এসব বিষয়ে সিনিয়ররা আমাকে সহায়তা করছেন।’ শুভাগত টেস্ট ও ওয়ানডে খেলেছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে টি২০ খেলেননি। ওয়ানডে খেলেছেন সর্বশেষ ২০১১ সালে। আর টেস্ট গত বছরও খেলেছেন। এবার তার সামনে টি২০’র জার্সি গায়ে জড়ানোর সুযোগ ধরা দিয়েছে। সুযোগ পেলে ভাল করতে পারলে এশিয়া কাপ ও টি২০ বিশ্বকাপে খেলারও সুযোগ মিলবে। শুভাগত টি২০ খেলতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন বলেই জানিয়েছেন। বলেছেন, ‘আমি টি২০ খেলতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। কারণ স্ট্রোক খেলতে বেশি ভালবাসি।’ একাদশে সুযোগ পেলে কী করবেন? এমন প্রশ্নে শুভাগত বলেন, ‘যেহেতু আমি অলরাউন্ডার, তাই আমি ব্যাটিং, বোলিং উভয় দিকেই প্রাধান্য দেব। টিমের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যেখানে দরকার সেখানেই ব্যাটিং করবো।’

বিপিএলে এবারে উপরের দিকে ব্যাটিং করেছেন। উইকেটে এসে অল্প বল খেলে বেশি রান করার দক্ষতাই শুভাগতকে জাতীয় দলে খেলায় এগিয়ে নিয়েছে। শুভাগত চান, ‘উপরের দিকে ব্যাটিং করার ফলে চিন্তা-ভাবনা করার একটা সুযোগ থাকে। বড় স্কোর করার দিকেও অগ্রসর হওয়ার সুযোগ থাকে। তবে এখানে টিম ম্যানেজমেন্ট সুযোগ দিলে চেষ্টা করবো।’

জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজে ভাল করতে পারলে যে এশিয়া কাপ ও টি২০ বিশ্বকাপে সুযোগ মিলবে তা আঁচ করতে পারছেন এ অলরাউন্ডার। তাইতো বলেছেন, ‘অবশ্যই এটা ভাল একটা সুযোগ। এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপের আগে ভাল একটা প্রস্তুতিও হয়ে যাবে। যা আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। আর আমার নিজের জন্যও এটা ভাল একটা সুযোগ। এই সিরিজে ব্যাটিং-বোলিংয়ে ভাল করার মাধ্যমে দুটি টুর্নামেন্টেই জায়গা করে নিতে চেষ্টা করবো।’

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৬

১৩/০১/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: